• রোববার, ২৩ জানুয়ারি ২০২২, ৯ মাঘ ১৪২৮  |   ২৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

নতুন প্রধানমন্ত্রী পাচ্ছে কাজাখস্তান

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১১ জানুয়ারি ২০২২, ১৭:২১
নতুন প্রধানমন্ত্রী পাচ্ছে কাজাখস্তান
কাজাখস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসাবে মনোনয়ন পাওয়া রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব আলী খান এসমাইলোভ (ছবি : রয়টার্স)

জ্বালানি পণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে জনগণের তীব্র বিক্ষোভ ও আন্দোলনের মুখে সৃষ্ট দাঙ্গায় বিপর্যস্ত রাষ্ট্র কাজাখস্তানে এখন পর্যন্ত দেড় শতাধিক লোকের মৃত্যু হয়েছে। মধ্য এশিয়ার বৃহত্তম দেশটিকে নাড়িয়ে দেওয়া সহিংসতার ঘটনায় আরও প্রায় পাঁচ হাজার জনকে আটক করা হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে তীব্র সহিংস বিক্ষোভের মুখে সরকার পতনের এক সপ্তাহের মাথায় নতুন প্রধানমন্ত্রী পদে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) সাবেক সরকারের উপ প্রধানমন্ত্রী আলী খান এসমাইলোভকে নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসাবে মনোনয়ন দিয়েছেন কাজাখস্তানের প্রেসিডেন্ট।

ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে, কাজাখস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসাবে আলী খানকে মনোনীত করেছেন প্রেসিডেন্ট কাশেম জোমার্ট তোকায়েভ। তিনি মনোনীত করার পর দেশটির সংসদের নিম্নকক্ষে তাৎক্ষণিকভাবে ভোটাভুটির আয়োজন করা হয়।

রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে সরাসরি প্রচারিত সংসদ অধিবেশনে আলী খানের পক্ষে সংসদ সদস্যদের সম্মতি জানাতে দেখা যায়। জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে মধ্য এশিয়ার এই দেশটিতে গত প্রায় এক সপ্তাহ যাবত তীব্র সহিংস বিক্ষোভ চলছে।

আরও পড়ুন : রেললাইনে আছড়ে পড়া বিমানকে গুঁড়িয়ে দিল ট্রেন (ভিডিয়ো)

প্রাণঘাতী এই সহিংসতার জেরে গেল ৫ জানুয়ারি দেশটির প্রেসিডেন্ট কাশেম জোমার্ট ক্ষমতাসীন সরকার ভেঙে দেন। ভেঙে যাওয়া সরকারের প্রথম উপ প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব পালন করছিলেন ৪৯ বছর বয়সী খান।

মঙ্গলবার কাজাখস্তানের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, দেশটিতে চলমান বিক্ষোভ সহিংসতায় এখন পর্যন্ত প্রায় নয় হাজার ৯০০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

বিশ্লেষকদের মতে, বিক্ষোভকারীরা সরকার ও সামরিক ভবনগুলোতে আক্রমণের ডাক দেয়। প্রেসিডেন্ট কাসিম জোমার্ট তোকায়েভ বলেছেন, এই ধরনের প্রতিবাদ সম্পূর্ণ অন্যায়। সরকারের সঙ্গে আলোচনায় বসা উচিৎ বিক্ষোভকারীদের। এছাড়া এই সহিংসতার পেছনে অভ্যন্তরীণ এবং বিদেশি প্ররোচকদের হাত রয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

আরও পড়ুন : কাজাখস্তানে দাঙ্গায় দেড় শতাধিক নিহত

উল্লেখ্য, কাজাখস্তানে অনেকেই এলপিজিতে গাড়ি চালান। সরকার এতদিন দাম নিয়ন্ত্রণ করে রাখায় গ্যাসোলিনের চেয়ে এলপিজিতে গাড়ি চালানো সস্তা ছিল। সরকার সেই এলপিজির দাম বাড়ানোয় প্রবল আন্দোলন শুরু হয়। মূলত এসবের জেরে কাজাখ সরকারের পতন হলো।

সূত্র : আল-জাজিরা, এএফপি

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড