• মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১  |   ৩৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা চ্যাটজিপিটি নিষিদ্ধের পথে ইতালি

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০১ এপ্রিল ২০২৩, ১৫:১১
কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা চ্যাটজিপিটি নিষিদ্ধের পথে ইতালি
চ্যাটজিপিটি নিষিদ্ধ (ছবি : ইউরো নিউজ)

ব্যক্তিগত গোপনীয়তার সুরক্ষা নিশ্চিত করতে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ও চ্যাটবট চ্যাটজিপিটিকে নিষিদ্ধ করার উদ্যোগ নিয়েছে ইউরোপের দেশ ইতালির সরকার। দেশটির অন্যতম সরকারি নিয়ন্ত্রণ সংস্থা ডেটা সুরক্ষা কর্তৃপক্ষের বরাতে করা প্রতিবেদনে তথ্যটি নিশ্চিত করেছে ব্রিটিশ মিডিয়া বিবিসি নিউজ।

ইতালির ডেটা সুরক্ষা সম্পর্কিত পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা গত ২০ মার্চ চ্যাটজিপিটি সম্পর্কে একটি প্রতিবেদন জমা দিয়েছিল কর্তৃপক্ষ বরাবর। সেই প্রতিবেদন আমলে নিয়েই এ সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে কর্তৃপক্ষ।

পাশাপাশি দেশটিতে জনগণের ব্যক্তিগত ও রাষ্ট্রীয় তথ্যের সুরক্ষা নিশ্চিতে যে নীতিমালা প্রচলিত আছে, চ্যাটজিপিটি ইতোমধ্যে তা লঙ্ঘন করেছে কি-না; কর্তৃপক্ষ সে ব্যাপারটিও খতিয়ে দেখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

পর্যবেক্ষণ সংস্থার প্রতিবেদনে বলা হয়, কার্যক্রম ও অ্যালগরিদম সচল রাখতে ব্যাপকভাবে মানুষের ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ ও সংরক্ষণ করে চ্যাটজিটিটি, যার কোনো আইনগত ভিত্তি নেই।

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার এই চ্যাটবট শিশুদের প্রতি ‘সংবেদনশীল’ নয় উল্লেখ করে সেখানে আরও বলা হয়, যেহেতু এই চ্যাটবট ব্যবহারকারীদের বয়স যাচাই করতে সক্ষম নয়, তাই অনেক সময় শিশু ও অপ্রাপ্তবয়স্কদের বিভিন্ন প্রশ্নের এমন উত্তর এটি প্রদান করে- যা তাদের বয়স ও মানসিক পরিপক্বতার হিসেবে রীতিমতো অস্বস্তিকর।

চ্যাটজিপিটি এটি মূলত একটি বিশেষ ধরনের রোবট। এই ধরনের রোবট চ্যাটবট নামেও পরিচিত। মানুষের কণ্ঠস্বর বা ডিজিটাল মাধ্যমে এটি বিভিন্ন প্রশ্ন গ্রহণ করে এবং মানুষের মতোই এটি সেসব প্রশ্নের উত্তর প্রদান করে। এর পাশাপাশি বিভিন্ন বিখ্যাত ব্যক্তির লেখার ধরন নকল করা এবং ইন্টারনেট ব্যবহারেও দক্ষ চ্যাটজিপিটি।

২০২২ সালের নভেম্বরে ওপেন এআই নামে একটি মার্কিন স্টার্টআপ কোম্পানি চ্যাটজিপিটিকে প্রথম বাজারে আনে। তবে এই চ্যাটবট মূলত প্রস্তুত করেছে বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ সফটওয়্যার প্রস্তুতকারী কোম্পানি মাইক্রোসফট।

বার্ড নামের একটি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার চ্যাটবট বর্তমানে চ্যাটজিপিটির সবচেয়ে বড় প্রতিদ্বন্দ্বী। বাজারে এটি এখন সহজলভ্যও। তবে এটি কঠোরভাবে প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য; অর্থাৎ বার্ড তৈরিই করা হয়েছে এমনভাবে- যাতে আঠারো বা তারচেয়ে অধিক বয়সী লোকজন এটির ব্যবহার করতে পারেন।

বিবিসি নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়, চ্যাটজিপিটি সংক্রান্ত বিভিন্ন অভিযোগ সম্পর্কে জবাব চেয়ে এটির প্রস্তুতকারী সংস্থা ওপেন আই বরাবর চিঠি দিয়েছে ইতালির সরকার। আগামী ২০ দিনের মধ্যে যদি সেই চিঠির সন্তোষজনক জবাব না দেয় ওপেন আই, সেক্ষেত্রে ইতালির সরকারকে দুই কোটি ১৭ লাখ ডলার জরিমানা দিতে হবে কোম্পানিটিকে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড