• শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ৯ ভাদ্র ১৪২৬  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন

নিত্যদিনের কাজে বেবি অয়েলের কিছু ব্যবহার

বেবি অয়েল
বেবি অয়েলের কিছু ব্যবহার

বেবি অয়েল মূলত বাচ্চাদের ত্বকের দিকে খেয়াল রেখেই ব্যবহার করা হয়। শিশুদের ত্বক অনেক বেশি সংবেদনশীল হয় বলে তাদের জন্য বেবি অয়েল ছাড়া অন্য কিছু ব্যবহার করা হয় না। আবার নারীরা মুখের মেকআপ তোলার জন্য অথবা বডি ম্যাসাজের জন্য বেবি অয়েল ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু এতটুকু ছাড়াও কিন্তু বেবি অয়েলের আরও অনেক ব্যবহার রয়েছে আমাদের দৈনন্দিন জীবনে। চলুন জেনে নিই সে ব্যবহারগুলো- 

হাতে লেগে থাকা রঙ দূর করতে 

নিজ ঘরের ওয়াল বা ফার্ণিচারে নিজেরা রঙ করার সময় হাতে রঙ লেগে যেতে পারে। সাবান পানিতে সাধারণত এ ধরনের রঙ পরিষ্কার হয় না। বেবি ওয়েল লাগিয়ে সাবান ও হালকা গরম পানি দিয়ে হাত ধুয়ে ফেলুন। রঙ উঠে যাবে। 

গোসলের সময় অয়েলের ব্যবহার

গোসলের পানিতে এসেনশিয়াল অয়েল দিয়ে গোসল করতে পছন্দ করেন অনেকে। এসেনশিয়াল অয়েলের হালকা ঘ্রাণের জন্য এটি ব্যবহার করেন অনেকে। এক্ষেত্রে বেবি অয়েলের সাথে কয়েক ফোঁটা এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে গোসল করে নিলে রিফ্রেশ লাগবে।  

ব্যান্ডেজ খোলা

শরীরে কোথাও কেটে গেলে ব্যান্ডেজ লাগিয়ে দেওয়া হয়। আর এ ব্যান্ডেজ উঠানর সময় আঠার কারণে বেশ ব্যথা লাগে। তাই ব্যান্ডেজ উঠানোর সময় ব্যান্ডেজের আশেপাশে একটু বেবি অয়েল মাখিয়ে নিলে ব্যান্ডেজ সহজেই ত্বক থেকে খুলে আসবে।

আঙুলে আংটি আটকে গেলে 

হাতের আঙুলে আংটি আটকে গেলে সে জায়গায় অল্প বেবি অয়েল মাখিয়ে নিন। কিছু সময় পরে আংটির জায়গাটা পিচ্ছিল হয়ে এলে আংটি সহজে খুলে আসবে। 

বাথরুম পরিষ্কার 

বাথরুমের টাইলস ও মেঝে নোংরা হয়ে গেলে এক টুকরো কাপড়ে ১ চা চামচ বেবি অয়েল মাখিয়ে ভালো করে মেঝে মুছে নিন। আরেকটি শুকনো কাপড় দিয়ে মেঝের তেলটুকু মুছে নিন। এরপর ক্লিনার দিয়ে ধুয়ে ফেলুন বাথরুম। ঝকঝকে হয়ে উঠবে বাথরুম। 

স্টেইলনেস স্টিল পরিষ্কারে 

বাথরুম ও কিচেনে থাকা স্টেইলনেস স্টিল পরিষ্কারে কয়েক ফোঁটা বেবি অয়েল কাপড়ে নিয়ে ভালো করে মুছে নিন। তোয়ালে দিয়ে মুছে ফেলুন তেলটুকু। চকচকে হয়ে উঠবে বাথরুম ও রান্নাঘর। 

চামড়ার জুতো ও ব্যাগ পরিষ্কার করুন

চামড়ার জুতো ও ব্যাগ পরিষ্কারে বেবি অয়েল ব্যবহার করতে পারেন। ব্যবহারের পর অবশ্যই তেলটুকু শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে নেবেন। 

সূত্র: রিডার্স ডাইজেস্ট
 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড