• বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ১ কার্তিক ১৪২৬  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

হিন্দিই পারে ভারতের ঐক্য ঠিক রাখতে, দাবি অমিত শাহর

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৬:৩৫
অমিত শাহ
ভারতীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও বিজেপির সভাপতি অমিত শাহ। (ছবিসূত্র : ইন্ডিয়া টুডে)

ভারতের সকল প্রান্তের লোকের মুখের ভাষা যাতে হিন্দি হয়ে ওঠে, এবার তার পক্ষেই জোর দিলেন দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও ক্ষমতাসীন বিজেপির সভাপতি অমিত শাহ। শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) 'হিন্দি দিবস' উপলক্ষে এক টুইট বার্তায় তিনি এ মন্তব্য করেন। যেখানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিন্দি ভাষাই ভারতের ঐক্যকে ধরে রাখতে পারে বলে মত দিয়েছেন। 

টুইট বার্তায় অমিত শাহ বলেছেন, 'ভারতে বহু ভাষা রয়েছে। তাই প্রতিটি ভাষারই নিজস্বতা, স্বাতন্ত্র্য ও তাৎপর্য রয়েছে। তবে বিশ্বে ভারতের পরিচিতির জন্য একটা নির্দিষ্ট ভাষা অত্যন্ত প্রয়োজন। দেশের কোনো ভাষা যদি ভারতের ঐক্য ও সংহতিকে অটুট রাখতে পারে, তা হলো আমাদের বহুপ্রচলিত হিন্দি ভাষা।'

এ দিকে ভাষা ইস্যুতে পরে টুইটারে আরও একটি পোস্ট দেন অমিত শাহ। যেখানে তিনি মাতৃভাষার পাশাপাশি হিন্দি ভাষার ব্যবহার বৃদ্ধির ওপর জোর দেন। টুইটার পোস্টে বিজেপির সভাপতি সবাইকে হিন্দি দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়ে লেখেন, 'ঐতিহাসিক এই দিনে মাতৃভাষার পাশাপাশি হিন্দির ব্যবহার বৃদ্ধির জন্য আমি দেশবাসীর কাছে অনুরোধ জানাচ্ছি।'

অপর দিকে দিবসটি উপলক্ষে কেবল অমিত শাহই নন ভারতে ভাষাটির ব্যবহার বৃদ্ধির ওপর জোর দিয়েছেন বিজেপির কার্যনির্বাহী সভাপতি জগৎ প্রসাদ নাড্ডাও। রাজধানী নয়া দিল্লির এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেছেন, 'দেশে হিন্দি ভাষাতেই সবচেয়ে বেশি সংখ্যক লোক কথা বলেন। কেননা এ ভাষাই সবচেয়ে সহজে বোঝা সম্ভব।'

বিজেপির কার্যনির্বাহী এই সভাপতি আরও বলেন, 'হিন্দি ভাষাই বর্তমানে ভারতীয়দের ঐক্যের বাঁধনে বেঁধে রেখেছে। তাছাড়া বর্তমান বিশ্বে ভারতের পরিচিতির নির্ধারকও হয়ে উঠেছে এ ভাষা। তাই আমি নিজেদের জীবনে হিন্দি ভাষার ব্যবহার বাড়ানোর ব্যাপারেও ভারতীয়দের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।'

আরও পড়ুন :- সৌদির এক বিপ্লবী নারীর গল্প

উল্লেখ্য, চলতি বছরের জুন মাসে ক্ষমতাসীন মোদী সরকার জাতীয় শিক্ষানীতির অধীনে দেশের সকল স্কুলে হিন্দি ভাষা শিক্ষাকে বাধ্যতামূলক করার সুপারিশ করে একটা খসড়া প্রকাশ করেছে। মূলত এর পরই ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোতে ব্যাপক আলোড়ন শুরু হয়। যেখানে সমর্থন জানিয়ে প্রতিবাদে সামিল হয় তামিলনাড়ুর রাজ্যের প্রায় অধিকাংশ বিরোধী দল।

সূত্র : আনন্দবাজার

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড