• রবিবার, ১৬ জুন ২০১৯, ২ আষাঢ় ১৪২৬  |   ৩৫ °সে
  • বেটা ভার্সন

অপরূপ সৌন্দর্যের হাতছানি দিয়ে ডাকছে ইনানী

  ছানাউল্লাহ রিয়াদ ০৯ জানুয়ারি ২০১৯, ১০:৩৬

ইনানী
গৌধূলি লগ্নে ইনানী সি বিচ (ছবি : সংগৃহীত)

পৃথিবী তার কাব্যময় রূপ, সৌন্দর্য ও নান্দনিকতার সাজে ভরা। সত্যি কতই না সুন্দর! যদি সেই জায়গাটি হয় কক্সবাজার, তাহলে তো আর কথাই নেই! বন্ধু তোমায় বলতে চাচ্ছি আমার মাতৃক্রোড় ইনানীর কথা।

কক্সবাজারের দক্ষিণে সাগর কুল ঘেঁষে মোদের প্রিয় মাতৃভূমি ইনানী। যার মধ্যে রয়েছে কত রকম মন কাড়ানো দৃশ্য, রয়েছে সাগর মোহনায় সারিবদ্ধভাবে বসে থাকা পাথরস্তুপ, পাথরগুলো অতিথিদেরকে যেন নিরবে হাতছানি দিয়ে ডাকে, মনে হবে পাথরগুলোকে কেউ সারিবদ্ধভাবে বসিয়ে দিয়েছে।

কিন্তু না এসব মহান আল্লাহ্রই এক কুদরতী নিদর্শন। বন্ধু তুমি শুধু এতগুলো দেখে ক্ষান্ত হবে আমাদের ইনানীতে? তাহলে চলে যাও ইনানীর কয়েক কিলোমিটার দক্ষিণে, যেখানে দেখতে পাবে পাহাড়ের উপত্যকায় শত বছরের স্মৃতি বিজড়িত কানা রাজার গুহা যা দেখলে তোমার হৃদয় ক্যানভাসে হাবুডুবু খাবে এক অজানা ইতিহাস।

আর সাগর পাড়ে দেখতে পাবে মহান আল্লাহর হুকুমে নড়তে থাকা উত্তাল সাগরের উর্মিমালা, যেন তোমার সঙ্গে খেলা করছে, শুধু তাতেই শেষ নয় ইনানীর বুক দিয়ে কক্সবাজার হয়ে টেকনাফ পর্যন্ত মেরিনড্রাইব নামক যে সড়কটি বয়ে গেছে, তার বুকে দাঁড়িয়ে তুমি দেখতে পাবে সূর্যমামা কীভাবে অস্থ যায়, তার কিরণমালা কীভাবে সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ে, সূর্যের লাল আভায় সাগর ও যেন লাল হয়ে যায়, আর প্রকম্পিত হয়ে সাগর গর্জন ছুড়ে দেয় এ গর্জন যেন মনে হয় মহান রবের জিকিরের ধ্বনি।

ইনানী

ইনানী সি বিচ

 

তোমার দৃষ্টি কাড়বে সাগর মোহনার ঝাউগাছগুলো, যে গাছগুলো বাতাসের সঙ্গে তাল মিলিয়ে শু শু আওয়াজ দিয়ে অতিথিদেরকে বিরহের গান শোনায়। এসব দেখে বন্ধু তুমি হারিয়ে যাবে কল্পনাতীত এক স্বর্গরাজ্যে, বন্ধু আসবে কি মোর নয়নাভিরাম মাতৃভূমিতে?

লেখক : শিক্ষার্থী, আল-জামিয়া-আল ইসলামিয়া পটিয়া

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড