• রবিবার, ২৫ আগস্ট ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬  |   ৩৩ °সে
  • বেটা ভার্সন

অস্ত্র কিনতে এফবিআই'র ফাঁদে

হোয়াইট হাউজসহ মার্কিন স্থাপনায় হামলার পরিকল্পনাকারী আটক

'সে যতটা বেশি সম্ভব ক্ষতি সাধন করে শহীদ হতে চায়'

হামলার পরিকল্পনাকারী হাশের জালাল তাহেব। ছবি : সংগৃহীত

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের বাসভবন ও সরকারি কার্যালয় হোয়াইট হাউজে ট্যাংক বিধ্বংসী রকেট হামলা চালানোর পরিকল্পনার দায়ে গ্রেফতার করা হয়েছে একজনকে। অভিযুক্ত জর্জিয়ার ২১ বছর বয়সী বাসিন্দা হাশের জালাল তাহেব। বুধবার (১৬ জানুয়ারি) তাকে গ্রেফতার করে এ বিষয়ে মার্কিন তদন্তকারীরা তথ্য প্রকাশ করেছেন। হোয়াইট হাউজ ছাড়াও স্ট্যাচু অব লিবার্টি, ওয়াশিংটনের ভাস্কর্য,আব্রাহাম লিংকনের ভাস্কর্য এবং ইহুদিদের প্রার্থনা গৃহ সিনাগগেও হামলা চালানোর পরিকল্পনা ছিল তাহেবের। 'রয়টার্স'

ট্যাংক বিধ্বংসী রকেট দিয়ে প্রথমে হামলা চালিয়ে হোয়াইট হাউজের দেয়াল ধ্বংস করতে চেয়েছিল, তারপর সে স্থান দিয়ে দলবলসহ ভেতরে ঢুকে বন্দুক ও গ্রেনেড হামলা চালানোর পরিকল্পনাও ছিল। এই ষড়যন্ত্রের অভিযোগে হাশের জালাল তাহেবের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে এফবিআই বুধবার (১৬ জানুয়ারি) তাকে আটক করে আটলান্টার এক আদালতে উপস্থাপন করা হয়।

হাশের জালালের বিরুদ্ধে অভিযোগের তদন্ত করছে মার্কিন 'ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন' (এফবিআই)। নর্দার্ন ডিসট্রিক্ট অব জর্জিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেল বিং পাক বলেন, 'তার (হাশের) উদ্দেশ্য ছিল বিস্ফোরক, আইইডি ও ট্যাংক বিধ্বংসী রকেট ব্যবহার করে হোয়াইট হাউজে হামলা চালানো এবং সুযোগ পেলে ওয়াশিংটনের অন্যান্য লক্ষ্যবস্তুগুলোরও ধ্বংস সাধন করা।'

নর্দার্ন ডিসট্রিক্ট অব জর্জিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেল বিং পাক (বামে)। ছবি : সংগৃহীত

হামলার পরিকল্পনাকারী হাশের জালালের বিরুদ্ধে দায়ের করা অভিযোগপত্রে বলা হয়েছে, ২০১৮ সালের মার্চ মাসেই তার 'চরমপন্থী' হয়ে ওঠার বিষয়ে পুলিশকে জানানো হয়েছিল। ২০১৮ সালের ২৫ আগস্ট তাহেব তার গাড়িটি বিক্রি করে দেয়ার চেষ্টা করলে একজন এফবিআই কর্মকর্তা ক্রেতার ছদ্মবেশে তার সঙ্গে পরিচিত হন। ক্রেতার ছদ্মবেশে থাকা ও এফবিআই কর্মকর্তাকে তাহেব বলেছিল, সে হোয়াইট হাউজ ও স্ট্যাচু অব লিবার্টিতে হামলা চালাতে চায়।

তাহেরের মন্তব্য ছিল, 'জিহাদ ইসলামে সবচেয়ে সোয়াবের কাজ এবং এটি ইসলামের সর্বোচ্চ স্তর।' সে যতটা বেশি সম্ভব ক্ষতি সাধন করে 'শহীদ' হতে চায়। হোয়াইট হাউজে আঘাত হানার জন্য তার অস্ত্র ও বিস্ফোরক দরকার। ওই মাসের শেষের দিকে তাহেব আরও জানায়, সে ওয়াশিংটনের ভাস্কর্য, লিংকনের ভাস্কর্য এবং সিনাগগেও হামলা চালাতে ইচ্ছুক। 

তার পরিকল্পনা ছিল, সেমি অটোমেটিক রাইফেল ও 'এটি ফোর' ট্যাংক বিধ্বংসী রকেট ও গ্রেনেড ব্যবহার করার। জানুয়ারির ১৭ তারিখে দলবলসহ তার হামলাটি চালানোর দিনক্ষণ নির্ধারিত হয়েছিল। গত ১৬ জানুয়ারি সত্যি সত্যি অস্ত্র ও গোলাবারুদ সংগ্রহ করতে ছদ্মবেশধারী এফবিআই কর্মকর্তার কাছে উপস্থিত হলে তাহেরকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানায় এফবিআই।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড