• শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন

কক্ষপথে পৌঁছাল চন্দ্রযান-২, চাঁদে অবতরণ ৭ সেপ্টেম্বর

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২০ আগস্ট ২০১৯, ১৯:১৫
চন্দ্রযান-২
ছবি : সংগৃহীত

মহাকাশে ৩০ দিন কাটিয়ে ভারতের ১৪৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের চন্দ্রযান-২ সফলভাবে চাঁদের কক্ষপথে পৌঁছে গিয়েছে। এটি ছিল এই অভিযানের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ, একই সঙ্গে এই অভিযান উদীয়মান ভারতের সবচেয়ে বিলাসী স্বপ্নের একটা। প্রত্যাশার চেয়ে বেশি গতিবেগ হলে তা মহাশূন্যে হারিয়ে যেত, আবার কম গতিবেগ হলে চাঁদের কক্ষপথে আছড়ে পড়ত চন্দ্রযান-২। 

ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা (ইসরো) তাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা এক পোস্টে উল্লেখ করে, 'এটায়, চন্দ্রযান-২ এর পরপর কতগুলো কক্ষপথের ওপর কাজ করা হবে, যার মাধ্যমে চন্দ্রপৃষ্ঠ থেকে ১০০ কিলোমিটার দূরের শেষ কক্ষপথে পৌঁছাবে যানটি। 

'এরপরে, অবতরণকারী অংশটি কক্ষপথ থেকে আলাদা হয়ে যাবে, এবং চাঁদের চারপাশে ১০০x৩০ কিলোমিটার কক্ষপথে প্রবেশ করবে। ২০১৯ এর ৭ সেপ্টেম্বর চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে পৌঁছাবে যানটি' বলে টুইটে যুক্ত করে ইসরো। 

ইসরোর উপগ্রহ সেন্টারের প্রাক্তন পরিচালক ড. আন্নাদুরাই চলতি অভিযান সম্পর্কে বলেন, 'এটা খানিকটা এমন যে, ঘণ্টায় প্রায় ৩,৬০০ কিলোমিটার বেগে নাচছেন এক নারী, তার কাছে গোলাপফুল হাতে যাচ্ছেন এক ভদ্রলোক। (এই গতিবেগ বিমানের গতির প্রায় পাঁচগুণ), তাও আবার ঘরের কাছে নয়, ৩ দশমিক ৮৪ লক্ষ কিলোমিটার দূরে। যদি ওই জুটির মিলন হতে হয়, তাহলে অত্যন্ত নিষ্ঠাবান এবং নির্ভুল হতেই হবে।'

২২ জুলাই অন্ধ্রপ্রদেশে শ্রীহরিকোটা থেকে উৎক্ষেপণ করা হয় ভারতের চন্দ্রযান-২। প্রথমবার ব্যর্থ হয়ে দ্বিতীয়বারের চেষ্টায় উৎক্ষেপণ সফল হয়। প্রযুক্তিগত ত্রুটির কারণে প্রথমবার উৎক্ষেপণের এক ঘণ্টা আগে বাতিল করা হয়। এই মিশনটিতে খরচ ভারতীয় মুদ্রায় ১,০০০ কোটি টাকার বেশি, যা অন্যান্য দেশের খরচের তুলনায় বেশ অনেকটাই কম।

যদি এই মিশন সফল হয়, তাহলে রাশিয়া, আমেরিকা এবং চীনের পর চাঁদে পৌঁছাবে ভারত। গত বছর চাঁদে পৌঁছাতে ব্যর্থ হয় ইসরায়েল।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড