• শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ৯ ভাদ্র ১৪২৬  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন

যুক্তরাষ্ট্রে ডে কেয়ারে অগ্নিকাণ্ডে পাঁচ শিশুর মৃত্যু

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১২ আগস্ট ২০১৯, ১৬:০৫
'ডে কেয়ার সেন্টার'
পেনসিলভানিয়া অগ্নিকাণ্ডের শিকার 'ডে কেয়ার সেন্টার'। (ছবিসূত্র : দ্য পিপলস)

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভানিয়া অঙ্গরাজ্যের একটি 'ডে কেয়ার সেন্টার' বা শিশু দিবাযত্ন কেন্দ্রে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত অন্তত পাঁচ শিশুর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত হওয়া গেছে। কর্তৃপক্ষের দাবি, মর্মান্তিক এ ঘটনায় নিহতদের সবার বয়সই ৮ মাস থেকে ৭ বছরের মধ্যে। 

মার্কিন গণমাধ্যম 'সিএনএন' এক প্রতিবেদনে জানায়, শনিবার (১০ আগস্ট) স্থানীয় সময় গভীর রাতে অঙ্গরাজ্যটির এরি নামক এক শহরের 'হ্যারিস ফ্যামিলি ডে কেয়ারে' আচমকা অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এতে ঘটনাস্থলে এক নারীও গুরুতর আহত হন বলে দাবি উদ্ধার কর্মীদের।

এ দিকে শহরটির দমকল বাহিনীর প্রধান কর্মকর্তা গাই স্যান্টোনের বরাতে ব্রিটিশ গণমাধ্যম 'বিবিসি নিউজ' জানায়, 'গত শনিবার রাতে পেনিসেলভিয়ায় যে শিশুরা নিহত হয়েছেন তাদের প্রত্যেকের বয়স ৮ মাস থেকে শুরু করে ৭ বছরের মধ্যে।' 

দমকল বাহিনীর এই প্রধান আরও বলেন, 'অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি নারীটি ডে কেয়ার সেন্টারটির স্বত্বাধিকারী বলে এরই মধ্যে সনাক্ত করা গেছে। তবে ঠিক কী কারণে এমন অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত তা এখনো নিশ্চিত করা যায়নি।'

অপর দিকে দেশটির প্রভাবশালী গণমাধ্যম 'দ্য ওয়াশিংটন পোস্ট' এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, দুর্ঘটনার সময় ডে কেয়ার সেন্টারটিতে যে শিশুরা অবস্থান করছিল, তাদের বাবা-মায়েরা রাতে বাইরে কাজ করতেন; তাই তাদের সেখানে রাখা হয়। যদিও ভয়াবহ অবস্থায় দেখে আতঙ্কিত দুই কিশোরী নিজেদের আত্মরক্ষার্থে ভবনের ছাদ থেকে লাফ দেন। তবে তাদের তেমন কিছুই হয়নি।

এরি শহরের দমকল কর্তৃপক্ষ মর্মান্তিক এই অগ্নিকাণ্ডের সর্বশেষ তথ্য জানিয়ে বলেন, শনিবার স্থানীয় সময় রাত ১টার পরে তারা ওই ডে কেয়ার সেন্টারে আগুন লাগার খবরটি পান। পরে তাৎক্ষণিক তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিজেদের কাজ শুরু করেন। তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছানো মাত্রই দেখেন ডে কেয়ারটির নিচতলার সবকয়টি জানালা দিয়ে আগুন জ্বলতে দেখেন।

আরও পড়ুন :- যেভাবে কাটছে কাশ্মীরিদের ঈদ

দমকল বাহিনীর প্রধান অগ্নি-পরিদর্শক জন উইডোমস্কি ভয়াবহ এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার প্রকৃত কারণ অনুসন্ধানে এরই মধ্যে তদন্ত কাজ শুরু হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন। যার অংশ হিসেবে অগ্নিকাণ্ডের সম্ভাব্য কারণগুলো ইতোমধ্যে খতিয়ে দেখা হচ্ছে; তদন্ত শেষে বিস্তারিত জানানো হবে। তাছাড়া শিশুদের মরদেহগুলো পরিবারের কাছে হস্তান্তরের কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড