• বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬  |   ৩৪ °সে
  • বেটা ভার্সন

কাশ্মীরে মিলছে না জীবন বাঁচানোর ওষুধ এবং বেবি ফুড

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৫ আগস্ট ২০১৯, ১৫:৪৭
কাশ্মীর
(ছবি : সংগৃহীত)

কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রদানকরা ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের পর ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার থেকে কাশ্মীরের পরিস্থিতি আগের থেকে স্বাভাবিক বলা হলেও বাস্তবে কাশ্মীর স্বাভাবিক হয়নি। মিলছে না জীবনদায়ী বেঁচে থাকার ওষুধ, বাচ্চাদের বেবি ফুড এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র। 

ডায়াবেটিসে আক্রান্ত ৬৫ বছরে বৃদ্ধ মা সুরাইয়া বেগমের ওষুধ কিনতে বেরিয়ে ছিলেন ছেলে সাজিদ আলি। উপত্যকায় যানবাহন চলছে না তাই  স্থানীয় হাসপাতাল থেকে অ্যাম্বুলেন্সে চড়ে শ্রীনগরে গিয়েও হতাশ হয়েছেন ছেলে। অবশেষে শ্রীনগর বিমানবন্দর থেকে নয়াদিল্লির টিকিট কেটে দিল্লি থেকে এক মাসের ওষুধ নিয়ে ফিরেছেন আলি।  

অন্যদিকে উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিসের মতো  রোগ নিয়ে দূরদূরান্ত থেকে এসে ফিরে যাচ্ছেন কাশ্মীরে মানুষ। বাবার জন্য ইনসুলিন পাননি মোহাম্মদ ইসমাইল নামের এক যুবক। অনন্তনাগের খুশ্রি বেগমের অ্যাজমা অ্যাটাকের পর ইনহেলার না পাওয়ায় হাসপাতালে নেওয়ার আগেই মারা গেছেন তিনি। 

জীবন বাঁচানোর ওষুধ না পেয়ে হাহাকার শুরু হয়েছে পুরো কাশ্মীরে। হাসপাতালে বেড়েছে রোগীর সংখ্যা, সমস্যা একটাই ওষুধ নেই। ভারত কর্তৃক গৃহীত সিদ্ধান্তের কারণে গত ৫ আগস্টের পর কাশ্মীরে ওষুধের কোনো নতুন সাপ্লাই আসেনি। এই বিষয়ে ইএফএফ এএওয়াই ফার্মাসি ডিস্ট্রিবিউটরের কর্ণধার মনসুর আহমেদ বলেন, মাত্র ৩০ শতাংশ স্টক পড়ে রয়েছে। নয়াদিল্লি থেকে কোনও নতুন স্টক আসছে না। গত ৩০ বছরেও এই ধরনের ওষুধের অভাব কাশ্মীরে হয়নি।

ওডি/কেএম  


 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড