• বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৯, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

এবার কুর্দিদের মাথা গুঁড়িয়ে ফেলার হুমকি দিলেন এরদোগান

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৮:৫৬
তুর্কি প্রেসিডেন্ট
তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান। (ছবিসূত্র : আনাদোলু এজেন্সি)

মধ্যপ্রাচ্যের যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ সিরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলে তুরস্কের ব্যাপক সেনা অভিযানের পর এবার যুদ্ধবিরতি চলছে। যদিও এতে এখন পর্যন্ত অন্তত পাঁচ শতাধিক কুর্দি সেনাকে ‘নিউট্রালাইজ’ করেছে তুরস্ক। তুর্কি জাতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে পাঠানো বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়। কোনো সন্ত্রাসী কিংবা বিদ্রোহীকে হত্যা, আটক অথবা তাদের আত্মসমর্পণ করালে তুরস্ক এই নিউট্রালাইজ শব্দটি ব্যবহার করে। 

আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সূত্রের বরাতে ব্রিটিশ গণমাধ্যম ‘বিবিসি নিউজ’ জানায়, তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান এরই মধ্যে অঞ্চলটিতে নিজেদের ঘোষিত ‘নিরাপদ অঞ্চল’ থেকে কুর্দি সেনাদের অবিলম্বে সরে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। সেক্ষেত্রে তারা যদি এমনটা না করে তাহলে কুর্দিদের মাথা গুঁড়িয়ে দেওয়া হবে বলেও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি। শনিবার (১৯ অক্টোবর) তুরস্কের মধ্যাঞ্চলীয় প্রদেশ কায়সারিতে আয়োজিত এক টেলিভিশন অনুষ্ঠানে দেওয়া সাক্ষাৎকারে প্রেসিডেন্ট এরদোগান এসব কথা বলেন।

তিনি বলেছেন, ‘মার্কিন প্রতিনিধিদের সঙ্গে স্বাক্ষরিত অস্ত্র বিরতি চুক্তি অনুযায়ী আগামী মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) সন্ধ্যার মধ্যে সিরিয়ার কুর্দিরা অঞ্চলটি না ছাড়লে, আমরা যেখান থেকে অভিযানের শেষ করেছিলাম সেখান থেকেই পুনরায় শুরু করা হবে। সেক্ষেত্রে সকল জঙ্গিদের মাথা গুঁড়িয়ে দেওয়া হবে।’

এর আগে বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট পেন্স এবং যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর সঙ্গে বিশেষ বৈঠক করেন প্রেসিডেন্ট এরদোগান। মূলত সেই বৈঠকে তারা কুর্দিদের সঙ্গে টানা ৫ দিনের এক অস্ত্র বিরতির ঘোষণাও দেন। যদিও শনিবার উভয় পক্ষই পরস্পরের বিরুদ্ধে অস্ত্র-বিরতি চুক্তি লঙ্ঘনের অভিযোগ তুলতে শুরু করে। 

এ দিকে তুর্কি সেনাদের দাবি, কুর্দি বাহিনী চলমান অস্ত্র বিরতি চুক্তিকে অমান্য করে রাস আল-আইনে গত ৩৬ ঘণ্টায় মোট ১৪ বার হামলা চালিয়েছে।

অপর দিকে সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্সেস (এসডিএফ) বলছে, তুরস্ক এবারের যুদ্ধ বিরতি চুক্তিকে লঙ্ঘন করেছে। তাছাড়া তুর্কি সেনাদের দখলকৃত এলাকাতে তারা নিরস্ত্র বেসামরিক ও আহত লোকদের জন্য একটি নিরাপদ অঞ্চল গড়ে তুলতেও ব্যর্থ হয়েছে।

আগামী সপ্তাহে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে তুর্কি প্রেসিডেন্টের একটি দ্বিপাক্ষিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। সেই বৈঠকের বিষয়ে এরদোগান দাবি করেন, ‘বৈঠকে চলমান সঙ্কটের সমাধান না আসলে, তুরস্ক নিজেদের পরিকল্পনা বাস্তবায়নে আরও বেশি সোচ্চার হবে।’

আরও পড়ুন :- সিরিয়ায় রাসায়নিক হামলা চালিয়েছে তুরস্ক

এর আগে গত ৯ অক্টোবর সিরিয়ায় অবস্থানরত মার্কিন সমর্থিত কুর্দি বাহিনীর ওপর সশস্ত্র অভিযান শুরু করে তুরস্ক। বর্তমানে যা আনুষ্ঠানিকভাবে যুদ্ধবিরতি অবস্থাতে থাকলেও থেমে থেমে সেই সংঘাত এখনো অব্যাহত আছে।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড