• বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন

কংগ্রেস-তৃণমূল সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ২

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ১৬:০৯

লোকসভা নির্বাচন
বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের তপন বিধানসভা এলাকায় আহত বিজেপি সমর্থক মন্টু রায়। (ছবি : সংগৃহীত)

ভারতের তৃতীয় দফার লোকসভা নির্বাচনে সংঘর্ষের ঘটনায় একজন নিহত এবং দুইজন গুরতর আহত হয়েছে। মুর্শিদাবাদের ভগবানগোলায় বালিগ্রাম প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বুথের সামনে কংগ্রেস এবং তৃণমূল সমর্থকদের মধ্যে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। দুজনকে গুরুতর আহত অবস্থায় নসিপুর প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্র হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। 'আনন্দবাজার'

রতুয়ার বাহারালে এক বুথে বহিরাগতদের উপস্থিতির খবর পাওয়া গেছে। একজনের ভোট অন্যজন দেওয়ার অভিযোগে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে প্রিসাডিং অফিসারকে।

বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত তপন বিধানসভা এলাকায় বজরা পুকুর স্কুলের ১৪৮ নম্বর বুথ দখলের অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছান বিজেপি সমর্থক মন্টু রায়। তার ওপর ১৫ থেকে ২০ জন দুষ্কৃতিকারী চড়াও হয়, আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে ভয় দেখানো হয় বলে অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে।

অন্যদিকে নদিয়ায় তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্য তারেক মৈত্রের বাড়ির সামনে থেকে এক ব্যাগ দেশি বোমা উদ্ধার করেছে শান্তিপুর থানা পুলিশ। মুর্শিদাবাদের সুতিতে পুলিশের তাড়ায় গরম জল পড়ে আহত হয়েছে দুই শিশু। বুথের বাইরে জটলা দেখে তাড়া করেছিল পুলিশ। তখনই এই ঘটনা ঘটে। বালুরঘাটের গঙ্গারামপুরে মহিলা ভোটারদের মারধর করার অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। নয়াবাজার গোপালপুর এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

ডোমকলের টিকটিকিপাড়ার ২২ নম্বর বুথের সামনে ব্যাপক বোমাবাজি হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে পুলিশের বিশাল বাহিনী। মালদহ উত্তর, চাঁচলেও ব্যাপক বোমাবাজি করা হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছে সিপিএম।

সর্বশেষ নির্বাচন কমিশন সূত্র- বেলা ১টা পর্যন্ত ভোট পড়েছে বালুরঘাট ৫৬.১৬ শতাংশ, মালদহ উত্তরে ৪৯.৭৭ শতাংশ, মালদহ দক্ষিণে ৫০.৪৪ শতাংশ, জঙ্গিপুর ৫২.৮২ শতাংশ এবং মুর্শিদাবাদে ৫০.৩২ শতাংশ।

ওড/কেএম

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড