• শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বাড়তি মেদ থেকে রক্ষা করবে কাঁচা মরিচ!

  লাইফস্টাইল ডেস্ক

০৯ নভেম্বর ২০১৯, ১৫:০৪
কাঁচা মরিচ
ছবি : কাঁচা মরিচ

প্রতিদিন পরিমিত পরিমাণ ব্যায়াম ও হাঁটাহাঁটির অভাবে আমাদের শরীরে জমা হচ্ছে বাড়তি মেদ, যা খুবই ক্ষতিকর। যাদের হাতে ব্যায়াম বা হাঁটাহাঁটি করার মতো একটুও সময় থাকে না, তারা খাদ্যাভাসে কিছুটা পরিবর্তন আনলেই বাঁচতে পারেন বাড়তি মেদের সমস্যা থেকে। 

অনেকেরই বাড়তি মেদের জন্য আত্মবিশ্বাস কমে যেতে থাকে এবং নিজেকে সকলের কাছ থেকে লুকিয়ে রাখে। এই সমস্যা থেকে পরিত্রাণ দিতে পারে আমাদের নিত্য ব্যবহৃত কাঁচা মরিচ। নাম শুনে অবাক হচ্ছেন?

কাঁচা মরিচের উপকারিতা সম্পর্কে আরও অবাক হবেন। সম্প্রতি পুষ্টি বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে কাঁচা মরিচ যে ওজন কমাতে সহায়ক ভূমিকা পালন করে, সে বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য তুলে ধরেছে। চলুন জেনে নেওয়া যাক তথ্যগুলো- 

১। কাঁচা মরিচে রয়েছে বিটা ক্যারোটিন, আলফা ক্যারোটিন, বিটা ক্রিপ্টোক্সানথিন ও লুটেইন জিয়াক্সানথিন এর মতো নানা উপাদান যা মুখে লালা আনে। এতে জিহ্বায় স্বাদ বৃদ্ধি পায় এবং খাবার মজা লাগে।

২। কাঁচা মরিচে থাকা ঝাল শরীরের বাড়তি মেদ কমাতে সাহায্য করে। কারণ, ঝাল খাবার শরীরের বিপাক ক্রিয়া ত্বরান্বিত অর্থাৎ বৃদ্ধি করে। 

৩। অ্যাপেটাইট জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণা থেকে জানা যায়, ক্ষুধার সময় ঝাল খেলে তৃপ্তি পাওয়া যায় এবং পেট ভরা ভাব সৃষ্টি হয়। তাই কাঁচা মরিচ খেলে অতিরিক্ত খাবার খাওয়ার সম্ভাবনা কমে যায়। 

৪। ২০০৮ সালে আমেরিকান জার্নাল অব ক্লিনিক্যাল নিউট্রিশনে প্রকাশিত গবেষণা থেকে জানা যায়, মরিচে থাকা ক্যাপসাইসিন পেটের চর্বি কাটতে সহায়ক ভূমিকা পালন করে। 

প্রতিদিনের রান্নায় তো কাঁচা মরিচ থাকেই। তবুও অতিরিক্ত মেদ থেকে রক্ষা পেতে নিয়মিত ভাতের সাথে কাঁচা মরিচ খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলতেই পারেন। কিন্তু যাদের পাকস্থলিতে সমস্যা আছে, তারা অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া কাঁচা মরিচ বা ঝাল খাবার থেকে বিরত থাকবেন। 

ওডি/এওয়াইআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড