• রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ৪ কার্তিক ১৪২৬  |   ৩৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ইসরায়েলে ফের সরকার গঠনের পথে নেতানিয়াহু

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১১:২৬
ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী
ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। (ছবিসূত্র : দ্য জেরুজালেম পোস্ট)

মধ্যপ্রাচ্যের দখলদার রাষ্ট্র হিসেবে পরিচিত ইসরায়েলের সদ্য সমাপ্ত সাধারণ নির্বাচনে ক্ষমতায় বসার জন্য একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পেলেও ফের সরকার গঠনের পথে হাঁটছেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। বুধবার (২৫ সেপ্টেম্বর) ইহুদিবাদী এই রাষ্ট্রটির প্রেসিডেন্ট রুভেন রিভলিন এক ঘোষণায় এই সরকার গঠনের জন্য আহ্বান জানান। 

সকল ফলাফল ও জরিপকে অবজ্ঞা করে তিনি বলেন, 'বর্তমানে সরকার গঠনের জন্য নেতানিয়াহুই সবার চেয়ে এগিয়ে আছেন। তাই আমি তাকে পুনরায় দেশের সরকার গঠনের জন্য আহ্বান জানাচ্ছি।'

এর আগে গত ১৭ সেপ্টেম্বর দেশটিতে অনুষ্ঠিত নির্বাচনের ফলাফলে দেখা যায়, আসন সংখ্যার দিক থেকে প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী বেনি গান্টজের নীল ও সাদা দলের থেকে পিছিয়ে পড়েছে বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর ডানপন্থি লিকুদ পার্টি। ফলে সরকার গঠনের দৌড়ে এখন এগিয়ে বিরোধী দলের প্রধান নেতা বেনি গান্টজ।

ইসরায়েলের পার্লামেন্ট ‘নেসেট’-এ মোট আসন সংখ্যা ১২০টি। সংবিধান অনুসারে, সরকার গঠন করতে হলে যেকোনো দল বা জোটকে ৬১ আসন পেতে হবে। সাধারণ নির্বাচনের ফলাফলে দেখা যায়, ১২০ আসনের মধ্যে মধ্যপন্থি উদার রাজনৈতিক জোট নীল ও সাদা দল পেয়েছে মোট ৩৩ আসন। অপর দিকে, লিকুদ পার্টি পেয়েছে মোট ৩১ আসন। এছাড়া অন্য দুটি দল পেয়েছে যথাক্রমে ২৪ ও ১১টি আসন। ফলে সরকার গঠনের স্বপ্নভঙ্গ হয়েছে লিকুদ পার্টির নেতৃত্বে বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর।

প্রেসিডেন্ট রুভেন

ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর পাশে দাঁড়িয়ে প্রেসিডেন্ট রুভেন রিভলিন। (ছবিসূত্র : ইউরো নিউজ)

যদিও গত বুধবার নেতানিয়াহুকে পাশে রেখে প্রেসিডেন্ট রিভলিন তার ঘোষণায় বলেছেন, 'সরকার গঠনের ক্ষেত্রে নেতানিয়াহু এগিয়ে রয়েছেন। তার কাছে আরও ছয় সপ্তাহ সময় আছে।'

বিশ্লেষকদের মতে, ইসরায়েলে প্রেসিডেন্টের পদ মূলত কেবল আনুষ্ঠানিকতার। ইহুদিবাদী এই রাষ্ট্রটির প্রধানমন্ত্রী পদের জন্য তিনি চাইলে যে কাউকেই মনোনীত করতে পারেন। স্বাভাবিকভাবে এটা খুবই সহজ সিদ্ধান্ত হলেও এবার তা বেশ জটিল হয়ে উঠেছে। 

কেননা নির্বাচনে কোনো দলেরই একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পাওয়ায় সম্প্রতি প্রেসিডেন্ট জাতীয় ঐকমত্যের সরকার গঠনের প্রস্তাব দিয়েছিলেন। যদিও নেতানিয়াহু এতে সম্মতি দিলেও সায় দেননি বিরোধী নেতা গান্তজ। যে কারণে তারা নিজেরা কোনো জোট গঠন না করলে প্রেসিডেন্ট চাইলে যে কাউকেই মনোনীত করতে পারেন।

বৃহস্পতিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) ক্ষমতাসীন দলের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে গান্টজ বলেন, দুর্নীতিগ্রস্ত দলের সাথে কোনো ব্লকই ঐক্য গঠন করবে না। আমরা সবার কথা শুনব, তবে আমাদের ওপর চাপানো আদেশ আমরা গ্রহণ করব না।

আরও পড়ুন :- মোদী-অমিতকে নিয়ে তৈরি পাক জঙ্গিদের ‘হিট লিস্ট’

নেতানিয়াহুকে একঘরে করে রাখতে যেন উঠে পড়ে লেগেছেন বেনি গান্টজ। তিনি বলেন, নেতানিয়াহুর সঙ্গে কোনো জোট নয়। লিকুদ পার্টিকে বাইরে রেখেই নতুন সরকার গঠন করবেন তিনি। শুধু তাই নয়, এরই মাঝে গান্টজ জাতীয়তাবাদী ‘ইসরায়েল বেতিনু’ পার্টি ও বামপন্থি লেবার-গেসার ও ডেমোক্রেটিক ক্যাম্প পার্টির সঙ্গে নতুন সরকার গঠনের ব্যাপারে কথা বলবেন বলেও জানান।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড