• বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ১ কার্তিক ১৪২৬  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

এ বছর ভয়াবহ খরার কবলে পড়বে ভারত

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২২:৫৭
খরা
(ছবি : প্রতীকী)

ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা (ইসরো) ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা (নাসা) সতর্ক করেছে বলেছে এবার ভারতে খরা ভয়াবহ রুপ নিতে পারে। ভারতের যে অঞ্চল গুলো এতোদিন খরা প্রবণ বলে চিহ্নিত হয়নি, সেই এলাকাগুলোতেও এবার খরা হতে পারে বলে জানিয়েছে সংস্থা দুটো। ইসরো ও নাসার এক যৌথ পর্যবেক্ষণে এই সতর্কতা দেওয়া হয়েছে। 

বিগত চার বছর ধরে দক্ষিণ এশিয়ায় এ গবেষণাটি চালানো হয়েছে। যার প্রথম পর্বটি শেষ হয়েছে। আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান-জার্নাল ‘নেচার’-এ এই গবেষণাপত্রটি ছাপা হয়েছে।

গবেষণায় দেখা গেছে, গ্রীষ্মে দক্ষিণ এশিয়ার বায়ুমণ্ডলে যে বিপুল পরিমাণ অ্যারোসল কণা জমা হয়, তার পরিমাণ উদ্বেগজনকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। ভারতসহ দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বায়ুমণ্ডলে অ্যারোসলের স্তর গত চার বছরে এতোটাই পুরু হয়ে গিয়েছে যে, তা বায়ুমণ্ডলের একেবারে নীচের স্তর ট্রপোস্ফিয়ার থেকে পৌঁছে গিয়েছে তার উপরের স্তর স্ট্র্যাটোস্ফিয়ারেও। খবর আনন্দবাজার। 

পশ্চিম ভারতের বিস্তীর্ণ এলাকা গত বছরেই ভয়াবহ খরার কবলে পড়েছিল। ইসরো ও নাসা জানায়, বায়ুমণ্ডলে অ্যারোসলের স্তর অত্যন্ত পুরু হয়ে যাওয়ায় ভারতে এবার সেই খরা আরও ভয়াবহ হতে পারে।

গবেষণায় দেখা গেছে, কলকারখানা থেকে বেরিয়ে আসা বিষাক্ত গ্যাস ও গাছপালা পোড়ানোর ধোঁয়ায় ওই অ্যারোসল্‌স কণাদের জন্ম হয়। জীবাশ্ম জ্বালানির অতিরিক্ত ব্যবহারের ফলে গ্রিনহাউস গ্যাসের নির্গমন উত্তরোত্তর বেড়ে যাওয়ায় বায়ুমণ্ডলে উদ্বেগজনকভাবে অ্যারোসল কণার পরিমাণ বেড়ে গেছে। যার কারণে অ্যারোসলের স্তর ভীষণ পুরু হয়ে গিয়েছে। এটা ফলে এ বছর ভারতে খরা আরও ভয়াবহ হওয়ার প্রবল আশঙ্কা রয়েছে।

ওডি/টিএএফ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড