• শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সংক্রমণ লক্ষাধিক হলেও কোভিড বিধিনিষেধ শিথিল ব্রিটেনে

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৮ জানুয়ারি ২০২২, ০৯:৩১
সংক্রমণ লক্ষাধিক হলেও কোভিড বিধিনিষেধ শিথিল ব্রিটেনে
ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন (ছবি : বিবিসি নিউজ)

মহামারি করোনা ভাইরাসের বিধিনিষেধের বোঝা আর বহন না করে সংক্রমণকে সঙ্গে নিয়েই এবার বসবাসের পথে হাঁটছে যুক্তরাজ্য। আর সেই কারণেই প্রাণঘাতী ভাইরাসটির অতি সংক্রামক ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট রুখতে ব্রিটেনে জারি হওয়া বিধিনিষেধ বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারি) থেকে তুলে নেওয়া হয়েছে।

নতুন নিয়ম অনুযায়ী- বৃহস্পতিবার থেকে ব্রিটিশ ভূখণ্ডে কোনো লোকজনকে বদ্ধ জায়গায় মাস্ক পরার প্রয়োজন পড়বে না। একই সঙ্গে বার-রেস্টুরেন্টে প্রবেশের জন্য ইংল্যান্ডে এতদিন টিকা সনদ প্রদর্শনের যে বাধ্যবাধকতা ছিল, সেটিও প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার প্রতিবেদন প্রকাশের মাধ্যমে ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি তথ্যটি জানিয়েছে।

অবশ্য ব্রিটেনে গেল দুই সপ্তাহ যাবতই কোভিড সংক্রমণ হ্রাস পাচ্ছে। কিন্তু সংক্রমণ কমলেও তা এখনো লাখের ওপরেই রয়েছে। যদিও গত বছরের শেষ দিকে বা চলতি মাসের শুরুতেও ব্রিটেনে সংক্রমণের যে উর্ধ্বমুখী হার দেখা যাচ্ছিল তা সম্পূর্ণ রূপে না কমলেও, একটি সমান্তরাল রেখায় পরিণত হয়েছে। আর তাই সংক্রমণ কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসতেই বরিস জনসনের সরকার বিধিনিষেধ প্রত্যাহার করে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এএফপির প্রতিবেদনে জানানো হয়, গত বছরের নভেম্বর মাসের শেষ দিকে ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট শনাক্তের পর ডিসেম্বরের শুরু থেকেই ব্রিটেনে সংক্রমণ ও হাসপাতালে রোগীর চাপ বাড়তে শুরু করে। সেই পরিস্থিতিতে গত বছরের ৮ ডিসেম্বর ব্রিটেনজুড়ে কোভিড বিধিনিষেধ হিসেবে ‘প্লান বি’ জারি করেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

আরও পড়ুন : ফাইজারের পর ওমিক্রন প্রতিরোধী টিকার পরীক্ষা মডার্নার

অবশ্য যুক্তরাজ্যের মানুষ সেই সিদ্ধান্ত খুব ভালোভাবে গ্রহণ না করায় করোনা সংক্রমণ কিছুটা নিয়ন্ত্রণে এলে বিধিনিষেধের মাত্রা ‘প্লান বি’ থেকে ‘প্লান এ’-তে ফিরিয়ে আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী। যুক্তরাজ্যে ‘প্লান এ’ ন্যূনতম করোনাবিধি হিসেবে পরিচিত।

অবশ্য ‘প্লান বি’ বিধিনিষেধ জারি করে জনসন সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল, সকল বদ্ধ জায়গাতেই মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। কেউ যদি মাস্ক না পরেন, কিন্তু জরিমানা বা কঠোর শাস্তির মুখে পড়তে হবে। অন্য দিকে বার, নাইট ক্লাব, ফুটবল মাঠ বা বড় কোনো অনুষ্ঠানে প্রবেশের সময় ভ্যাকসিনের সনদ দেখানো বাধ্যতামূলক।

যদিও সংক্রমণ কিছুটা হ্রাস পাওয়ায় সর্বশেষ নির্দেশনায় বরিস জনসনের সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, বদ্ধ জায়গায় বাধ্যতামূলকভাবে কাউকে মাস্ক পরতে হবে না। তবে খোলা জায়গায় মাস্ক পরার নির্দেশনা আগের মতোই বহাল থাকবে।

এছাড়া যেসব কর্মী এতদিন ‘ওয়ার্ক ফ্রম হোমের’ মাধ্যমে কাজ করছিলেন তারা ইচ্ছা করলে ফের অফিসে ফিরতে পারেন। একই সঙ্গে বার, নাইট ক্লাব বা বড় কোনো অনুষ্ঠানে প্রবেশের জন্য করোনা প্রতিরোধী ভ্যাকসিন গ্রহণের সনদও দেখাতে হবে না।

আরও পড়ুন : এবার ক্রুজ মিসাইল ছুড়ল উ. কোরিয়া

এ দিকে ইংল্যান্ডের স্কুলগুলোতেও শিক্ষার্থীদের বাধ্যতামূলকভাবে মাস্ক পরতে হবে না বলে জানানো হয়েছে। তবে গণপরিবহন ব্যবহারের সময় যাত্রীদের সবাইকে আগের মতোই মাস্ক পরতে হবে। একই সঙ্গে বিধিনিষেধ জারি থাকা সত্ত্বেও কেউ মাস্ক না পরলে তাদের জরিমানা বা শাস্তির মুখে পড়তে হবে না বলেও জানানো হয়েছে।

এর আগে গত বছরের ১৯ জুলাই ব্রিটেনে করোনা বিধিনিষেধ প্রত্যাহার করা হয়েছিল। ওই দিনটিকে ‘ফ্রিডম ডে’ বলেও উল্লেখ করা হয়েছিল। তবে নভেম্বরের শেষ দিকে ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত হওয়ার পর ফের বিধিনিষেধ জারি করা হয়।

করোনা ভাইরাসে মৃত্যু, আক্রান্ত ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডো মিটারস থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, যুক্তরাজ্যে গত এক দিনে নতুন করে মহামারি করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন এক লাখ দুই হাজার ২৯২ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৩৪৬ জনের।

আরও পড়ুন : প্যারিসে রুশ-ইউক্রেনের কূটনীতিকদের বৈঠক

মহামারির শুরু থেকে এই ব্রিটিশ ভূখণ্ডে এ পর্যন্ত প্রায় এক কোটি ৬১ লাখ ৫০ হাজার মানুষ কোভিড সংক্রমিত হয়েছেন। এদের মধ্যে প্রায় এক লাখ ৫৫ হাজার মানুষ মৃত্যুবরণ করেছেন। করোনায় বিপর্যস্ত ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে যুক্তরাজ্যের অবস্থান বেশ ওপরের দিকেই।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড