• শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

পিতামাতার সন্ধান পেতে উদ্ধার ভিডিও প্রকাশ

জর্জিয়ার জঙ্গলে প্লাস্টিক ব্যাগ থেকে উদ্ধার 'বেবি ইন্ডিয়া' (ভিডিও)

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৭ জুন ২০১৯, ১৫:৪০
বেবি ইন্ডিয়া
উদ্ধারকৃত বেবি ইন্ডিয়া। ছবি : সংগৃহীত

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়া প্রদেশের পুলিশ কর্মকর্তা প্লাস্টিক ব্যাগের মধ্য থেকে এক নবজাতককে উদ্ধার করে। কোন যুগল এই পরিত্যক্ত নবজাতককে নির্মমভাবে একটি প্লাস্টিক ব্যাগের মধ্যে পেঁচিয়ে জঙ্গলে ফেলে যায়, সেখান থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করে পুলিশ। শিশুটির নাম রাখা হয় 'বেবিইন্ডিয়া', পিতামাতার সন্ধানে 'বেবিইন্ডিয়া'কে আবিস্কারের ধারণকৃত মর্মস্পর্শী ভিডিওটি আপ্লোড করে কাউন্টি শেরিফ। 

চলতি মাসের ৬ তারিখে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। এরপর তার মা-বাবার সন্ধান করতে থাকে পুলিশ। মায়ের ঠিকানা চিহ্নিত করতেই ভিডিওটি প্রকাশ করে তারা। এই ভিডিওটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। 

ফোরসিথ কাউন্টি শেরিফ অফিসের মতে, 'বেবিইন্ডিয়াকে' স্থানীয় সময় ৬ই জুন রাত ১০টার দিকে ডাভোস ক্রিক রোডের পাশে একটি প্লাস্টিক ব্যাগের মধ্যে পাওয়া যায়। এক যুগল তাদের বাড়ির পেছনের গহীন অরণ্যে শিশুর কান্না শুনতে পেয়ে ফোরসিথ কাউন্টি শেরিফ অফিসে খবর দেয়।

বুধবার (২৬ জুন) শেরিফ অফিসের পক্ষ থেকে জনসম্মুক্ষে নবজাতকটির আবিস্কারের ভিডিওটি প্রকাশ করা হয়। কন্যাশিশুটির পিতামাতাকে চিহ্নিত ও কেন তাকে এভাবে ফেলে দেওয়া হলো সেই কারণ জানার প্রচেষ্টায় তারা এটা প্রকাশ করে। 

ভিডিওটিতে দেখা যায়, মাথায় ক্যামেরা থাকা ওই পুলিশ কর্মকর্তা প্লাস্টিকের ব্যাগটি ছিঁড়ে কীভাবে নবজাতকটি উদ্ধার করছে। নির্মমতার শিকার শিশুটির মর্মস্পর্শী কান্নার দৃশ্য অসহনীয়। শেরিফটি শিশুটিকে আলতো করে তুলে ধরে বলছে, 'আমি খুবই দুঃখিত, অত্যন্ত দুঃখিত। দেখ, তুমি কত অমূল্য।' ফার্স্ট এইড দিয়ে শিশুটিকে কম্বলে মুড়িয়ে হাসপাতালে পাঠানো হয়, সেখানে তাকে 'ইন্ডিয়া' বলে ডাকতে শুরু করা হয়। 

সুস্থ আছে পরিত্যক্ত নিষ্পাপ সেই কন্যাশিশু 'ইন্ডিয়া'। ছবি : সংগৃহীত 

শেরিফ অফিস ভিডিওটির সঙ্গে এক বিবৃতিতে বলে, 'জর্জিয়া ডিপার্টমেন্ট অফ ফ্যামিলি অ্যান্ড চাইল্ড সার্ভিসেসের তত্ত্বাবধানে বেবিইন্ডিয়া এখন বেশ সুস্থ। এমন রিপোর্ট করতে পেরে আমরা আনন্দিত'। সরকারি কর্মকর্তারা কয়েকদিন আগেই গর্ভধারণের শেষ পর্যায়ে থাকা নারীদের তথ্য জানাতে স্থানীয়দের অনুরোধ করে।  

শেরিফের অফিসে বলা হয়, 'আমরা এই ফুটেজটিকে শিশু ইন্ডিয়ার পরিচয় সম্পর্কে বিশ্বাসযোগ্য তথ্য পেতে প্রকাশ করি। এই মামলাটি শেষ করতে কন্যাশিশুটির পিতামাতাকে খুঁজে বের করা কতটা গুরুত্বপূর্ণ তার জন্য সবার কাছে এটা প্রকাশ করা।'

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড