• সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯  |   ২৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মিয়ানমারে ব্যবসা করা প্রতিষ্ঠানগুলোকে যুক্তরাষ্ট্রের সতর্কবার্তা

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৭ জানুয়ারি ২০২২, ১৬:১১
মিয়ানমারে ব্যবসা করা প্রতিষ্ঠানগুলোকে যুক্তরাষ্ট্রের সতর্কবার্তা
মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন (ছবি : সিবিএস নিউজ)

মিয়ানমারে যেসব কোম্পানি এখনো ব্যবসা করে যাচ্ছে তাদের প্রত্যেককে সতর্ক করে দিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। সামরিক কোনো সরকারের সঙ্গে বাণিজ্য করতে গেলে সেখানে আইন এবং মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঝুঁকি থাকে বলে সতর্কতাটি দেওয়া হয়।

মন্ত্রিপরিষদ সমপর্যায়ের ৬টি বিভাগের বিবৃতিতে বলা হয়, সামরিক সরকারের সঙ্গে যারা বাণিজ্য করছেন তাদের প্রতিষ্ঠানের সুনাম ঝুঁকির মধ্যে পড়তে পারে। একই সঙ্গে আর্থিক এবং আইনি জটিলতায় পড়ার সম্ভাবনাও রয়ে গেছে। নিষেধাজ্ঞা ও অর্থপাচার সংক্রান্ত আইন নিয়ে জটিলতা তৈরি হতে পারে বলে বিবৃতিতে জানানো হয়।

মিয়ানমারের রাষ্ট্র মালিকানাধীন বিভিন্ন উদ্যোগ, রত্ন ও অন্যান্য মূল্যবান ধাতু খাত, আবাসন এবং অন্যান্য নির্মাণ প্রকল্প ও অস্ত্র ব্যবসার বিষয়ে বিনিয়োগকারী ও ব্যবসায়ীদের বিশেষভাবে সতর্ক করা হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বার্মার (মিয়ানমারের পূর্বের নাম) সামরিক শাসকের অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে এসব খাতের ভূমিকা রয়েছে।

এক বছর আগে অভ্যুথানের মাধ্যমে ক্ষমতায় আসা মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর সরকারের অধীনে কোনো ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ড না চালাতে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও আরও কিছু দেশ বিধিনিষেধ আরোপ করেছে বলেও উল্লেখ করা হয়েছে বিবৃতিতে।

আরও পড়ুন : কানাডায় সাবেক আবাসিক স্কুলে এবার গণকবরের সন্ধান

এতে আরও বলা হয়েছে, সেনাবাহিনী অন্যায়ভাবে গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত সরকারের নেতাদের গ্রেপ্তার করেছে, ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে রেখেছে, মানবাধিকার লঙ্ঘন করছে ও শান্তিপূর্ণ বিভিন্ন প্রতিবাদ থামাতে সহিংস পথ বেছে নিচ্ছে।

এছাড়া সন্ত্রাসবাদে অর্থায়ন ও অর্থপাচার ঠেকাতে মিয়ানমার কার্যকর কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। যার জন্য দেশটিতে বিনিয়োগকারী ও ব্যবসায়ীদের বাড়তি ঝুঁকি তৈরি হয়েছে।

বিবৃতিতে যেসব সতর্কতা দেওয়া হয়েছে এগুলো কেবল পরামর্শমূলক, আইনি কোনো পদক্ষেপ নয়।

যদিও এটা এমন এক সময় দেওয়া হলো যখন বার্মিজ সেনাবাহিনী তাদের নিয়ন্ত্রণ বাড়িয়ে যাচ্ছে এবং বেশকিছু বিদেশি প্রতিষ্ঠান দেশটিতে তাদের বিনিয়োগ পরিকল্পনা বাতিল করেছে।

আরও পড়ুন : কানাডায় এক বাড়িতে চারজনকে হত্যা

উল্লেখ্য, গেল শুক্রবার টোটাল অ্যানার্জি ও শেভরনের মতো প্রতিষ্ঠান মিয়ানমার ত্যাগের ঘোষণা দিয়েছে। এছাড়াও আগেই একই ধরনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে নরওয়ের টেলিনর, ব্রিটিশ-আমেরিকান টোব্যাকো, ফ্রান্সের ভোলটালিয়া এবং টয়োটা।

সূত্র : এএফপি

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড