• শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

‘বুল্লি বাই’ অ্যাপ দিয়ে কী হচ্ছিল ভারতে?

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০৭ জানুয়ারি ২০২২, ০৯:৪৩
‘বুল্লি বাই’ অ্যাপ দিয়ে কী হচ্ছিল ভারতে?
বোরকা পরিহিত ভারতীয় নারীরা (ছবি : দ্য হিন্দু)

নতুন বছরের শুরুতেই বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে ‘বুল্লি বাই’ অ্যাপ। অ্যাপটি নিষিদ্ধ হয়েছে বলে জানাজানি হওয়ার পরও এটির মাধ্যমে ভারতের মুসলিম মহিলাদের ছবি ও বিবরণ পোস্ট করে ‘নিলামে’ তোলা হচ্ছে। রীতিমতো এ নিয়ে দেশটিজুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে গেছে।

‘বুল্লি বাই’ নামে অ্যাপটি মূলত একটি ওপেন সোর্স অ্যাপ, যা গিটহাব নামে একটি ওয়েব প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে অপারেট হতো। এই নিয়ে দেশটিতে গেল কয়েকমাসে মুসলিম নারীদের ‘নিলাম’ বা ‘বিক্রির’ মতো অবমাননাকর ঘটনা দ্বিতীয়বার ঘটল। ‘বুল্লি বাই’ অ্যাপটিতে ১০০ জনের অধিক মহিলাকে নিশানা করা হয়েছে। এই অ্যাপ খুললে মুসলিম মহিলাদের একের পর এক ছবি দেখা যাবে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার থেকে নেওয়া ছবিগুলো মূলত এখানে ব্যবহার হয়।

যদিও গত বছরের জুলাই মাসে প্রায় একই ধরনেই অ্যাপ সামনে এসেছিল। যার নাম দেওয়া হয়েছিল ‘সুল্লি ডিলস’। সেই সময় অ্যাপটিতে মোট ৮০ জনের বেশি মুসলিম তরুণীর প্রোফাইল বানানো হয়েছিল।

স্থানীয় ভাষায় ‘বুল্লি’ বা ‘সুল্লি’ দুটোই অবমাননাকর একটি ‘স্ল্যাং’। এই দুই অ্যাপের কোনো ক্ষেত্রেই প্রকৃত বিক্রি বা টাকা লেনদেনের সঙ্গে সম্পর্ক নেই। এই অ্যাপ প্রস্তুতকারকদের উদ্দেশ ছিল- মুসলিম মহিলাদের অবমাননা করা। যদিও একাধিক অভিযোগের ভিত্তিতে অ্যাপটি বন্ধ করে দিয়েছে গিটহাব। অপর দিকে পুলিশও এরই মধ্যে ঘটনাটির বিস্তর তদন্ত শুরু করেছে। বারবার এই রকম একই ঘটনা ঘটনায় স্বভাবতই মুসলিমদের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

আরও পড়ুন : ওমিক্রন নিয়ন্ত্রণে শনি-রবিবার দিল্লিতে কারফিউ

এই নিন্দাজনক কাজের নিশানায় ছিলেন যেমন বহু নামকরা প্রতিষ্ঠিত নারীরা; তেমনই ছিলেন সাধারণ মহিলারাও। সাংবাদিক থেকে শুরু করে অভিনেত্রী; এমন বহু মানুষকেই নিশানা বানিয়ে এই অ্যাপের মাধ্যমে নিলামে তোলা হয়।

এখানে যাদের ছবি আপলোড করা হয়েছে অ্যাপে তাদের অনেকেই টুইট করেছেন যে তারা বিষয়টিতে আহত ও আতংকিত। অবিলম্বে ঘটনাটির সঙ্গে জড়িত লোকজনকে কঠোর শাস্তি দেওয়ারও আর্জি জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, রাজনৈতিক মহলেও বিষয়টি ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। দেশের বহু মানুষ ঘটনাটির জন্য নিন্দা জানিয়ে টুইট করছেন। রাহুল গান্ধী, মেহবুবা মুফতি, প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদীর মতো বড় বড় রাজনৈতিক নেতা-নেত্রীরা টুইট করে বিষয়টি কেন্দ্রের নজরে আনার চেষ্টা করেছেন।

আরও পড়ুন : ফ্রান্সে করোনার নতুন ধরন ‘আইএইচইউ’ শনাক্ত

এমনকি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব শনিবার জানিয়েছিলেন, বিতর্কিত ওই অ্যাপটিতে যারা এসব ছবি আপলোড করেছে; গিটহাব তাদের ব্লক করেছে। এমনকি পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য পুলিশ সাইবার সংস্থাগুলোর সঙ্গে সমন্বয় করে কাজ করছে।

সূত্র : এনডিটিভি

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড