• শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০১৯, ৮ চৈত্র ১৪২৫  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন

রোহিঙ্গা ইস্যুতে আরও একটি সম্মাননা হারালেন সু চি

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৪:৫৪

মিয়ানমার নেত্রী সু চি
শান্তিতে নোবেল জয়ী মিয়ানমার নেত্রী অং সান সু চি। (ছবিসূত্র : আল-জাজিরা)

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে বসবাসরত সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিম জনগোষ্ঠীর ওপর নির্মম হত্যাযজ্ঞ এবং ব্যাপক নিধন অভিযান পরিচালনার বিষয়ে মুখ বন্ধ রাখায় একের পর এক আন্তর্জাতিক পুরস্কার ও সম্মাননা হারাচ্ছেন দেশটির শান্তিতে নোবেল জয়ী নেত্রী অং সান সু চি। 

মূলত এর প্রেক্ষিতে এবার আয়ারল্যান্ডের গালওয়ে শহর সু চিকে দেওয়া সম্মাননা ফিরিয়ে নিতে যাচ্ছে। শহরটির কর্তৃপক্ষের নেওয়া এ সিদ্ধান্তকে ইতোমধ্যে স্বাগত জানিয়েছে রোহিঙ্গাদের অধিকার নিয়ে কাজ করা আয়ারল্যান্ড ভিত্তিক সংগঠন ‘রোহিঙ্গা অ্যাকশন আয়ারল্যান্ড’। 

শুক্রবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সংগঠনটি পাঠানো বিবৃতির বরাতে করা প্রতিবেদনে এই সম্মাননা প্রত্যাহারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে লন্ডন ভিত্তিক বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

রোহিঙ্গা অ্যাকশন আয়ারল্যান্ডের পাঠানো বিবৃতিতে বলা হয়, ‘গালওয়ে শহর কর্তৃপক্ষের এমন সিদ্ধান্ত হচ্ছে রাখাইনে হওয়া গুরুতর অপরাধের স্পষ্ট নিন্দা। আর যার মাধ্যমে এটা বর্তমানে আরও পরিষ্কার হয়েছে যে, সু চির নীরবতা নিন্দিত হওয়ার যোগ্য।’

এর আগে রাখাইনে বসবাসরত রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিরুদ্ধে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর করা মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনায় দেশটির সেনা সদস্যদের পক্ষে অবস্থান গ্রহণ এবং এ বিষয়ে কোনো নিরপেক্ষ মন্তব্য না করায় ইতোমধ্যে বিভিন্ন সময় বিশ্বব্যাপী নিন্দিত হয়েছেন শান্তিতে নোবেল জয়ী এ নেত্রী। 

মূলত এ কারণে কানাডাসহ বিশ্বের বেশ কিছু দেশ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং সংগঠন তাকে দেওয়া নানা পুরস্কার ও সম্মাননা প্রত্যাহার করে নিয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের সেই সেনা অভিযানের পর প্রায় সাড়ে সাত লাখের বেশি রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী দেশ ছেড়ে পালিয়ে নিরাপত্তার জন্য বাংলাদেশে এসে আশ্রয় নেয়। সেনা সদস্যদের এমন নৃশংস ঘটনার বিরুদ্ধে নিন্দা জানানোর জন্য তখন আন্তর্জাতিক চাপের মুখে পড়েন মিয়ানমার নেত্রী সু চি। যদিও সে সময় তিনি তা করতে পুরোপুরি অস্বীকৃতি জানান।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড