• শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ভারতীয় ভূখণ্ড দখল করে চীনের রাস্তা নির্মাণ!

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০৪ মে ২০২৪, ১৫:২৯
রাস্তা নির্মাণ

প্যাংগং হ্রদের উত্তর এবং দক্ষিণ তীর জুড়ে চিনা ফৌজের সেতু নির্মাণ, আকসাই চিন এলাকায় চীনা সৈন্যদের স্থায়ী বাঙ্কারের পর শাকসগাম উপত্যকায় রাস্তা ও অন্যান্য পরিকাঠামো নির্মাণে অভিযোগ উঠেছে বেজিংয়ের বিরুদ্ধে। প্রতিবাদও জানিয়েছে ভারত।

লাদাখে সিয়াচেন হিমবাহের পূর্বপ্রান্তের শাকসগাম উপত্যকায় চিনা পিপলস লিবারেশন আর্মি (পিএলএ)-র রাস্তা এবং সুড়ঙ্গ নির্মাণের খবর প্রকাশ্যে আসার পরই নানা প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। এই পরিস্থিতিতে শুক্রবার ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রণধীর জয়সওয়াল ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছেন, “বাস্তবে তথ্য পাল্টানোর চেষ্টা করছে চীন। আমরা এই বেআইনি পদক্ষেপের বিরুদ্ধে চীনের কাছে প্রতিবাদ জানিয়েছি। শাকসগাম উপত্যকা ভারতের ভূখণ্ডের অংশ।”

উল্লেখ্য, কারাকোরাম ওয়াটারশেডের ৫,২০০ বর্গ কিলোমিটার উত্তরে একটি এলাকা শাকসগাম উপত্যকা-সহ শাকসগাম ট্র্যাক্ট নামে পরিচিত। ১৯৪৭ সাল থেকে এটি পাকিস্তানের দখলে ছিল। পরবর্তীতে পাক সরকার এটি চীনকে হস্তান্তর করে দেয়। কিন্তু শাকসগাম উপত্যকাকে ভারত পূর্বতন জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যের অংশ বলে দাবি করে।

সাম্প্রতিক উপগ্রহ চিত্রগুলোতে যে ছবি যাচ্ছে, চিন এমন একটি রাস্তা তৈরি করেছে, যা শাকসগাম উপত্যকার নীচের দিকে প্রবেশ করেছে। এবং সিয়াচেন হিমবাহ থেকে ৫০ কিলোমিটারের মধ্যে ঢুকেছে যা ভারতীয় ভূখণ্ডের অংশ। জানা গিয়েছে, ২০২৩ সালের গ্রীষ্মে ওই রাস্তাটির কাজ শুরু হয়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড