• বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ১১ বৈশাখ ১৪২৬  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন

শরীরে আয়োডিনের ঘাটতি আছে কীভাবে বুঝবেন?

  লাইফস্টাইল ডেস্ক ১৫ এপ্রিল ২০১৯, ১৮:৩৫

আয়োডিনের অভাব
ছবি : প্রতীকী

মানব শরীরের জন্য অতি জরুরী মাইক্রোনিউট্রিয়েন্ট হচ্ছে আয়োডিন। বিশেষ করে থাইরয়েড হরমোন উৎপাদনে এটি বিরাট ভূমিকা পালন করে। দেহের বৃদ্ধির এবং বুদ্ধি বিকাশের জন্য মানব দেহে আয়োডিন একটি অতি প্রয়োজনীয় বস্তু। শরীরে আয়োডিনের অভাব গলগণ্ড রোগ হয়। এছাড়া এটির অভাবে শরীরে অনেক রোগ বালাই আক্রমণ করে বসে খুব সহজেই।

সম্প্রতি বাংলাদেশ ‘আয়োডিন ও লবণ রিসার্চ সেন্টারের’ গবেষকরা একটি গবেষণা পত্র প্রকাশ করেছেন যেটিতে বলা হয়েছে দেশের প্রায় ৬ কোটি মানুষ আয়োডিন স্বল্পতার শিকার। আর ৩ কোটি মানুষ জানেই না যে, তারা আয়োডিন ঘাটতির শিকার। স্বল্প বুদ্ধি ও শিখন ক্ষমতা কমে যাওয়াসহ নানা জটিল রোগে ভুগছেন আয়োডিন ঘাটতিতে আক্রান্ত মানুষেরা।

গবেষণাপত্রে আরও বলা হয়েছে, আমাদের এই অঞ্চলের মাটিতে রয়েছে আয়োডিনের ঘাটতি। এই কারণে এই মাটিতে জন্মানো শাক সবজিতে এমনকি মাছ, মাংস, দুধ এবং ডিমেও আয়োডিন থাকার সম্ভাবনা নেই। তবে আয়োডিনের এই ঘাটতি পূরণের জন্য নির্ভর করতে হচ্ছে শুধুমাত্র লবণের উপর। লবণে আয়োডিন মেশানোর জন্য কোম্পানীগুলো অতিরিক্ত দাম নিলেও আসলে ঠিকমতো আয়োডিন মেশাচ্ছে না লবণে। যদিও এ বিষয়ে রয়েছে সুনির্দিষ্ট নীতিমালা কেবলমাত্র সঠিকভাবে তদারকির অভাবে দিন দিন বাড়ছেই এই সমস্যা।

গবেষণা পত্রের উপস্থাপক আয়োডিন ও লবণ রিসার্চ সেন্টারের গবেষক মো. মোনজুরুর হক এর কাছ থেকে জানা যায়, চুলের পরিমাণ কমে যাওয়া, স্থূলদেহ, খর্বাকৃতি সন্তান, মেয়েরা সংখ্যায় বেশি খাটো, স্কুল পড়ুয়াদের পড়াশোনায় অমনোযোগিতা , স্মরণশক্তি ও ধৈর্য-ক্ষমতা কমে যাওয়ার মতো বিষয়গুলোর জন্য দায়ী করা যায় আয়োডিনের ঘাটতি।

আয়োডিনের ঘাটতি হলে বেশ কিছু লক্ষণ প্রকাশ পায়। যার থেকে প্রাথমিক অবস্থায় সতর্ক হয়ে যাওয়া যায়। চলুন জেনে নেওয়া যাক আয়োডিনের অভাব প্রকাশ পায় এমন কয়েকটি লক্ষণ সম্পর্কে।

অবসন্ন থাকা

যে কোন কারণেই মানুষ অবসন্ন হতে পারে। কাজের চাপে, দুশ্চিন্তায় কিংবা অন্য যে কোন কারণেই মানুষের মধ্যে অবসন্ন ভাব কাজ করতে পারে। এটা মানুষের আচরণের স্বাভাবিক একটা বিষয়। কিন্তু যদি খুব ঘন ঘন অবসন্ন হয়ে পড়তে থাকেন তবে আপনাকে সতর্ক হতে হবে। নিয়মিত অবসন্ন হয়ে পড়া আয়োডিনের ঘাটতির অন্যতম কারণ। নিয়মিত অবসন্ন হয়ে পড়লে ডাক্তারের নিকট যাওয়া উচিত।

কোষ্ঠকাঠিন্য

আয়োডিনের অভাব শরীরের স্বাভাবিক প্রক্রিয়াকে বাধাগ্রস্থ করে তোলে। হজমের নানা সমস্যা থেকে শুরু করে কোষ্ঠ্যকাঠিন্যের মতো রোগ দেখা দিতে পারে শরীরে আয়োডিনের ঘাটতি হলে। তাই এই সমস্যাটি বেশিদিন স্থায়ী হতে দেখলে ডাক্তারের স্বরণাপন্ন হতে হবে।

থাইরয়েড ফুলে যাওয়া

আয়োডিনের অভাব হলে থাইরয়েড গ্রন্থি ফুলে যায়। এটাকে অনেক বড় মনে হয় তখন। থাইওরয়েডের এমন সমস্যা প্রকাশ পেলে ডাক্তারের পরামর্শ গ্রহণ করতে হবে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা হ্রাস

শরীরে আয়োডিনের ঘাটতি থাকলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়। ফলে শরীর হয়ে ওঠে সংবেদনশীল। ঠাণ্ডা কাশির মতো রোগ হয় ঘন ঘন। এছাড়াও কোন একটি রোগ হলে খুব সহজে ভাল হতে চায় না। এমন দেখলে বুঝতে হবে শরীরে আয়োডিনের ঘাটতি রয়েছে।

ওডি/এসএম

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড