• শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ১৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

কাশ্মীরকে অশান্ত করছেন রাহুল, দাবি গভর্নরের

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৪ আগস্ট ২০১৯, ১৭:৩৭
সত্যপাল মালিক ও রাহুল গান্ধী
কাশ্মীরের গভর্নর সত্যপাল মালিক ও কংগ্রেসের সদ্য পদত্যাগী সভাপতি রাহুল গান্ধী। (ছবি : সম্পাদিত)

এবার পার্লামেন্টের প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেসের সদ্য পদত্যাগ করা সভাপতি রাহুল গান্ধীর বিরুদ্ধে ভূস্বর্গ খ্যাত কাশ্মীরকে অশান্ত করার অভিযোগ তুললেন রাজ্যের গভর্নর সত্যপাল মালিক। পাল্টাপাল্টি প্রতিক্রিয়ার এক পর্যায়ে রাজ্যের এ গভর্নর বলেছেন, 'ভুয়া তথ্যে প্ররোচিত হয়ে রাহুল গান্ধী কাশ্মীর সংকটকে এবার রাজনীতি করণের চেষ্টা করছেন।' 

মঙ্গলবার (১৩ আগস্ট) এক টুইট বার্তায় কাশ্মীরের সত্যিকারের পরিস্থিতি জানতে রাহুলকে ভারতীয় টেলিভিশন চ্যানেলগুলো দেখার পরামর্শ দিয়েছেন গভর্নর সত্যপাল মালিক।

এর আগে গত শুক্রবার (৯ আগস্ট) জুমার নামাজ শেষে কাশ্মীরের বেশ কয়েকটি অঞ্চলে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়লে পুলিশ টিয়ার গ্যাস ও গুলি চালিয়ে আন্দোলনকারীদের ছত্রভঙ্গ করে। ব্রিটিশ গণমাধ্যম 'বিবিসি নিউজ'সহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক মিডিয়াতে বিক্ষোভ ও সহিংসতার এমন খবর প্রকাশিত হলেও ভারত সরকার তা পুরোপুরি অস্বীকার করে। 

যার প্রেক্ষিতে পরদিন শনিবার (১০ আগস্ট) কংগ্রেসের সদ্য পদত্যাগী সভাপতি রাহুল গান্ধী সহিংসতার কথা তুলে ধরলেও; এরই মধ্যে তার সেই বক্তব্যকে নাকচ করে দিয়েছেন কাশ্মীরের গভর্নর সত্যপাল মালিক। 

তার মতে, 'আমি রাহুল গান্ধীকে এই রাজ্যে আসার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছি। আমি আপনাকে একটি বিমান পাঠাতে পারি, যাতে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে মতামত জানাতে পারেন। একজন দায়িত্বশীল ব্যক্তি হিসেবে আপনার এভাবে কথা বলা উচিত নয়।'

এ দিকে মঙ্গলবার এক টুইট বার্তায় সত্যপালের বক্তব্যের তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন কংগ্রেসের সদ্য পদত্যাগী এই সভাপতি। রাহুল তার ভেরিফায়েড টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে পাঠানো বার্তায় লিখেছেন, 'আপনার আমন্ত্রণ আমি স্বাদরে গ্রহণ করছি। আমিসহ বিরোধীদের একটি প্রতিনিধি দল খুব শিগগিরই জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখ অঞ্চল পরিদর্শনে যাব।'

তিনি বলেন, 'আমাদের কোনো বিমান চাই না। তবে দেখবেন আমাদের যেন সাধারণ মানুষের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে দেওয়া হয়। যেকোনো জায়গায় যেন আমরা যেতে পারি। আমরা সেখানকার রাজনৈতিক নেতা, সাধারণ মানুষ ও জওয়ানদের সঙ্গে সরাসরি কথা বলতে চাই।'

তাৎক্ষণিক রাহুলের সেই টুইটের জবাবে সত্যপাল মালিক দাবি করেন, 'জম্মু ও কাশ্মীরের বিষয়টি তিনি ইচ্ছাকৃতভাবে রাজনীতিকরণ করছেন। রাহুলের এ ধরনের আচরণ রাজ্যের পরিস্থিতিকে আরও বেশি অশান্ত করে তুলবে।'

এর আগে গত ৫ আগস্ট (সোমবার) ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ ধারা রদের মাধ্যমে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করেছিল ক্ষমতাসীন মোদী সরকার। যার প্রেক্ষিতে পরবর্তীতে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে বিতর্কিত লাদাখ ও জম্মু ও কাশ্মীর সৃষ্টির প্রস্তাবেও সমর্থন জানানো হয়।

আরও পড়ুন :- কাশ্মীর ইস্যুতে মোদীর পদক্ষেপকে অসাংবিধানিক বললেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী

এসবের মধ্যেই চলমান কাশ্মীর ইস্যুতে পাক-ভারত মধ্যকার সম্পর্কে নতুন করে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। এরই মধ্যে একে একে ভারত সরকারের সঙ্গে বাণিজ্য, যোগাযোগসহ সব ধরনের সম্পর্ক ছিন্নের ঘোষণা দিয়েছে প্রতিবেশী পাকিস্তান। যদিও এমন সংকটময় পরিস্থিতিতে পাক সরকারের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে এশিয়ার পরাশক্তি চীন; আর ভারত পাশে পেয়েছে রাশিয়াকে।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন সজীব 

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড