• শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ৯ ভাদ্র ১৪২৬  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন

দীপিকা সিংহ রাজাওয়াত

যে হিন্দু আইনজীবীর সাহসিকতায় ধর্ষণের বিচার পেল মুসলিম শিশু

দেশদ্রোহীর তকমা, সন্তান হত্যার হুমকিতেও নড়েনি যে

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১১ জুন ২০১৯, ১৮:২৯
দীপিকা সিংহ রাজাওয়াত
নিজে কাশ্মীরী পণ্ডিত সম্প্রদায়ের হয়েও মুসলিম সম্প্রদায়ের পাশে দাঁড়ানো এই মানুষটির নাম দীপিকা সিংহ রাজাওয়াত। ছবি : সংগৃহীত

কালো ফ্রেমের চশমা, গায়ে কালো কোট, সঙ্গে সাদা ওড়না। চোখে মুখে এক অদ্ভুত দৃঢ়তা, ভারতের জম্মু-কাশ্মীর হাইকোর্টের আইনজীবী দীপিকা সিংহ রাজাওয়াত। বরাবরই স্রোতের বিপরীতে হাঁটা এই তেজস্বিনীকে চেনেন? একজন হিন্দু পণ্ডিত সম্প্রদায়ের মেয়ে হয়েও এক মুসলিম শিশুর ওপর জঘন্য নির্যাতনের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছেন, নিজ পরিবার, নিজের শিশু সন্তানের প্রাণনাশের হুমকি মাথায় নিয়েই এই আইনজীবী লড়ে গিয়েছেন। শোনা যাক তার অদম্য সাহসিকতার গল্প।

২০১৮ সালের ১৭ই জানুয়ারি ভারত শাসিত জম্মু-কাশ্মীরের কাঠুয়াতে ঘটেছিল এক নির্মম পাশবিক ঘটনা। বকরাওয়াল সম্প্রদায়ের আট বছরের এক ছোট্ট মেয়েকে চার দিন মন্দিরে আটকে রেখে মাদকে আচ্ছন্ন করে গণধর্ষণ করেছিল, তাতেই খান্ত হয়েছিল না ধর্ষকরা, মাথা থেঁতলে খুনও করেছিল শিশুটাকে।

ছবি : সংগৃহীত

এই ঘটনা প্রকাশ পেলে ভারতজুড়ে শুরু হয়েছিল প্রবল আলোড়ন। মন্দিরের তত্ত্বাবধায়ক সাধ্বী রাম, তিন পুলিশ কর্মীসহ মোট আট জন অভিযুক্ত হয়। আশ্চর্যজনকভাবে অভিযুক্তদের সমর্থনে বিক্ষোভ করে 'হিন্দু একতা মঞ্চ' নামে এক সংগঠন। মন্দিরের তত্ত্বাবধায়ক অভিযুক্তদের সমর্থনে বিক্ষোভ করে।

ঠিক সেই সময়ে নিজের বিপদের তোয়াক্কা না করে শিশুটির হয়ে মামলা লড়ার গুরুদায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নেন এই নির্ভীক দীপিকা। সংকটের সূত্রপাত ঠিক তার পরেই, দেশজুড়ে বাড়তে থাকে সাম্প্রদায়িক রাজনীতির সংকট।

ছবি : সংগৃহীত

কিন্তু জম্মু-কাশ্মীর হাইকোর্টের বার অ্যাসোসিয়েশনের বিরোধিতা, ক্রমাগত ধর্ষণের হুমকি, নিজের ৯ বছরের মেয়েকে প্রাণে মারার হুমকি, দেশদ্রোহী তকমা-কিছুই দমাতে পারেনি এই সাহসী আইনজীবীকে।

নিজে কাশ্মীরী পণ্ডিত সম্প্রদায়ের হয়েও মুসলিম সম্প্রদায়ের পাশে দাঁড়ানো এই মানুষটির নৈতিক জয় হয় গত ৩ জুন, ২০১৯-এ। শাস্তি পায় কাঠুয়া কাণ্ডে অভিযুক্তরা। তার এই অসামান্য সাহসিকতার জন্য ১১ জুন ২০১৮ 'ইন্ডিয়ান মার্চেন্ট চেম্বার'-এর নারী শাখা তাকে 'ওমেন অফ দ্য ইয়ার' শিরোপায় ভূষিত করেছিল।

বিচার হওয়া ধর্ষকরা। ছবি : সংগৃহীত

কে এই দীপিকা সিংহ রাজাওয়াত?

১৯৮০ সালে জম্মু-কাশ্মীরের কারিহানা গ্রামের এক পণ্ডিত সম্প্রদায়ে জন্ম এই বিশিষ্ট আইনজীবীর। যোধপুরের 'ন্যাশনাল ল' ইউনিভার্সিটি' থেকে আইনে স্নাতক করে বর্তমানে জম্মু-কাশ্মীরের আদালতে আইনজীবী হিসেবে কর্মরত। ব্যক্তিগত জীবনেও খুবই সুখী তিনি, রয়েছে ৯ বছরের ছোট্ট মেয়ে 'অষ্টমী'। কাঠুয়া ধর্ষণ কাণ্ডের পর বাচ্চাটিকে নিয়েও নানান ধরনের হুমকির সম্মুখীন হন দীপিকা।

তার নিজের শিশু সন্তান হত্যার হুমকির পরেও লড়ে গিয়েছেন মুসলিম শিশুর ওপর নির্যাতনের বিচার আদায়ে। ছবি : সংগৃহীত  

মানবাধিকার এবং শিশুকল্যাণের জন্য কাজ করা এনজিও 'ভয়েস অফ রাইট'-এরও চেয়ারপার্সন তিনি। অনেকেরই জানা নেই কাঠুয়া কাণ্ডে তিনিই প্রথম 'রিট পিটিশন' দায়ের করেন। এই কারণেই তার বার অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যপদও বাতিল হয়ে যায়। 'লাডলি অ্যাওয়ার্ড', 'চরখা অ্যাওয়ার্ড' ইত্যাদি নানান পুরস্কার রয়েছে তার ঝুলিতে। ভারতে নির্ভয়া, আলিগড়, কাঠুয়া থেকে বাংলার কামদুনি –একের পর এক নৃশংসতা যখন ঘটে চলে তখন দীপিকারাই জ্বালিয়ে রাখেন আশার দীপশিখা।

 

ওডি/এসএমএস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড