• শনিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৪ ফাল্গুন ১৪২৫  |   ২৩ °সে
  • বেটা ভার্সন

লাদাখে তীব্র তুষারপাতে নিহত ৫, নিখোঁজ ১০

রেকর্ড সর্বনিম্ন তাপমাত্রা মাইনাস ২০ দশমিক ২

  অধিকার ডেস্ক    ১৮ জানুয়ারি ২০১৯, ২০:২৪

ছবি : সংগৃহীত

ভারতের পর্যটন অঞ্চল জম্মু ও কাশ্মির রাজ্যের লাদাখের খার্দুং লং এ হিমবাহ ধসে শুক্রবার (১৮ জানুয়ারি) দুপুরে কমপক্ষে পাঁচজন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন বলে জানান কর্তৃপক্ষ। এ পর্যন্ত পাঁচটি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে এবং আরও ১০ জন নিখোঁজ হবার কথা বলেন তারা। ঘটনাটি ঘটে যখন বেসামরিক লোকজন এলাকায় তুষার খনন করছিল। সেনাবাহিনী, স্থানীয় পুলিশ এবং প্রাদেশিক দুর্যোগ প্রতিরোধ বাহিনী উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করছে। 'দা ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস'

লেহ লাদাখের উপ-কমিশনার অভনি লাভাসা বলেন, 'বেসামরিক মানুষ বরফের নিচে চাপা পড়ার পর উদ্ধার অভিযান শুরু হয়। বিশ্বাস করা হয় যে তারা লেহের খারদুং লাতে বরফ খনন করছি। খনন কাজ শুরু হলে একটি হিমবাহ ধসে পড়ে যাতে বেসামরিকেরা চাপা পড়ে। আমরা ভয় পাচ্ছি যে আরও বেসামরিকরা বরফের ফাঁদে আটকা পড়েছে'।

ভারতের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার বরাত দিয়ে 'পিটিআই' জানায়, বৃহস্পতিবার (১৭ জানুয়ারি) কাশ্মিরে তুষারপাতের মুখে পড়ার একদিন পরে, উপত্যকায় বেশিরভাগ স্থানে ন্যূনতম তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেয়েছে এবং বাসিন্দাদের জন্য প্রয়োজনীয় ত্রাণ সরবরাহ করা হচ্ছে। 

তিনি বলেন, শুক্রবারের পর আরও কয়েকদিনের জন্য আরেকবার তুষারপাতের আশংকা করা করা হচ্ছে, ২২ জানুয়ারি উচ্চতর তীব্রতার সাথে ব্যাপক বৃষ্টিপাত এবং তুষারপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। শ্রীনগরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা আগের রাতে মাইনাস ২ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস থেকে বেড়ে সর্বনিম্ন ১ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস হয়। উত্তর কাশ্মিরে গুল্মার্গ স্কি রিসোর্ট সর্বনিম্ন মাইনাস ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে।

কর্মকর্তারা আরও জানান, লাদাখের সীমান্ত অঞ্চল লেহ লাদাখে রেকর্ড সর্বনিম্ন তাপমাত্রা মাইনাস ১২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, তবে পার্শ্ববর্তী কারগিলের তাপমাত্রা মাইনাস ২০ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। কাশ্মির বর্তমানে 'চিলাই-কালান' এর আড়ালে রয়েছে - শীতকালীন ৪০ দিন সবচেয়ে কঠিন সময় যখন তুষারপাতের সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি এবং সর্বাধিক। এসময় তাপমাত্রা যথেষ্ট পরিমাণে কম থাকে। 'চিলাই-কালান' ৩১ জানুয়ারিতে শেষ হয়, তবুও শীতকালীন ঢেউ কাশ্মিরে অব্যহতথাকে।  ৪০ দিনের সময়সীমার মধ্যে ২০ দিনের দিনব্যাপী 'চিলাই-খুরদ' (ছোট ঠান্ডা) এবং ১০ দিনব্যাপী দীর্ঘ 'চিলাই-বাছা' (শিশুর ঠান্ডা) অনুস্মরণ করে।

ছবি : সংগৃহীত

শুক্রবার সকালে লাদাখের খারদুং লা এলাকার ১৭ হাজার ৫০০ ফুট উঁচু একটি পাহাড়ি রাস্তায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। লাদাখের এই পাহাড়ি সড়কটি বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু সড়ক যেখানে গণপরিবহন ও মোটরযান চলাচল করে। নিখোঁজদের সন্ধানে উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রয়েছে। দুর্ঘটনার পর সেখানে জেলা প্রশাসন, পুলিশ ও রাজ্য দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা বাহিনীর সদস্যরা উদ্ধারকরর্মীরা অভিযান চালাচ্ছে। যে স্থানে দুর্ঘটনাটি ঘটেছে তা লেহ শহর থেকে ৪০ কিলোমটিার দূরে অবস্থিত।

একটি এসইউভি গাড়িটির ওপর বিশাল বড় একটি তুষার খন্ড ভেঙ্গে পড়লে এ দুর্ঘটনা ঘটে। লেহ শহরের উত্তরে অবস্থিত খারদুং লা নামের এই সড়ক দিয়ে লাদাখের জনপ্রিয় উপত্যকা শিয়ক ও নুবরায় যেতে হয়। গত জানুয়ারিতে ওই অঞ্চলে সুইডেনের এক স্কিচালক এরকম একটি দুর্ঘটনার কবলে পড়ে প্রাণ হারান। অবশ্য তার এক সহকর্মীকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছিল জম্মু ও কাশ্মির রাজ্যের উদ্ধারকর্মীরা। পুলিশের ভাষ্যমতে, ওই দুই সুইডিশ নাগরিক গুলমার্গের তুষারখন্ডের মাঝখানে আটকা পড়েছিল।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: info@odhikar.news

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড