• সোমবার, ২৭ মে ২০১৯, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬  |   ৩৬ °সে
  • বেটা ভার্সন

হুথি লক্ষ্যবস্তুতে জোটের হামলা

সৌদি বিমান হামলায় ইয়েমেনি পরিবারের সলিলসমাধি

হতাহতের সংখ্যা বাড়ার আশঙ্কা

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক ১৬ মে ২০১৯, ১৭:৪৬

ইয়েমেন যুদ্ধ
সৌদি জোটের বিমান হামলায় ৪ সন্তানসহ ৬ সদস্যের একটি পরিবারের বাড়িতে আঘাত হানে। ছবি : সংগৃহীত

ইয়েমেনের রাজধানী সানায় হুথি বিদ্রোহীদের লক্ষ্যবস্তুতে বিমান হামলা চালায় সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট, যার ফলে বেসামরিক নিহত ও আবাসিক এলাকা ক্ষতিগ্রস্ত হয় বলে কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় অধিবাসীরা আশঙ্কা প্রকাশ করছে। বৃহস্পতিবার (১৬ মে) সকালে বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানায়, জোটের বিমান হামলায় সানার কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত ৬ সদস্যবিশিষ্ট একটি পরিবারের সবাই নিহত হয়।

এছাড়াও, বিমান হামলায় ৩০ জনেরও বেশি আহত হয়েছেন বলে জানা যায়। বিবৃতিতে বলা হয়, গুরুতর আহত অবস্থায় থাকা অনেকের প্রাণহানির সম্ভাবনা থাকায় নিহতের সংখ্যা বাড়তে পারে। সানার কেন্দ্রীয় এলাকায় অবস্থিত পরিবারটির বাড়িতে বিমান হামলা আঘাত করলে পরিবারের ছয় সদস্যই নিহত হয় বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়।

আমাত আল মালিক আব্দুল্লাহ নামে একজন প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, 'সকালে জোটের বিমান হামলার আঘাতে একজন বাবা, মা ও তাদের চার সন্তান মারা যায়।'

হুথি টিভি আল-মাসিরাহ আরও জানায়, বিমান হামলায় স্কুলের কাছাকাছি একটি বাড়িতে আঘাত করে, যার ফলে কী পরিমাণ হতাহত হয়েছে তা এখনও অজানা। আশপাশের প্রায় সব বাড়িঘরই বাজেভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। উদ্ধারকর্মীরা জানান, তারা এখনো ধ্বংসস্তূপের মধ্য থেকে সম্ভাব্য জীবিতদের সন্ধান করছে।

সানার কেন্দ্রস্থলের ঘনবসতিপূর্ণ এলাকার চারটি সামরিক ঘাঁটিতে লক্ষ্য করে জোট বিমান হামলা চালায়। স্থানীয় অধিবাসীরা জানায়, বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত তথ্য মন্ত্রণালয়ের কাছাকাছি কয়েক ডজন ঘর সামান্য ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সানা থেকে ২০ কিলোমিটার উত্তরে আরাহাব জেলার তিনটি সামরিক ঘাঁটিকে লক্ষ্য করে ৮টি বিমান হামলা চালানো হয়েছে।

ইরান-সমর্থিত হুথি বিদ্রোহীরা সৌদি আরবের দুটি তেল পাম্পিং স্টেশন ও অন্যান্য তেল কেন্দ্রে ড্রোন হামলার দায় স্বীকার করার দুই দিন পরই জোট এই বিমান হামলা চালায়। জোটের মুখপাত্র তুর্কি আল-মাল্কি বৃহস্পতিবার হুথি লক্ষ্যমাত্রার বিরুদ্ধে বিমান অভিযানের সূচনা ঘোষণা করে বলেছিলেন, এটি হুথি মিলিশিয়াদের 'আগ্রাসনমূলক আচরণ'কে নিরপেক্ষ করার লক্ষ্যে চালানো হয়েছে।

তিনি বলেন, 'জোটের বিমানবাহিনী সানার আত্তানের পাহাড়ে হুথিদের গোলাবারুদের গুদাম ও সামরিক পোস্টকে লক্ষ্য করে হামলা চালায়।'

বেসামরিক নাগরিকদের লক্ষ্যবস্তুর অবস্থান থেকে দূরে থাকার জন্য অনুরোধ করার সময় আল-মাল্কি বলেছেন, অপারেশন আন্তর্জাতিক আইনের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ রেখেই করা হয়েছে। আমরা বেসামরিক নাগরিকদের রক্ষা করার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি।

আল-মাল্কি হুথি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে সানা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরকে ড্রোন হামলা করার জন্য আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক নিরাপত্তাকে হুমকির মুখে ফেলার জন্য একটি সামরিক ব্যারিকেডে পরিণত করার অভিযোগ করেছেন। তিনি বলেন যে, হুথিদের এই ধরনের অনুশীলন আন্তর্জাতিক ও মানবিক আইনগুলোর একটি পরিষ্কার ও উচ্ছৃঙ্খল লঙ্ঘন ছিল।

সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের সহায়তায় ইয়েমেন সরকার ও হুথি বিদ্রোহীদের মধ্যে যুদ্ধ ইয়েমেনের অন্যান্য অঞ্চলে, বিশেষত দক্ষিণ প্রদেশ আল-ধালিয়ায় এবং সাদার উত্তর সীমান্ত প্রদেশেও বৃদ্ধি পেয়েছে।

সৌদি আরবে ইয়েমেনের শিয়া হুথি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে ২০১৫ সালের মার্চ থেকে আন্তর্জাতিক স্বীকৃত রাষ্ট্রপতি আব্দ-রাব্বু মনসুর হাদি সমর্থনের বিরুদ্ধে সৌদি আরব সুন্নি সামরিক জোট পরিচালনা করছে। বিদ্রোহীরা তাকে নির্বাসনে পাঠাতে বাধ্য করার পর সানাসহ ইয়েমেনের উত্তরের বেশিরভাগই দখল করে।

ওডি/এসএমএস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
SELECT id,hl2,parent_cat_id,entry_time,tmp_photo FROM news WHERE ((spc_tags REGEXP '.*"location";s:[0-9]+:"ইয়েমেন".*')) AND id<>63779 ORDER BY id DESC LIMIT 0,5

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড