• শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ইউক্রেনকে ন্যাটোর বাইরে রাখতে চায় না যুক্তরাষ্ট্র

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৭ জানুয়ারি ২০২২, ১৪:৪১
ইউক্রেনকে ন্যাটোর বাইরে রাখতে চায় না যুক্তরাষ্ট্র
আক্রমণের পরিকল্পনা করছেন ইউক্রেনের সেনা সদস্যরা (ছবি : বিবিসি নিউজ)

পূর্ব ইউরোপে ক্রমবর্ধমান উত্তেজনা কমানোর জন্য ইউক্রেনকে সামরিক জোট ন্যাটোর বাইরে রাখার বিষয়ে রাশিয়া যে দাবি তুলেছিল তা প্রত্যাখ্যান করেছে যুক্তরাষ্ট্র। রাশিয়া-ইউক্রেনের মধ্যে সম্ভাব্য যুদ্ধ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কার মাঝেই সিদ্ধান্তটির কথা জানাল বাইডেন প্রশাসন। বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারি) প্রতিবেদন প্রকাশের মাধ্যমে তথ্যটি জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি নিউজ।

ইউক্রেন সীমান্তে দীর্ঘদিন যাবত সেনাবাহিনীর প্রায় এক লাখ সদস্য মোতায়েন করে রেখেছে প্রতিবেশী রাষ্ট্র রাশিয়া। রুশ সৈন্যরা যে কোনো মুহূর্তে দেশটিতে আক্রমণ চালাতে পারে বলেও আশঙ্কা রয়েছে। যদিও ইউক্রেনে এখনই আক্রমণের কোনো পরিকল্পনা নেই বলে শুরু থেকেই জানিয়ে আসছে মস্কো।

কিন্তু রাশিয়া পশ্চিমা রাষ্ট্রগুলোর কাছ থেকে পূর্ব ইউরোপে নিরাপত্তার গ্যারান্টি চায়। ইতোপূর্বে রাশিয়া পরিষ্কার করেই বলেছে, ইউক্রেনকে কখনোই সামরিক জোট ন্যাটোতে যোগ দিতে না দেওয়ার প্রতিশ্রুতি মস্কো লিখিতভাবে চায়। এমনকি সোভিয়েত ইউনিয়নের সাবেক এই প্রদেশে ন্যাটোর সামরিক সরঞ্জাম মোতায়েন করা হবে না; এমন প্রতিশ্রুতিও চায় রাশিয়া।

বিশ্লেষকদের মতে, গেল বছরের শেষ দিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ফোনালাপের আগে-পরে বিভিন্ন সময় মস্কো দাবিটি সামনে আনে। অবশ্য বাইডেন প্রশাসন স্পষ্ট করে দিয়েছে যে, রাশিয়ার এই দাবিগুলো কখনোই কার্যকর হতে পারে না।

অবশেষে মস্কোর এই দাবির প্রসঙ্গে বুধবার আনুষ্ঠানিকভাবে জবাব দিয়েছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন। একই সঙ্গে ইউক্রেন সংকট নিরসনে রাশিয়ার জন্য কূটনৈতিক পথও খোলা রাখার কথা জানিয়েছে ওয়াশিংটন।

আরও পড়ুন : ঝাড়খণ্ডে মধ্যরাতে ভয়াবহ বিস্ফোরণ

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন বলেছেন, আমরা ইউক্রেনে বলপ্রয়োগের ধরণ সম্পর্কে পারস্পরিক স্বচ্ছতার ব্যবস্থার সম্ভাবনার কথা বলেছি, সেই সাথে ইউরোপে সামরিক মহড়া এবং কৌশলের বিষয়ে আস্থা বাড়ানোর জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপের কথাও বলেছি। আমরা ইউক্রেনের প্রতিরক্ষাকে শক্তিশালী করতে এবং সম্ভাব্য রুশ আগ্রাসনের বিরুদ্ধে একটি দ্রুত ও ঐক্যবদ্ধ প্রতিক্রিয়া প্রস্তুত করতে কাজ করছি।

রাশিয়ায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত জন সালিভান বুধবার রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ব্যক্তিগতভাবে নথিটি হস্তান্তর করেন। ওই নথিতে রাশিয়ার কাছে ইউরোপীয় নিরাপত্তা সম্পর্কিত নিজস্ব প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছে ন্যাটো। কর্মকর্তারা বলছেন, পৃথকভাবে ওই নথির দৈর্ঘ্য কয়েক পৃষ্ঠা হবে।

অবশ্য যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা সুনির্দিষ্টভাবে বিস্তারিত তথ্য সামনে আনতে অস্বীকার করেছেন। যদিও তারা আশা প্রকাশ করে বলেছেন, ওয়াশিংটন এবং মস্কো এখনো ঐক্যমত খুঁজে পেতে পারে এবং এমনকি ইউরোপে ক্ষেপণাস্ত্র সম্পর্কিত অস্ত্র নিয়ন্ত্রণের মতো বিষয়গুলোতে অগ্রগতি আসতে পারে।

উল্লেখ্য, মস্কোর নিরাপত্তা বিষয়ক দাবির মধ্যে পূর্ব ইউরোপে ন্যাটোর সম্প্রসারণমুখী নীতির অবসান অন্যতম। বিশেষ করে ইউক্রেন ও জর্জিয়াসহ পূর্ব ইউরোপ থেকে ন্যাটো সেনাদের সরিয়ে নেওয়া। তবে যুক্তরাষ্ট্র সেই দাবিগুলোকে প্রত্যাখ্যান করে রাশিয়াকে ইউক্রেনের সীমান্ত থেকে সৈন্য প্রত্যাহার করার দাবি জানিয়েছে।

একই সঙ্গে এর পরিবর্তে সামরিক মহড়া ও ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েনসহ বিভিন্ন বিষয়ে মস্কোর সাথে আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছে।

আরও পড়ুন : ক্রান্তীয় ঝড় আনার হানায় মোজাম্বিক-মালাউইতে নিহত ১২

অপর দিকে ন্যাটোর মহাসচিব জেনস স্টলটেনবার্গ ইউক্রেন, জর্জিয়া ও মলদোভা থেকে রুশ বাহিনী প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছেন। সংবাদ দাতাদের তিনি বলেছেন, এই রাষ্ট্রগুলোর সম্মতি ছাড়াই মস্কো তাদের সেনাবাহিনী সেখানে মোতায়েন করেছে।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড