• শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২০১৯, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

তুরস্কে পিকেকের হামলায় ৪ সেনার মৃত্যু

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২০ এপ্রিল ২০১৯, ১৭:১২
তুরস্কে পিকেকের বিরুদ্ধে অভিযান
তুরস্কে পিকেকের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করছে সেনা সদস্যরা। (ছবিসূত্র : ডিডব্লিউ)

তুরস্কের দক্ষিণ পূর্বাঞ্চলীয় হাক্কারি প্রদেশের ইরাকি সীমান্তে নিষিদ্ধ ঘোষিত কুর্দিস্থান ওয়ার্কার্স পার্টির (পিকেকে) করা হামলায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছেন অন্তত চার সেনা সদস্য। শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) স্থানীয় সময় বিকালে ইরাকি সীমান্তে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে বলে দাবি তুরস্কের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম ইউএস নিউজ জানায়, প্রদেশটির পাহাড়ি কুখুরকা জেলায় অবস্থিত একটি সেনা ঘাঁটিকে লক্ষ্য করে এই হামলাটি চালানো হয়। পরবর্তীতে যদিও অঞ্চলটিতে এক বড় ধরনের সামরিক অভিযান পরিচালনা করেছে তুর্কি সেনাবাহিনী।

এদিকে দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দাবি, তুরস্ক-ইরাক সীমান্তে চলমান অভিযানে সন্ত্রাসীদের সঙ্গে এই সংঘর্ষে ঘটনা স্থলেই দুই সেনা সদস্য নিহত হয়েছেন। যদিও তখন তাদের জীবন রক্ষার্থে সব ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছিল।

এছাড়া এতে আরও দুই সেনা নিহত এবং বাহিনীর কমপক্ষে ছয় সদস্য আহত হয়েছেন বলেও জানানো হয়।

অপরদিকে কুর্দিস্থান ওয়ার্কার্স পার্টির (পিকেকে) পক্ষ থেকে পাঠানো বিবৃতিতে জানানো হয়, এবারের সেই রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে তুরস্কের অন্তত চার সেনাকে হত্যা করা হয়েছে। তাছাড়া এতে তাদের বহু সংখ্যক সদস্য আহত হয়েছে।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘এ দিন সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ব্যাপক বিমান হামলা চালানো হয়। যা এখনো অব্যাহত আছে। এবার তাদের সম্পূর্ণভাবে প্রতিহত না করা পর্যন্ত এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।’

আরও পড়ুন :- যুক্তরাজ্যে দাঙ্গায় নারী সাংবাদিকের মৃত্যু

এর আগে ১৯৮৪ সাল থেকে এখন পর্যন্ত দেশটির দক্ষিণপূর্ব কুর্দিশ এলাকায় স্বায়ত্তশাসনের দাবিতে লড়াই করে আসছে পিকেকের বিদ্রোহী যোদ্ধারা। যে কারণে তুরস্ক, ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তাদেরকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে আখ্যায়িত করেছে।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড