• মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

একক সন্তানরা হয় বদরাগী, একরোখা ও স্থূলকায় : গবেষণা

  লাইফস্টাইল ডেস্ক

১৩ নভেম্বর ২০১৯, ১১:২৯
শিশু
ছবি : প্রতীকী

ওবেসিটি বা অতিরিক্ত ওজন সমস্যা সম্পর্কে কম-বেশি সবাই জানি আমরা। শিশুদের মধ্যেও মাঝেমধ্যে এই সমস্যা দেখা দেয়। সাধারণত স্থূলকায় শরীরের জন্য দায়ী করা হয় অনিয়ন্ত্রিত খাদ্যাভ্যাস বা জীবনযাত্রাকে। তবে বর্তমানে এর নতুন এক কারণ জানা গিয়েছে। 

মা-বাবার একমাত্র সন্তান ওবেসিটির শিকার হয় বেশি। এদের কেউই অতিরিক্ত ওজন নিয়ে জন্ম নেয়নি বরং পরবর্তী সময়ে নানা কারণে এদের বাড়তি ওজন জমে যা নিয়ন্ত্রণে আনা অসম্ভব হয়ে দাঁড়ায়। অন্য দিকে যাদের সহোদর অর্থাৎ আরও ভাই-বোন রয়েছে তাদের মধ্যে ওবেসিটির হার তুলনামূলক কম। সম্প্রতি এক গবেষণায় উঠে এসেছে এমনই তথ্য। 

জার্মানির ১০ হাজার স্কুল শিক্ষার্থীর ওপর জরিপ চালিয়ে গবেষণা করে এই তথ্য জানিয়েছেন একদল গবেষক। এই গবেষণাতেও প্রাধান্য পেয়েছে ছেলেমেয়েদের একা বেড়ে ওঠার বিষয়টি। অতিরিক্ত ওজনের প্রথম কারণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে ‘ফাস্ট ফুড’ বা ‘জাঙ্ক ফুড’।

যুক্তরাষ্ট্রের পুষ্টিবিশারদ ড. নাটালি মুথ তার এক গবেষণা প্রতিবেদনে জানান, যেসব সন্তানরা একা বেড়ে ওঠে তাদের খাদ্যাভ্যাস অন্যদের চেয়ে আলাদা। তিনি এসব সন্তানদের অভিহিত করেছেন ‘সিঙ্গেলটন’ নামে।  

এই গবেষক মনে করেন, সিঙ্গেলটন বাচ্চারা প্রচণ্ড একরোখা, বদরাগী ও জেদি হয়ে থাকে। যেহেতু তাদের অন্য কারোর সঙ্গে তাদের খেলনা বা খাবার ভাগাভাগি করতে হয় না তাই এরা অন্য বাচ্চাদের তুলনায় স্বার্থপর হয় বেশি। মা-বাবার পুরো পুরো মনোযোগ ও আদর নিয়ে বেড়ে ওঠার কারণে এসব শিশুর মধ্যে স্বেচ্ছাচারী আচরণ বেশি দেখা যায়। 

একক সন্তানদের মধ্যে নিজের অজান্তেই ফাস্টফুডের প্রতি আগ্রহ বেশি থাকে। আর মা-বাবাও সন্তানের চাহিদা পূরণ করেন শতভাগ। সব যে খারাপ দিক তা নয়। এই গবেষণায় বলা হয়েছে যেসব শিশুরা একা বেড়ে ওঠে, তারা অনেক বেশি মেধাবী হয়ে থাকে। এরা চমৎকার ব্যক্তিসত্ত্বার অধিকারী ও আত্মবিশ্বাসী হয়ে থাকে। একই কারণে এদের অহমিকাবোধও থাকে বেশি। 

অন্য দিকে যেসব শিশুর ভাই-বোন রয়েছে তারা ছোট থেকে ভাগাভাগি করতে শেখে। আবার এসব পরিবারে বাইরের খাবার থেকে ঘরে তৈরি খাবারে জোর দেওয়া হয় বেশি। 

চীনে ‘এক বাচ্চা নীতি’ প্রয়োগ করার পর দেশটিতে ওবেসিটির হার বেড়ে গিয়েছে ৭ শতাংশ। কর্মব্যস্ত নারীরা শিশুদের ক্ষুধা নিবারণে ভরসা রাখেন রেডি ফুডে। এটিও শিশুর ওজন বাড়ান আরেকটি বড় কারণ। 

এছাড়াও বর্তমানে শিশুরা শারীরিক পরিশ্রমের খেলার চাইতে ইন্টারনেট গেমে বেশি আসক্ত হচ্ছে। বিশেষত সিঙ্গেলটন শিশুদের মধ্যে এই সমস্যা প্রকট। একসময় ওবেসিটিকে রোগ হিসেবে দেখা হতো না। ওজন বাড়লে তা খাদ্যাভ্যাস নিয়ন্ত্রণ বা শারীরিক চর্চার মাধ্যমে কমিয়ে আনা যেত। কিন্তু এখন ওজন কমাতে অপারেশন অব্দি করতে হচ্ছে। এই বিষয়টিকে হুমকিস্বরূপ দেখছেন গবেষকরা। 

ছোটবেলা থেকেই শিশুদের অভ্যাস পরিবর্তন করা এখন সময়ের দাবি। 

ওডি/এনএম 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন সজীব 

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড