• বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০  |   ১৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

গাজায় যুদ্ধবিরতি হচ্ছে কবে?

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৪ নভেম্বর ২০২৩, ১৮:২৭
হামাস

সাময়িকভাবে যুদ্ধবিরতি ও বন্দি বিনিময়ে কাতারের মধ্যস্থতায় গতকাল চুক্তিবদ্ধ হয় হামাস ও ইজরায়েল। হামাস জানিয়েছিল, আজ সকাল ১০টা থেকে চার দিনের জন্য গাজ়ায় সাময়িক সংঘর্ষ-বিরতি শুরু হবে। আজই প্রথম দফার বন্দি-বিনিময়ও হবে বলে শোনা যায়। কিন্তু শেষমেশ তা হল না।

ইজরায়েলের একটি সূত্রের দাবি, হামাস অতিরিক্ত আরও অনেক দাবি দাওয়া জানাচ্ছে। আবার অন্য একটি পক্ষের দাবি, দোহায় পৌঁছেছেন ইজরায়েলি গুপ্তচর সংস্থা মোসাদের প্রধান ডেভিড বারনিয়া। কাতারের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করবেন তিনি। শোনা যাচ্ছে, মোসাদ-প্রধানের ইঙ্গিতেই থমকে রয়েছে সংঘর্ষ-বিরতি।

তবে কাতার জানিয়েছিল, শুক্রবার সকাল ৭টা থেকে সংঘর্ষ-বিরতি শুরু হবে। বিকেল ৪টে নাগাদ বন্দিদের মুক্তি দেওয়া হবে। কাল ১৩ জনকে ছাড়বে হামাস।

কিন্তু গাজায় আজও ইজরায়েলি হামলা অব্যাহত। ইজরায়েলি প্রতিরক্ষা বাহিনী (আইডিএফ)-র দাবি, গত এক দিনে তারা হামাসের ৩০০-রও বেশি ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছে। কোনওটি জঙ্গি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, কোনওটি মাটির নীচে সুড়ঙ্গ, অস্ত্র ভান্ডার কিংবা অস্ত্র তৈরির কারখানা। আকাশপথে হামলা ও স্থল-অভিযান, দু’টিই চালিয়ে যাচ্ছে ইজরায়েল।

আইডিএফ-কর্তা পিটার লার্নার জানিয়েছেন, চুক্তি চূড়ান্ত হলে, সরকারের পক্ষ থেকে তাদের কাছে নির্দেশ হলে, তখনই যুদ্ধ থামানো হবে। তিনি বলেন, ‘‘হামাস যেখানেই লুকিয়ে থাকুক, আমরা হামলা চালিয়ে যাব। ...এটা লিখে নিতে পারেন। ওরা একটা নৃশংস সংগঠন, ক্ষমার অযোগ্য।’’

একটি ব্রিটিশ সংবাদ সংস্থা জানিয়েছিল, শুক্রবারের মধ্যে হয়তো চুক্তিপত্রের খসড়া চূড়ান্ত হয়ে যাবে। কাতারের ঘোষণায় আশা আরও বেড়েছে।

প্যালেস্টাইনিদের অবশ্য মিশ্র প্রতিক্রিয়া। যুদ্ধ থামতে পারে শুনেও খুশি হতে পারছেন না গাজাবাসী। তাদের বক্তব্য, ইজরায়েল প্যালেস্টাইনি বন্দিদের মুক্তি দেবে বলেছে ঠিক-ই, কিন্তু প্রিয়জনকে সামনে না দেখলে বিশ্বাস নেই। তাছাড়া, এখন মুক্তি দিলেও পরে আবার গ্রেফতার করতে পারে ইজরায়েল। এ ঘটনা তারা আগেও বহুবার দেখেছেন। একটি বিষয়ে তারা নিশ্চিত, দু’পক্ষের মধ্যে যে চুক্তিই হোক না কেন, সেটা কোনও মতেই মসৃণভাবে কার্যকর হবে না।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড