• মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট ২০১৯, ৫ ভাদ্র ১৪২৬  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন

অভিবাসীদের পুনর্বাসনে সম্মত ইউরোপের ৮ দেশ, দাবি ম্যাক্রোর

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৩ জুলাই ২০১৯, ১৩:৩৫
ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইম্যানুয়েল ম্যাক্রো
ইউরোপের বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্র প্রধানের সঙ্গে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইম্যানুয়েল ম্যাক্রো। (ছবিসূত্র : দ্য হেরাল্ড নিউজ)

বিভিন্ন সময় ভূমধ্যসাগর থেকে উদ্ধারকৃত অভিবাসীদের পুনর্বাসনে সম্মত হয়েছে ইউরোপের আটটি দেশ। এমনটাই জানিয়েছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইম্যানুয়েল ম্যাক্রো। তিনি বলেন, 'যদিও এই দেশগুলোর তালিকায় নেই ইতালির নাম। 

সোমবার (২২ জুলাই) রাজধানী প্যারিসে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে দেশগুলোর চুক্তিতে সম্মত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ব্রিটিশ গণমাধ্যম 'বিবিসি নিউজ'।

প্যারিসে অনুষ্ঠিত বৈঠক শেষে ম্যাক্রো তার বক্তব্যে বলেন, 'এবারের বৈঠকে ফ্রান্স ও জার্মানির পরিকল্পনাকে নীতিগতভাবে সমর্থন জানিয়েছে ইউরোপের ছয়টি দেশ। রাষ্ট্রগুলো হলো- ফ্রান্স এবং জার্মানি, ফিনল্যান্ড, লুক্সেমবার্গ, পর্তুগাল, লিথুয়ানিয়া, ক্রোয়েশিয়া এবং আয়ারল্যান্ড। তবে যেসব দেশ অভিবাসীদের গ্রহণে সম্মত নয়; ইইউ থেকে তাদের জন্য কাঠামোগত কোনো তহবিল প্রদানে আমাদের মত নই।'

এ দিকে অভিবাসীদের ইউরোপে প্রবেশের প্রধান দ্বার ইতালি হলেও প্যারিস অনুষ্ঠিত সেই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন না দেশটির কোনো প্রতিনিধি। কেননা দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মাতেও সালভিনি এরই মধ্যে অভিবাসীদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান গ্রহণ করেছেন।

অপর দিকে প্রতি বছরই প্রায় কয়েক হাজারের বেশি অভিবাসন প্রত্যাশী ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপে প্রবেশের চেষ্টা করেন। আর সেক্ষেত্রে লিবিয়া হচ্ছে তাদের কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ স্থান। মূলত এই অঞ্চলটি ব্যবহার করে সম্পূর্ণ ঝুঁকিপূর্ণ পথে ও অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই নৌকায় চেপে অভিবাসীরা সমুদ্র পাড়ি দেয়। 

আরও পড়ুন :- অভিবাসীদের বিরুদ্ধে নতুন আইন করছে যুক্তরাষ্ট্র

বিশ্লেষকদের মতে, এই পথে জাহাজ ও নৌকাডুবিতে প্রায়ই অনেক অভিবাসীর মৃত্যু হয়। তবে ২০১৭ সালের মাঝামাঝি থেকে ইতালি ও ইইউ'ভুক্ত বেশ কয়েকটি দেশের ব্যাপক তৎপরতার কারণে অভিবাসীদের এই ঢল নাটকীয় হারে হ্রাস পেয়েছে।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড