• শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সুদানে সেনাবিরোধী বিক্ষোভে গুলিতে নিহত ৭

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৮ জানুয়ারি ২০২২, ১২:২৩
সুদানে সেনাবিরোধী বিক্ষোভে গুলিতে নিহত ৭
বিক্ষোভে উত্তাল সুদানের রাজপথ (ছবি : আফ্রিকান টাইমস)

আফ্রিকার উত্তরাঞ্চলীয় দেশ সুদানে সেনাবাহিনীর গুলিতে কমপক্ষে সাত বিক্ষোভকারীর প্রাণহানি ঘটেছে। এতে আহত হয়েছেন আরও কিছু মানুষ। সোমবার (১৭ জানুয়ারি) বিতর্কিত সামরিক অভ্যুত্থানবিরোধী আন্দোলনে টিয়ারগ্যাস ও গুলিবর্ষণের পর হতাহতের ঘটনাটি ঘটে।

মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) প্রতিবেদন প্রকাশের মাধ্যমে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, সেনাবাহিনীর অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে চলমান আন্দোলনের অংশ হিসেবে সোমবার আয়োজিত বিক্ষোভ কঠোর হাতে দমনের চেষ্টা করে দেশটির সামরিক বাহিনী। এক পর্যায়ে বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ারগ্যাসের পাশাপাশি সরাসরি গুলিবর্ষণ করে সেনা সদস্যরা। মূলত এতেই হতাহতের ঘটনাটি ঘটে।

সুদানের চিকিৎসকদের সংগঠন সেন্ট্রাল কমিটি অব সুদানিজ ডক্টরস বলছে, সোমবারের ওই বিক্ষোভে দেশের একাধিক স্থানে গুলিবর্ষণের খবর পাওয়া গেছে। এতে কমপক্ষে সাতজন মৃত্যুবরণ করেন।

এ দিকে নৃশংস ওই ঘটনার প্রতিবাদে দেশটির রাজধানী খার্তুমে দুইদিনের হরতাল এবং আইন অমান্য আন্দোলনের ঘোষণা দিয়েছেন বিক্ষোভকারীরা।

বিশ্লেষকদের মতে, গত বছরের অক্টোবর মাস থেকে সুদানে সেনাশাসন চলে আসছে। মূলত এরপর গণতন্ত্র ফেরানোর দাবিতে শুরু হয় তীব্র বিক্ষোভ। সেই আন্দোলনের জেরে ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী আবদল্লাহ হামদককে আবারও প্রধানমন্ত্রী বানায় সামরিক কর্তৃপক্ষ। যদিও বিক্ষোভের মুখে গত ৩ জানুয়ারি পদত্যাগ করতে বাধ্য হন হামদক।

আরও পড়ুন : বিদেশি বিনিয়োগের শর্ত শিথিলের পথে ফিলিপাইন

তিনি জানিয়েছিলেন, সৈন্য ও সরকারের মধ্যে এখনো বিরোধ চলছে। এছাড়া রাজনৈতিক দলগুলোও ঐক্যবদ্ধ হতে পারছে না। অনেক চেষ্টার পরও কিছু করতে না পেরে আমি পদত্যাগ করছি।

এরপর থেকে আবারও সামরিক শাসনের বিরুদ্ধে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ করে আসছেন সুদানের সাধারণ মানুষ। রাজধানী খার্তুমে প্রচুর মানুষ বিক্ষোভে অংশ নিচ্ছেন। দেশের অন্য এলাকাতেও বিক্ষোভ হচ্ছে। সেনাবিরোধী এই বিক্ষোভে সামিল হয়েছেন নারী ও শিশুরাও। জাতীয় পতাকা হাতে নিয়ে এই আন্দোলন চলছে।

যদিও সামরিক কর্তৃপক্ষ দেশে কোনো ধরনের বিক্ষোভ হতে দিতে রাজি নয়। আর তাই তারা শান্তিপূর্ণ সেই বিক্ষোভও কঠোর হাতে দমন করেতে চাচ্ছে।

আরও পড়ুন : জাফর ফিরোজের চিত্রনাট্য ‘দ্য আনসারটেনিটি’র বার্লিন জয়

অবশ্য জনগণ ও সেনাবাহিনীর মুখোমুখি এই অবস্থানে সব পক্ষকে সংযত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ। একই সঙ্গে দেশটিতে মানবাধিকার রক্ষা করতেও সামরিক শাসকের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে সংস্থাটি। মত প্রকাশ ও বিক্ষোভে অংশ নেওয়ার অধিকার সকলেরই আছে বলে দাবি তাদের।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড