• শনিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮, ১ পৌষ ১৪২৬  |   ১৮ °সে
  • বেটা ভার্সন

হতাশ না হয়ে সন্তুষ্ট থাকুন 

  আরিফুল ইসলাম আরিফ ১১ অক্টোবর ২০১৮, ১০:৪০

হতাশা
হতাশায় যুবক (ছবি : প্রতীকী)

আপনি হতাশ...? এমন একটা পজিশনের স্বপ্ন দেখছেন বা দেখেছিলেন যেখানে যেতে পারলে নিজেকে দুনিয়ার সব থেকে সুখী মনে হবে? আপনি কি জানেন, আপনার কাঙ্ক্ষিত স্থানে থেকেও কেউ কেউ হয়তো জীবন খেলায় পরাজিত হয়ে জীবন থেকেই বিদায় নিতে চাচ্ছে। 

উদাহরণ চাচ্ছেন? চেস্টার বেনিংটনের চেয়ে বড় উদাহরণ আর কী হতে পারে, আমাদের দেশের সালমান শাহের কথাও বলা যায়।

তা কী নিয়ে হতাশ আপনি? একটা পাবলিক ভার্সিটিতে চান্স হলো না? ডিপার্টমেন্টে ফার্স্ট হতে পারেননি? নাকি বিসিএস হয়নি?

যে ঢাবিতে চান্স পাওয়া লাখ লাখ শিক্ষার্থীর স্বপ্ন, যে ঢাবিকে বলা যায় দেশের সকল শিক্ষা  প্রতিষ্ঠানের রাজধানী। সেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স বিভাগে চান্স পেয়েছিল কুষ্টিয়ার তরুণ হাসান। ভর্তিও হয়েছিলেন নিজের স্বপ্ন পূরণের জন্য। কিন্তু স্বপ্ন আর পূরণ হলো কই, মাঝপথেই যে তৃতীয় বর্ষে পড়ুয়া তরুণ হোসেনকে হাল ছেড়ে দিতে হলো, ছেলেটা আত্মহত্যা করেছে ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮।

ইনি কিন্তু এভাবে মাঝপথেই হাল ছাড়েননি। একটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অনার্স মাস্টার্স শেষ করেছেন, হয়েছেন ডিপার্টমেন্টের ফার্স্ট। কিন্তু কাজ হবে কী বলেন, শেষমেশ তাকেও ক্ষান্ত দিতে হলো। পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মৃত্তিকা বিজ্ঞানের ফার্স্টবয় দেবাশীস মণ্ডল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হতে না পেরে জীবনের কাছে আত্মসমর্পণ করেন এ বছরেরই ১৪ মে।

পুলিশের সহকারী কমিশনার (এসি) সাব্বির আহাম্মেদ, ৩১তম বিসিএস দিয়ে সহকারী পুলিশ সুপার হিসেবে পুলিশে যোগদান করেছিলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের এই ছাত্র। কী, তার জীবনে তো কোনো অপূর্ণতা থাকতেই পারে না তাই না? কিন্তু তার অপূর্ণতা যে কেবল সেই জানতো, আর সেই অপূর্ণতা পূরণ করতে না পেরেই কিনা আত্মহত্যা করেছেন ২৯ এপ্রিল ২০১৭ তারিখে।

এটা তো মাত্র কয়েকটা উদাহরণ। এমন ঘটনা প্রতিনিয়ত ঘটছে। অহরহ ঘটছে। আর এটাই বাস্তবতা। সকলের কাছে যে মানুষটা সফল, সে হয়তো নিজেই নিজের কাছে পরাজিত হয়ে বসে আছে। সবকিছু পেয়েও হয়তো কিছুই পাওয়া হয়নি, সুখটা তার কাছে অধরাই রয়ে গেছে।

সুতরাং কোনো কিছু পেয়ে যাওয়া মানেই সুখ না। আপনি আপনার অবস্থানে কতটা সন্তুষ্ট এটাই মূলত সুখের মাপকাঠি। একবার পিছনে তাকিয়ে দেখুন, আপনার যা আছে অনেকেরই সেটাও নেই। আপনি যে অবস্থানে আছেন সেখানে আসার জন্যও অসংখ্য মানুষ রাত দিন পরিশ্রম করে যাচ্ছেন, আপনার স্থানটাই তাদের কাছে স্বপ্ন।

কিছু একটা না পাওয়ার হতাশায় হতাশাগ্রস্ত না হয়ে যতটুকু পেয়েছেন অথবা যা আছে সেটা নিয়েই সন্তুষ্ট থাকুন, ভালো থাকুন, সুখে থাকুন।

লেখক : শিক্ষার্থী, জার্নালিজম এন্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগ, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ই-মেইল: [email protected].news

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড