• বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১৭ আশ্বিন ১৪২৭  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বিক্ষোভে উত্তাল ইকুয়েডর, রাজধানীতে কারফিউ (ভিডিও)

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৩ অক্টোবর ২০১৯, ১০:২৯
ইকুয়েডরে বিক্ষোভ
ইকুয়েডরের রাজপথে চলছে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ। (ছবিসূত্র : দ্য ডেইলি মেইল)

সরকারবিরোধী চলমান বিক্ষোভে এরই মধ্যে উত্তাল হয়ে উঠেছে দক্ষিণ আমেরিকার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় দেশ ইকুয়েডর। যার অংশ হিসেবে রাজধানী কুইটো থেকে সকল সরকারি কার্যক্রম সরিয়ে প্রত্যাহারের পর এবার শহরটিতে কারফিউ জারির ঘোষণা দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট লেনিন মোরেনো।

মূলত জ্বালানি তেলের মূল্যে সরকারি ভর্তুকি বন্ধের পর শুরু হওয়া এই বিক্ষোভের দশম দিনে রাজধানীতে সেনা মোতায়েনও করা হয়। শনিবার (১২ অক্টোবর) এক টুইট বার্তায় প্রেসিডেন্ট লেনিন দাবি করেন, রাজধানী ও আশেপাশের এলাকায় চলমান সহিংসতা অসহনীয় মাত্রায় বৃদ্ধি পাওয়ায় বাধ্য হয়েই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সম্প্রতি ইকুয়েডরের প্রেসিডেন্ট গোটা দেশে জ্বালানি তেলের মূল্যে সরকারি ভর্তুকি বাতিলের ঘোষণা দিলে আচমকা ধর্মঘটের ডাক দেয় ইকুয়েডরের ট্রান্সপোর্ট ইউনিয়ন। যদিও পরবর্তী সময়ে সেই আন্দোলন বাতিল হলেও এখনো অব্যাহত আছে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ।

দেশের বিভিন্নস্থানে গুরুত্বপূর্ণ সব সড়ক বন্ধ করে এরই মধ্যে বিক্ষোভ প্রদর্শন করছে স্থানীয় আদিবাসীরা। এসব আন্দোলনে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটছে। এতে এখন পর্যন্ত অন্তত ৫ বিক্ষোভকারীর প্রাণহানি হয়েছে। যে কারণে চলমান এই উদ্ভূত পরিস্থিতি মোকাবিলায় টানা দুই মাসের জন্য গোটা দেশে জাতীয় জরুরি অবস্থার ঘোষণা দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট লেনিন মোরেনো।

এ দিকে গত শনিবার এই কারফিউ জারির কিছুক্ষণ আগেই আচমকা প্রেসিডেন্ট লেনিনের সঙ্গে আলোচনায় বসতে সম্মত হন বিক্ষোভরত আদিবাসী নেতারা। কনফেডারেশন অব ইন্ডিজেনাস ন্যাশনালিটিস অব ইকুয়েডর (কোনাই) এক টুইট বার্তায় জানায়, তারা প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সরাসরি আলোচনায় বসতে সম্মত আছেন। যদিও এর আগে বারংবার তারা প্রেসিডেন্টের সেই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে আসছিল।

অপরদিকে বিক্ষোভরত আদিবাসীদের সেই বিবৃতি প্রকাশের পর কুইটোর মেয়র জর্জ মাচাদো স্থানীয় মিডিয়াকে দেওয়া সাক্ষাতকারে বলেন, ‘দেশে তেলের ভর্তুকি বন্ধ করে দেওয়ার বিষয়টি সরকার সম্পূর্ণই আইনগতভাবে পর্যালোচনা করবে।’

আরও পড়ুন :- সিরিয়ায় তুর্কি আগ্রাসনে গৃহহীন লক্ষাধিক বেসামরিক

যদিও আদিবাসী নেতাদের সঙ্গে সরকারের কোনো ঐক্যমত হলে; তাতে এই বিক্ষোভ শেষ হবে কিনা তা এখনো নিশ্চিত নয়। কেননা এরই মধ্যে সরকারবিরোধী এই বিক্ষোভের নিয়ন্ত্রণ অনেকগুলো ছোট ছোট দলের হাতেও চলে গেছে। যা কারণে সকল বিক্ষোভকারী সরকারি এই সিদ্ধান্তের সঙ্গে একমত হবেন কিনা তাও এখনো নিশ্চিত নয়।

ওডি/কেএইচআর

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801721978664

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড