• সোমবার, ৩০ জানুয়ারি ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ভারতের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার যোগ্যতা আছে মমতার : অমর্ত্য সেন

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৫ জানুয়ারি ২০২৩, ১২:৪১
ভারতের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার যোগ্যতা আছে মমতার : অমর্ত্য সেন
ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন (ফাইল ছবি)

২০২৪ সালে ভারতের সংসদের নিম্নকক্ষ লোকসভার নির্বাচন ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) জন্য একক ঘোড় দৌড় হবে বলে মনে করলে সেটা ‘ভুল হবে।’ এমনটাই মনে করেন নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ ও দার্শনিক অমর্ত্য সেন। তিনি বলেছেন, দেশটির আগামী নির্বাচনে কয়েকটি আঞ্চলিক দলের ভূমিকা ‘স্পষ্টভাবে গুরুত্বপূর্ণ’ হয়ে উঠবে।

তার কথা অনুযায়ী- ২৪-এর লোকসভায় আঞ্চলিক দলগুলো ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। এ রাজ্যের (পশ্চিমবঙ্গ) মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার মতো যোগ্যতা রাখেন।

বিশ্লেষকদের মতে, এমনিতে অমর্ত্য সেন বিজেপি এবং নরেন্দ্র মোদীর ঘোষিত বিরোধী। তবে এভাবে খোলাখুলি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হয়ে খোলাখুলি বার্তা দিতে তাকে কখনো শোনা যায়নি। বরাবরই তিনি বামমনস্ক।

কিন্তু ২০২৪ সালের লোকসভার আগে অমর্ত্য সেন এক প্রকার স্পষ্টই বলে দিলেন, প্রধানমন্ত্রী পদে মমতার যোগ্যতা নিয়ে কোনো প্রশ্ন নেই। তিনি ভারতীয় বার্তা সংস্থা পিটিআইকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেছেন, মমতার প্রধানমন্ত্রী হওয়ার যোগ্যতা নেই, এমনটা একেবারেই নয়। আমার মনে হয় মমতা ভীষণভাবেই যোগ্য।

যদিও পরক্ষণেই নোবেলজয়ী এই অর্থনীতিবিদ বলে দেন, একই সঙ্গে এটা এখনো প্রতিষ্ঠিত হয়নি যে, বিজেপির বিরুদ্ধে যে জনরোষ তৈরি হয়েছে, মমতা সেটাকে কাজে লাগিয়ে সবাইকে একত্রিত করে দেশে বিভেদকামী শক্তিকে রুখে দিতে পারেন।

অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন সোজা বলে দেন, বিজেপি ২০২৪ লোকসভা ভোট জিতে গিয়েছে ধরে নেওয়াটা মস্ত বড় ভুল হবে।

তার মতে, একাধিক আঞ্চলিক দল ভীষণভাবে গুরুত্বপূর্ণ। ডিএমকে ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ, তৃণমূল ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ। সমাজবাদী পার্টিরও শক্তি আছে। তবে ওরা কতদুর যাবে সেটা জানি না।

অভিযোগ করে তিনি বলেন, বিজেপি ভারতের দৃষ্টিভঙ্গিকে সীমাবদ্ধ করে দিয়েছে। ভারত সম্পর্কে ধারণাটাকে এরা এত সংকীর্ণ করে দিয়েছে যে এখন ভারতকে শুধু হিন্দু ভারত বা হিন্দি বলয়ের ভারত হিসাবে দেখা হচ্ছে। যদি বিজেপির কোনো বিকল্প না পাওয়া যায় তাহলে দেশের বাকি অংশের প্রতি সেটা অন্যায় করা হবে।

ভারতের রাজনৈতিক দলগুলোকে অমর্ত্য সেন মনে করিয়ে দেন, বিজেপি প্রবল প্রতাপশালী হলেও, তাদের দুর্বলতাও আছে। অন্য দলগুলোও চেষ্টা করলে সুযোগ তৈরি করতে পারে। আলোচনায় চলে আসতে পারে। বিজেপি বিরোধী দলগুলো একত্রিত হতে পারবে না, এমন কোনো তথ্য আমার জানা নেই।

যদিও একই সঙ্গে তিনি মেনে নিয়েছেন, একা কংগ্রেসের পক্ষে আর বিজেপিকে হারানো সম্ভব নয়। কেননা বর্তমানে কংগ্রেস অনেক দুর্বল হয়ে গিয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড