• রবিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন

মোজাম্বিকে ঘূর্ণিঝড়ের আঘাতে হাজার লোকের মৃত্যুশঙ্কা

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৯ মার্চ ২০১৯, ১২:২৯
মোজাম্বিকে ঘূর্ণিঝড়ের
ঘূর্ণিঝড়ে বিধ্বস্ত মোজাম্বিকের প্রত্যন্ত গ্রাম। (ছবিসূত্র : দ্য স্ট্রেটস টাইমস)

পূর্ব আফ্রিকার দক্ষিণাঞ্চলীয় দেশ মোজাম্বিকে প্রায় ১৭৭ কিলোমিটার গতিতে আঘাত হানা ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড়ে ইতোমধ্যে শত শত মানুষ নিহতের খবর পাওয়া গেছে। ভয়াবহ এ ঝড়ের তাণ্ডব সামনে অব্যাহত থাকলে এই সংখ্যা খুব শিগগিরি হাজার পেড়িয়ে যাবে বলে আশংকা করেছেন প্রেসিডেন্ট ফিলিপ নিউসি। 

মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) প্রেসিডেন্ট কার্যালয় থেকে পাঠানো বিবৃতির বরাতে করা প্রতিবেদনে এই হতাহতের সংখ্যা বৃদ্ধির আশঙ্কার কথা নিশ্চিত করেছে ইরানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম পার্স টুডে।

দেশটির প্রেসিডেন্ট ফিলিপ নিউসি বলেছেন, ‘শক্তিশালী ‘সাইক্লোন আইডাই’এর আঘাতে ইতোমধ্যে আমাদের একটি অঞ্চল পুরোপুরি বিধ্বস্ত হয়ে গেছে। এই তাণ্ডব সামনে অব্যাহত থাকলে এর সংখ্যা খুব শিগগিরি এক হাজার ছাড়িয়ে যেতে পারে।’

এর আগে গত বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) মোজাম্বিকের বন্দরনগরী বেইরা’তে ঘূর্ণিঝড় আইডাই আঘাত হানলেও স্থানটি দুর্গম হওয়ার কারণে উদ্ধারকারীরা প্রায় তিনদিন পর রবিবার সেখানে পৌঁছাতে সক্ষম হয়। এই দলের সদস্যরা যখন বন্দরটিতে পৌঁছান তখন সেখানে তীব্র বাতাস থাকার কারণে তাদের উদ্ধার কাজ পরিচালনা করতে কিছুটা বিলম্ব হয়।

এদিকে উদ্ধারকারী দলের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে কংক্রিটের তৈরি বহু ভবনের ছাদ উড়ে গেছে। আর সেই স্থানে বসবাসরত লোকজনসহ কোনো কিছুরই অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। আমাদের কর্মীরা এখন পর্যন্ত ৮৪ জনের মরদেহ খুঁজে পেয়েছেন তবে নিখোঁজ রয়েছেন আরও শত শত মানুষ।’

অঞ্চল পরিদর্শন শেষে প্রেসিডেন্ট নিউসি বলেন, ‘এই ঘূর্ণিঝড়টির আঘাত ছিল বেশ ভয়াবহ। আমি বন্যার পানিতে বেশ কিছু লাশ ভেসে যেতে দেখেছি। যা আমাদের জন্য ভীষণ হতাশাজনক। তাছাড়া আমি আফ্রিকার দক্ষিণাঞ্চলের অন্যান্য দেশ মিলিয়ে এই ঘূর্ণিঝড়ে এখন পর্যন্ত অন্তত তিন শতাধিক লোকের মৃত্যুর খবর পেয়েছি। আমি সকল নিহতের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি।’

অপরদিকে ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব রেড ক্রস এন্ড রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির (আইএফআরসি) পক্ষ থেকে এই ঘূর্ণিঝড়কে ‘ভয়াবহ ও ভয়ঙ্কর’ বলে বর্ণনা করা হয়েছে। একইসঙ্গে এই হতাহতদের উদ্ধারে অঞ্চলগুলোতে আরও দক্ষ কর্মী পাঠানোর আহ্বান জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন :- দানের টাকাটা মসজিদে হতাহতদের দিতে চাই : 'ডিম বালক'

আফ্রিকার আরও একটি দেশ জিম্বাবুয়েতে এখন পর্যন্ত ৯৮ জনের মৃতদেহ উদ্ধারের খবর পাওয়া গেছে। এতে এখনো ২১৭ ব্যক্তি নিখোঁজ রয়েছেন। তাছাড়া প্রতিবেশী আরেক দেশ মালাবিতে এই ঘূর্ণিঝড়ের আগে প্রবল বর্ষণ থেকে সৃষ্ট বন্যায় অন্তত ১২২ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড