• মঙ্গলবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮, ৪ পৌষ ১৪২৬  |   ১৯ °সে
  • বেটা ভার্সন

সর্বশেষ :

শিরোনাম :

থেরেসা মে : ব্রেক্সিট ইস্যুতে ব্রিটিশ পার্লামেন্টে ভোট জানুয়ারিতে||'নির্বাচনে জনগণের অধিকার নিশ্চিত করতে ব্রিটিশ সরকারের পদক্ষেপ আহ্বান'||রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রস্তাব আলোচনা বর্জন করেছে চীন ও রাশিয়া||৩০০ কোটি টাকায় দুটি রুশ হেলিকপ্টার কিনছে বিজিবি||বরখাস্ত ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড কোচ হোসে মরিনহো||সু চি’কে দেওয়া পুরস্কার প্রত্যাহার করল দক্ষিণ কোরিয়া||নির্বাচনি পরিবেশ স্বাভাবিক, লেভেল প্লেয়িং ফিল্ডও বিদ্যমান : সিইসি||জামায়াতের ২২ নেতার ‘ধানের শীষ’ বাতিলে আদালতে রুল||যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বৈঠকে বসেছে বিএনপি   ||প্রতিশোধের রাজনীতি বন্ধের অঙ্গীকার করল বিএনপি 

অব্যবহার্য টুথব্রাশেই হোক বাজিমাত!

  অধিকার ডেস্ক    ০২ নভেম্বর ২০১৮, ০৮:৫৪

টুথব্রাশ
অব্যবহার্য টুথব্রাশই ঘরোয়া কাজে ব্যবহার করুন

প্রতিদিন যে ক’টি জিনিস ছাড়া আমরা একদম অচল তার মধ্যে টুথব্রাশ একটি। রাতের ঘুমানোর আগে কিংবা সকালে ঘুম থেকে উঠে দাঁত ব্রাশের জন্য টুথব্রাশ তো লাগেই। বিশেষজ্ঞদের মতে দেড় থেকে দুই মাস পর টুথব্রাশ বদলানো উচিত। 

তবে কী মাস দুয়েক পর পুরোপুরি অকেজো হয়ে যাবে টুথব্রাশটি। খানিকটা বুদ্ধি খাটালে কিন্তু ঘরের নানাবিধ কাজেই এর ব্যবহার করা যায়। চলুন তবে জেনে নিই কী কী কাজে ব্যবহার করতে পারেন আপনার অব্যবহার্য টুথব্রাশটি- 

যতই যত্ন নেওয়া হোক না কেন, কম্পিউটারের কি বোর্ডে ধূলো জমেই। মাঝেমধ্যে বালুর কণাও আটকে থাকে বাটনের কোণায়। সাধারণ নরম কাপড় দিয়েও এই ধূলা পরিষ্কার করা সম্ভব হয় না। এক্ষেত্রে আপনার সাহায্যকারী বন্ধু হতে পারে টুথব্রাশ। সহজেই ময়লা পরিষ্কার করতে পারবেন।  

নোংরা জুতো পরিষ্কার করতেও কিন্তু এই টুথব্রাশ কাজে লাগাতে পারেন। এটি দিয়ে জুতোর খাঁজে আটকে থাকা ময়লা খুব সহজেই তুলে ফেলা যায়। 

বাড়ির কল কিংবা বেসিনের কোণা পরিষ্কার করতে গিয়ে ঝামেলায় পড়েন অনেকেই। আঙুল না পৌঁছানোর কারণে সহজে পরিষ্কার করা সম্ভব হয় না এই জায়গাগুলো। এখন থেকে কল বা বেসিন পরিষ্কার করতে ব্যবহার করুন ব্রাশ। ভিনেগার আর লেবুর রস মিশিয়ে ব্রাশে লাগিয়ে নিন। এবার ব্রাশ করে দেখুন, উঠে যাবে সব দাগ। বাড়ির টাইলস পরিষ্কার করতেও একই নিয়মে ব্রাশ ব্যবহার করতে পারেন। 

এই তো শীত আসি আসি করছে। আর এ সময়ে ঠোঁট ফাটা সমস্যায় ভোগেন প্রায় সবাই’ই। এবার থেকে একটি পুরোনো ব্রাশ তৈরি রাখুন ঠোঁট পরিষ্কার রাখতে। খালি ব্রাশ দিয়ে মিনিট খানেক সময় ঠোঁট ব্রাশ করুন। এতে ঠোঁটের মৃতকোষ ঝরে পড়ে নতুন রূপ ফিরে পাবে। 

নোংরা চিরুনি দিয়ে চুল আঁচড়াতে অস্বস্তি হয় যে কারোর। আর এই চিরুনি পরিষ্কার করতে ঝক্কি পোহাতে হয় ভালোই। একদিকে পরিষ্কার হয় তো অন্যদিকে হয় না। এবার থেকে পুরোনো ব্রাশ দিয়েই কাজটি করুন। সহজে ঝকঝকে হয়ে যাবে আপনার চিরুনি। 

সূক্ষ্ম গয়না কিংবা শোপিসের ধূলো ছাড়াতেও ব্যবহার করতে পারেন ব্রাশ। যেসব জায়গায় হাত বা আঙুল পৌঁছায় না সেসব জায়গায় খুব সহজেই পৌঁছে যাবে ব্রাশ। 

বারান্দার গ্রিল কিংবা জানালার গ্রিলে সূক্ষ্ম নকশা থাকলে তা কাপড় দিয়ে সহজে পরিষ্কার করা সম্ভব হয় না। এখানেও আপনার উপকারী বন্ধু হবে টুথব্রাশ। কাজে লাগান তাকে। 

এখন থেকে তবে অব্যবহার্য টুথব্রাশেই পরিষ্কার থাকুক আপনার গৃহ। 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড