• বুধবার, ২২ মে ২০১৯, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন

চীনের সাংহাই শহরে ভবনের ছাদ ধসে ৫ শ্রমিকের মৃত্যু

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক ১৬ মে ২০১৯, ২১:৩৫

চীন
সাংহাই শহরে ধসে যাওয়া ভবন; (ছবি ; এএফপি)

চীনের সাংহাই শহরে একটি ব্যবসায়িক ভবনের নির্মাণাধীন ছাদ ভেঙে পড়ে ৫ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। ভবনের ছাদ পুনঃনির্মাণের জন্য কাজ করতে গেলে বৃহস্পতিবার (১৬ মে) স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১১টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে সাংহাই শহর কর্তৃপক্ষ। ‘এএফপি’

দেয়াল ও পাথরের নিচে ২০ জনেরও বেশি শ্রমিক চাপা পড়ার তথ্য পাওয়া গেলেও সরকারি তথ্য মতে এই ঘটনায় ৫ জনই নিহত হয়েছে। সারা দিন উদ্ধার কার্য পরিচালনা করা হয়েছে এবং অনেক শ্রমিককে পাথর চাপা অবস্থা থেকে বের করে আনা হয়েছে। স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমে প্রচার করা হয় এই উদ্ধার অভিযান যেখানে দেখা যায় উদ্ধারকর্মীরা দেয়াল ও পাথর ছিদ্র করে শ্রমিকদের মৃতদেহ বের করে আনছেন। তবে তা সীমিত পরিসরে দেখানো হয়েছে।

এই ঘটনায় হতাহতদের ব্যাপারে কোনো বিস্তারিত তথ্য দেয়নি স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। দুর্ঘটনার পরপরই নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য কর্তৃক পুরো এলাকা ঘিরে ফেলে এবং উদ্ধারকার্য পরিচালনা করেছে। কোনো সাংবাদিককে ওই ভবনের কাছে যেতে দেওয়া হয়নি।

আগুন নিয়ন্ত্রণ ব্যুরোরে তথ্য মতে, ব্যবসায়িক কাজে ব্যবহৃত হওয়ার আগে এই ভবনটি মার্সিডিজ বেঞ্জ গাড়ির ডিলারশিপের জন্য ব্যবহৃত হতো।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় এক বাসিন্দা বলেন, আমি ওই সময় ঘুমোচ্ছিলাম এবং হঠাত প্রচণ্ড শব্দে আমার ঘুম ভেঙে যায় এবং আমার বিছানা ভূমিকম্পের মতো কেঁপে ওঠে। প্রথমে আমি ভেবেছিলাম এটা একটি বিস্ফোরণের শব্দ।

চীনা সংবাদমাধ্যমের তথ্য মতে ওই ভবনটি ৩০০০ স্কয়ার মিটার জায়গার ওপর স্থাপিত ছিল এবং গণমাধ্যমের তোলা ছবি দেখে মনে হয় ভবনটির অর্ধেক ছাদ ভেঙে পড়েছে।

চীনে সাম্প্রতিক সময় বেশ কয়েকটি ভবন ধসের খবর পাওয়া গেছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, নিরাপত্তা আইন অবজ্ঞা করা এবং কর্নার কাটিং নির্মাণ পদ্ধতির কারণেই এমন দুর্ঘটনা ঘটছে। এর আগে ২০১৬ সালে উইনজোহো শহরে একটি ভবন ধসে ২০ জনের মৃত্যু হয়েছিল।

ওডি/কেএম

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড