• বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ভ্যাকসিনের চতুর্থ ডোজ প্রয়োগের পথে ডেনমার্ক

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৩ জানুয়ারি ২০২২, ১৪:৩৭
ভ্যাকসিনের চতুর্থ ডোজ প্রয়োগের পথে ডেনমার্ক
করোনা ভাইরাস প্রতিরোধী ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হচ্ছে (ফাইল ছবি)

ইউরোপের প্রথম রাষ্ট্র হিসেবে লোকজনকে মহামারি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধী ভ্যাকসিনের চতুর্থ ডোজ প্রয়োগের পরিকল্পনা করছে ডেনমার্ক। কোভিড-১৯ সংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকিতে থাকা জনগণকে শিগগিরই ডোজটি দেওয়া হবে। যদিও এটি আদতে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে কতটুকু ভূমিকা রাখবে সে সংক্রান্ত কোনো তথ্য যাচাইয়ের সুযোগ নেই বলে জানিয়েছে দেশটির একটি নিয়ন্ত্রণ সংস্থা।

এর আগে ২০২১ সালের শেষ দিকে বিশ্বের প্রথম রাষ্ট্র হিসেবে কোভিড প্রতিরোধী টিকার চতুর্থ ডোজের অনুমোদন দেয় মধ্যপ্রাচ্যের ইহুদিবাদী দখলদার রাষ্ট্র ইসরায়েল। মূলত প্রাণঘাতী ভাইরাসের অতি সংক্রামক ধরন ওমিক্রনের কারণে সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এই অনুমোদন দেয় দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। প্রাথমিকভাবে কেবল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম এমন ব্যক্তিদেরই ভ্যাকসিনের চতুর্থ ডোজ দিচ্ছে তেল আবিব।

ডেনমার্কের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যাগনাস হুনেকি সাংবাদিকদের বলেছেন, আমরা একটি নতুন অধ্যায়ে প্রবেশ করতে যাচ্ছি, উচ্চ ঝুঁকিতে থাকা লোকজনকে করোনা প্রতিরোধী ভ্যাকসিনের চতুর্থ ডোজ দেওয়া হবে। সমাজে করোনা সংক্রমণ যত বেশি বিস্তার লাভ করবে, তাদের (ঝুঁকিতে থাকা) তত বেশি সংক্রমিত হওয়ার শঙ্কা তৈরি হবে।

বিশ্লেষকদের মতে, চলতি সপ্তাহের শেষ দিকে টিকাকরণের কার্যক্রমটি শুরু হবে, গত বছরের শীত মৌসুমে যারা প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছিলেন তারা চতুর্থ ডোজ পাওয়ার বিবেচিত হবেন বলেও জানান ম্যাগনাস। এছাড়া ডেনমার্ক সরকার বয়স্ক ও বাসায় চিকিৎসাধীন নাগরিকদের আরেকটি ডোজ (কততম তা বলা হয়নি) দেওয়ার চিন্তা করছে বলে কর্তৃপক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন : মালয়েশিয়ায় কর্মী নিয়োগ : শীঘ্রই ঘোষণা আসছে অনলাইন আবেদনের

করোনার শক্তিশালী ধরন ওমিক্রনের বিস্তার রোধে গত মাসে ডেনমার্কে মিউজিক ভেন্যু, মুভি থিয়েটার, স্পোর্টস স্টেডিয়াম এবং অন্যান্য পাবলিক প্লেসগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। যদিও দেশটিতে ভাইরাসের মিউটেশনের সঙ্গে নতুন সংক্রমণের একটি ঢেউ চলেছে। যদিও মৃত্যু এবং হাসপাতালে ভর্তির সংখ্যা কম রয়েছে। যে কারণে বন্ধ থাকা কেন্দ্রগুলো ফের চালু করার পরিকল্পনা করছে সরকার।

ড্যানিশ হেলথ এজেন্সির প্রধান সোরেন ব্রস্টর্ম বলেন, ধারণা ও ভয় পাওয়ার মতো অবস্থার চেয়ে আমরা ভালো আছি। আমরা এখন নিশ্চিতভাবে বলতে পারি যে এই নতুন ধরন কম রোগ সৃষ্টি করে।

করোনা ভাইরাসে মৃত্যু, আক্রান্ত ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডো মিটারসের তথ্যানুযায়ী, ডেনমার্কে বর্তমানে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১০ লাখের অধিক মানুষ। এর মধ্যে মারা গেছেন তিন হাজার ৪৩৩ জন।

আরও পড়ুন : ওমিক্রন ঠেকাতে সীমান্তে নিষেধাজ্ঞা বৃদ্ধি জাপানের

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসে এশিয়ার পরাশক্তি চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রথম করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর গত বছরের ১১ মার্চ প্রাণঘাতী ভাইরাসটিকে ‘বৈশ্বিক মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। এর আগে একই বছরের ২০ জানুয়ারি সংস্থাটি বিশ্বজুড়ে জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করে।

সূত্র : আরটি

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড