• বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ইউক্রেনে রুশ হামলায় নিহত ১৩

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২০ মে ২০২২, ১৭:০২
ইউক্রেনে রুশ হামলায় নিহত ১৩
রুশ ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে বিধ্বস্ত ইউক্রেনীয় গ্রাম (ছবি : দ্য এক্সপ্রেস)

ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় লুহানস্ক অঞ্চলে রাশিয়ার সেনাবাহিনীর চালানো হামলায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত অন্তত ১৩ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। এদের মধ্যে সেভেরোদোনেতস্কে ১২ জন এবং গিরস্কে বসতিতে একজন মৃত্যুবরণ করেছেন।

এছাড়া লুহানস্কের আঞ্চলিক কেন্দ্র এবং লিসিচানস্কের দিকে রাশিয়ার সামরিক বাহিনী আরও অগ্রসর হয়েছে বলে খবর প্রচারিত হচ্ছে। লুহানস্কের গভর্নরের বরাতে শুক্রবার (২০ মে) করা প্রতিবেদনে এমন তথ্যই জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা।

লুহানস্কের গভর্নর টেলিগ্রামে দেওয়া এক বার্তায় দাবি করেন, বৃহস্পতিবার (১৯ মে) রাশিয়ার সেনাবাহিনীর চালানো আগ্রাসনে সেভেরোদোনেতস্ক এবং গিরস্কে বসতিতে এই ১৩ জন প্রাণ হারান। এছাড়া রুশ সৈন্যদের আক্রমণে লুহানস্ক অঞ্চলে ৬০টিরও অধিক বাড়ি-ঘর ধ্বংস হয়ে গেছে। সদ্য ধ্বংসপ্রাপ্ত হওয়া এসব বাড়ি-ঘর জোলোট, ভ্রুবিভকা এবং রুবিঝন এলাকায় অবস্থিত।

গভর্নর হাইদাই বলেছেন, তোশকিভকা এলাকায় এখন পর্যন্ত সংঘর্ষ চলছে। সেসব এলাকার ক্ষয়ক্ষতি পরিমাপ করা বর্তমানে অসম্ভব।

এ দিকে ইউক্রেনীয় সশস্ত্র বাহিনীর সাধারণ সদস্যদের দাবি, সেভেরোদোনেতস্কে রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর সর্বশেষ হামলা ব্যর্থ হয়ে গেছে। সেখানে রুশ সৈন্যরা পরাজিত হয়েছেন। এরপর সেখান থেকে রাশিয়ার সেনাবাহিনী পিছু হটে।

আরও পড়ুন : বিশ্বকাপের কাজে বাংলাদেশি শ্রমিক চায় কাতার

উল্লেখ্য, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ভোরে ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের নামে আগ্রাসন শুরু করে রাশিয়ান সৈন্যরা। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ইউরোপের প্রথম রাষ্ট্র হিসেবে রাশিয়ার সশস্ত্র বাহিনী স্থল, আকাশ ও সমুদ্রপথে ইউক্রেনে এই আক্রমণ শুরু করে। এক সঙ্গে তিন দিক দিয়ে হওয়া এই হামলায় ইউক্রেনের বিভিন্ন শহরে বৃষ্টির মতো পড়েছে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড