• বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

রাফা হামলার বিরুদ্ধে মামলা খারিজ করেছে আইসিজে

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৪:২৩
আইসিজে

ইজরায়েলের নির্দেশে উত্তর ছেড়ে দক্ষিণ গাজার রাফায় চলে এসেছেন কমপক্ষে ১৪ লক্ষ মানুষ, গাজার জনসংখ্যার অর্ধেকেরও বেশি। কোণঠাসা অবস্থায় তাদের উপর ক্ষেপণাস্ত্র হামলা, গোলাবর্ষণ চালিয়ে যাচ্ছে ইজরায়েলি বাহিনী। রাফার এই অবস্থা আদালতের সামনে তুলে ধরেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। কিন্তু রাফার সুরক্ষা সংক্রান্ত আবেদনটি খারিজ করেছে জাতিসংঘের শীর্ষস্থানীয় আদালত। জানিয়েছে, রাফা-সহ গোটা গাজা স্ট্রিপ নিয়ে আগেই সতর্ক করা হয়েছে। এ দিন ফের তারা বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর সরকারকে সাবধান করেছে।

গত ২৬ জানুয়ারিই গাজা স্ট্রিপে মানবাধিকার লঙ্ঘন সংক্রান্ত একটি রায় দিয়েছিল আইসিজে। এ দিন তারা ফের একটি বিবৃতি জারি করে জানিয়েছে, ‘জিনোসাইড কনভেনশন’ মেনে চলতে বাধ্য ইজরায়েল। রাফার পরিস্থিতি মাথায় রেখে দ্রুত ও কার্যকরী পদক্ষেপ করতে হবে ইজরায়েলকে।

আদালত জানিয়েছে, রাফা-সহ গোটা গাজা স্ট্রিপের জন্যই নির্দেশিকা জারি রয়েছে। আলাদা করে শুধু রাফার জন্য কোনও রায় ঘোষণার প্রয়োজন নেই। রাষ্ট্রপুঞ্জের মহাসচিব আন্তোনিয়ো গুতেরেসের বয়ান উল্লেখ করে আদালত জানিয়েছে, ‘‘আঞ্চলিক দ্বন্দ্বে গাজা স্ট্রিপ এমনিতেই দুঃস্বপ্নের মতো হয়ে রয়েছে। সাম্প্রতিক কালে সেটা চক্রবৃদ্ধিহারে বেড়েছে।’’

ইজ়রায়েলের বক্তব্য, এখন গাজা স্ট্রিপে রাফা-ই হল হামাসের সর্বশেষ শক্তিশালী ঘাঁটি। হামাসকে নিশ্চিহ্ন না-করা ইস্তক তারা হামলা বন্ধ করবে না। অথচ রাফার মতো একটা ছোট্ট অঞ্চলে লক্ষ লক্ষ মানুষ প্লাস্টিক-ত্রিপলের তাঁবু খাটিয়ে কোনও মতে দিন কাটাচ্ছে। ইজরায়েলের দাবি, তারা সাধারণ মানুষের ক্ষতি করছে না। বড়সড় হামলার আগে সকলকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে। যদিও কোথায় সরানো হবে, তার উত্তর নেই। স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাগুলির দাবি, গাজা স্ট্রিপে কোনও জায়গা নিরাপদ নেই।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড