• শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন

সিএনএন বনাম ট্রাম্প যুদ্ধ (ভিডিও)

  অধিকার ডেস্ক    ০৯ নভেম্বর ২০১৮, ১৮:৫১

সিএনএন বনাম ট্রাম্প
সিএনএন সাংবাদিক জিম অ্যাকোস্টা ট্রাম্পকে চ্যালেঞ্জিং প্রশ্ন করার মাঝে হোয়াইট হাউজের তরুণ ইন্টার্ন তার হাত থেকে জোরপূর্বক মাইক্রোফোন কেড়ে নিতে গেলে এই হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। ছবি : সিএনএন

সদ্য সমাপ্ত মার্কিন মধ্যবর্তী নির্বাচন পরবর্তী হোয়াইট হাউজ আয়োজিত বুধবারের (৮ নভেম্বর) সংবাদ সম্মেলনে এক উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়ের পরেই সিএনএন এর হোয়াইট হাউজ প্রতিবেদকের প্রবেশাধিকারে নিষেধাজ্ঞা আসে। সংবাদ সম্মেলনে সিএনএন এর প্রধান হোয়াইট হাউজ প্রতিবেদক জিম অ্যাকোস্টা ট্রাম্পকে লাতিন আমেরিকা থেকে আমেরিকার দক্ষিণাঞ্চলীয় ক্যারাভান সীমান্তে অভিবাসীদের ব্যাপারে প্রশ্ন করলেই তারা বিবাদে জড়িয়ে পড়েন। ‘এপি’

জিম পরের প্রশ্নে যাওয়ার আগেই ট্রাম্প বলে উঠলেন, ‘যথেষ্ট হয়েছে!’ এরপরেই হোয়াইট হাউজের এক ইন্টার্ন তরুণী জিমের হাত থেকে মাইক্রোফোন ছিনিয়ে নেয়ার ব্যর্থ চেষ্টা করেন। এরপরেই হোয়াইট হাউজের প্রেস সচিব সারা স্যান্ডার্স জিমের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে এক বিবৃতিতে জানায় যে, ‘হোয়াইট হাউজের তরুণ এক নারী ইন্টার্নের শরীরে হাত দেয়া, যখন সে তার দায়িত্ব পালন করছিল তা “একেবারেই অগ্রহণযোগ্য”।’

আরও পড়ুন : ট্রাম্প বনাম সিএনএন : ওয়াটারগেট কেলেঙ্কারি!

অ্যাকোস্টা এবং ইন্টার্নের মধ্যে যোগাযোগটি সংক্ষিপ্ত ছিল এবং ইন্টার্ন মাইক্রোফোন টান দিলে অ্যাকোস্টা তার হাত ঝাঁকি দিল এবং সেটি ধরে রাখার চেষ্টা করেছিল এবং জিম তাকে বলেছিল, ‘আমাকে ক্ষমা করবেন ম্যাডাম’। জিম এক টুইটে স্যান্ডার্সের অভিযোগ করে দেয়া বিবৃতিকে ‘মিথ্যা’ বলেন।

‘সিএনএন’ এর এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, হোয়াইট হাউস বুধবার তার (জিম) চ্যালেঞ্জিং প্রশ্নের প্রতিশোধ নেয়ার জন্য জিমের প্রেস পাস প্রত্যাহার করে নিয়েছে এবং নেটওয়ার্কটি তাদের সাংবাদিকের কর্মকাণ্ড সম্পর্কে মিথ্যা অভিযোগের দায়ে স্যান্ডার্সকে অভিযুক্ত করেছে। 

জিমের সঙ্গে ইন্টার্নের হাতাহাতির ভিডিও :

‘সিএনএন’ বিবৃতিতে জানায়, আমরা জিমের সঙ্গে আছি, (স্যান্ডার্স) প্রতারণামূলক অভিযোগ প্রদান করেছে, যেমন ঘটনা উদ্ধৃত করেছে যা কখনো ঘটেইনি। এই হতবাক করা সিদ্ধান্তটি আমাদের গণতন্ত্রের জন্য একটি হুমকি এবং দেশটি এর চেয়ে আরও ভালো কিছুর যোগ্য।’

হোয়াইট হাউজের দৈনিক সংবাদ সংগ্রহের জন্যে সাংবাদিকদের একটি প্রেস পাস দেয়া হয় যা পশ্চিম উইং এ প্রবেশের জন্য প্রয়োজন পড়ে। হোয়াইট হাউসের কর্মীরা সিদ্ধান্ত নেয় যে সাংবাদিক প্রবেশের যোগ্য কি না, যদিও সিক্রেট সার্ভিস তাদের অ্যাপ্লিকেশন অনুমোদিত কি না তা নির্ধারণ করে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড