• রোববার, ০৭ জুন ২০২০, ২৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭  |   ৩৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

খুসখুসে কাশি মানেই কী করোনার থাবা?

  স্বাস্থ্য ডেস্ক

০৮ এপ্রিল ২০২০, ১৯:২৮
করোনা ভাইরাস
করোনা ভাইরাস (ফাইল ছবি)

দেশে দেশে ভয়াল থাবা বসিয়েছে নোভেল করোনা ভাইরাস। এরই মধ্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) সতর্ক করে বলছে, শুকনো কাশিসহ গলাব্যথা, শ্বাসকষ্ট, জ্বর, ক্লান্তি এবং শরীরের ব্যথাভাব করোনা ভাইরাসের প্রাথমিক লক্ষণ। এছাড়া খুব কম করোনা রোগীরই ডায়রিয়া, বমি এবং নাক দিয়ে পানি পড়ার সমস্যা দেখা দেয়।

এ দিকে, প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের লক্ষণগুলো সঙ্গে সঙ্গে দেখা দেয় না। প্রাথমিকভাবে মনে হয় ফ্লু হয়েছে। কোনো সংক্রামিত ব্যক্তি যখন বুঝতে পারেন যে তার দেহে করোনার ভাইরাস রয়েছে, ততক্ষণে সম্ভবত আরও কিছু লোককে তিনি সংক্রামিত করে ফেলেছেন। এমন পরিস্থিতিতে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলা জরুরি।

অন্যদিকে, দেশের বাতাসে এখন গ্রীষ্মের ছোঁয়া। বছরের এই সময়টায় জ্বর, সর্দি-কাশি নতুন কোনো বিষয় নয়। কিন্তু করোনা ভাইরাসের কমন উপসর্গ জ্বর এবং শুকনো কাশি হওয়ায় বিষয়টিতে আরও বেশি সচেতন হতে হবে।

সাধারণ ফ্লু এবং করোনা ভাইরাস সংক্রমণের মধ্যে পার্থক্য?

চিকিৎসকদের মতে, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণে শুকনো কাশি দেখা দেয়। সাধারণ ফ্লুতে শ্লেষ্মা জড়ানো কাশি থাকে।

শুকনো কাশি কেমন হয়?

১. শুষ্ক কাশি একটানা হতে থাকে। এই জাতীয় কাশি গলায় চুলকানি সৃষ্টি করতে পারে।
২. শ্বাসতন্ত্রের ফোলাভাব বা জ্বালা প্রায়শই শুষ্ক কাশির কারণ হিসাবে বিবেচিত হয়।
৩. ভেজা কাশির পরিবর্তে ফ্লু নিরাময়ের পরে শুকনো কাশি বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরে থাকে।
৪. শুকনো কাশি সুস্থ হতে সময় নেয়। কখনও কখনও এটি একটি দীর্ঘ সময়ও লাগে।

ভেজা কাশি-

১. ভেজা কাশিতে শ্লেষ্মা থাকে।
২. নাক এবং গলা থেকে শ্লেষ্মা বেরিয়ে আসতে পারে। মূলত শ্লেষ্মা শরীরের প্রাকৃতিক প্রতিরক্ষামূলক উপাদান।
৩. অনেক ক্ষেত্রে ক্লান্তি, মাথা ব্যথার মতো লক্ষণগুলিতেও ভেজা কাশি দেখা যায়।

আরও পড়ুন : সাবধান! করোনা সংক্রমণের অন্যতম মাধ্যম আপনার চোখ

তবে শুষ্ক কাশি মানেই করোনা হয়েছে এমন নয়। শুকনো কাশির পাশাপাশি জ্বর, শ্বাসকষ্ট এবং ডায়রিয়ার সমস্যা হয়। এছাড়া আপনি সম্প্রতি যদি কোনো সংক্রামিত ব্যক্তির সংস্পর্শে আসেন, বিদেশ সফর করেন তাহলে অবশ্যই চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করুন।

ওডি

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড