• বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন

জঙ্গলে নিয়ে নাবালিকাকে গণধর্ষণ, ভিডিও ধারণ করে প্রকাশ

শিশু থেকে বৃদ্ধা, নারীরা কোন বয়সেই নিরাপদ নয়

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক ২৬ এপ্রিল ২০১৯, ১৩:০২

ভারতে ধর্ষণ
ছবি : আইরিশ টাইমস

প্রায় এক মাস আগে ভারতের আসামের হোজাই জেলার জঙ্গলে জোর করে টেনে নিয়ে গিয়ে পাঁচজন মিলে ১৬ বছর বয়সী এক কিশোরীকে ধর্ষণ করেছিল। ঘটনাটি বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) দেশটির পুলিশ জানায়, পাঁচ অভিযুক্তের মধ্যে একজন এই পুরো ধর্ষণের ভিডিওটি তোলে। সেটিই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। এখনো পর্যন্ত এই ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে তিনজনকে।

বুধবার (২৪ এপ্রিল) করা এফআইআরে জানানো হয়েছে, গত ২৫ মার্চ ওই নাবালিকা তার বোন জামাইয়ের সঙ্গে এক আত্মীয়ের বাড়ি যাচ্ছিল। ওই সময়ই পাঁচজন মিলে ধর্ষণ করে তাকে। ওই নাবালিকাকে জোর করে জঙ্গলে টেনে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই ধর্ষণ করার সময় ভিডিওটি তোলা হয়। পুলিশ জানিয়েছে, ওই নাবালিকার বোন জামাইকে জেরা করা হচ্ছে। পাঁচ অভিযুক্তের মধ্যে দুই অভিযুক্ত এখনও পলাতক। ওই নাবালিকাকে নওগাঁও হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছিল। ঘটনাটির তদন্ত চলছে।

অন্যদিকে, ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে নিজের বাড়ি থেকে অপহরণ করে নিয়ে একটি ৩ বছরের শিশুকে ধর্ষণ করার অভিযোগে অভিযুক্তকে ২০ বছরের কারাদণ্ডের নির্দেশ দিল রাজ্সথানের কোটার বিশেষ আদালত। ২৫ বয়সী ওই অভিযুক্ত অজয় রাই ওরফে ট্যাক্সির বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছিল পকসো (প্রোটেকশন অব চাইল্ড ফ্রম সেক্সুয়াল অফেন্সেস অ্যাক্ট) আইনে। সেই আইন অনুযায়ীই ২০ বছরের জেলের সঙ্গে তার জরিমানা করা হয় ২ লক্ষ ১০ হাজার টাকা।

ঘটনাটি ঘটে ২০১৮ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর। কোটা শহরের দাদাবাড়ি থানার অধীনে বাঙালিবস্তি এলাকার বাসিন্দা অজয় রাই ওই ৩ বছরের শিশুকে তার বাড়ি থেকে অপহরণ করে আনে। শিশুটি সেইসময় ঘুমোচ্ছিল। সরকারি আইনজীবী রীতেশ মেওয়ারা জানান, তার বাবা আর মা কাছেরই একটি মন্দিরে চলা ধর্মীয় অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিল সেই সময়।

ভারতে প্রতিদিন ভয়ানকভাবে নাবালিকা ধর্ষণের ঘটনা বেড়েই চলেছে। এর আগে ২০১৮ সালেরই ফেব্রুয়ারি মাসে কটকের ১৫ বছরের একটি মেয়েকে চারজন মিলে তিনদিন ধরে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছিল। পুলিশ সূত্রে জানানো হয়েছিল যে, শিশু কল্যাণ কমিটির সদস্য কটকের এক স্টেশন থেকে ওই নাবালিকাকে পরে উদ্ধার করে।

ওডি/এসএমএস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড