• বুধবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২২, ১২ মাঘ ১৪২৮  |   ১৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ইউক্রেন ইস্যুতে উত্তেজনা

ক্ষীণ সম্ভাবনা নিয়ে আজ মুখোমুখি বাইডেন-পুতিন

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ১৩:৫২
ক্ষীণ সম্ভাবনা নিয়ে আজ মুখোমুখি বাইডেন-পুতিন
বৈঠক করছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন (ছবি : সিএনএন)

ইউক্রেন ইস্যুতে বিদ্যমান উত্তেজনার মধ্যেই রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে ফের বৈঠকে বসতে চলেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) ভার্চ্যুয়ালি এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। মূলত ইউক্রেন সীমান্তে রুশ সেনাবাহিনীর একত্রিত হওয়া এবং আক্রমণের আশঙ্কার মধ্যেই পুতিনের মুখোমুখি বসতে চলেছেন জো বাইডেন।

যদিও ইউক্রেন ইস্যুতে গুরুত্বপূর্ণ ওই বৈঠকের আয়োজন করা হলেও বৈশ্বিক পরাশক্তির দুই দেশের নেতাদের মধ্যে সমঝোতার সম্ভাবনা বা যে কোনো ধরনের আপসের সম্ভাবনা খুবই ক্ষীণ। মঙ্গলবার বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হবে বলে গেল শনিবার উভয় দেশের পক্ষ থেকে জানানো হয়। অবশ্য মঙ্গলবার ঠিক কখন পুতিন ও বাইডেনের মধ্যে এই আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে, তা আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয়নি।

মঙ্গলবার প্রতিবেদন প্রকাশের মাধ্যমে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, মঙ্গলবার গ্রিনিচ মান সময় বিকাল ৩টায় (বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায়) ভিডিয়োকলের মাধ্যমে বৈঠকটি শুরু হবে। এবার ইউক্রেন ইস্যু ছাড়াও কৌশলগত স্থিতিশীলতা, সাইবার নিরাপত্তা এবং আঞ্চলিক বিভিন্ন বিষয়ও বৈঠকের আলোচ্য বিষয় হয়ে উঠতে পারে।

ভার্চ্যুয়াল ওই বৈঠকের আগে যুক্তরাষ্ট্র-রাশিয়ার সম্পর্ক কোন পর্যায়ে রয়েছে; এমন প্রশ্নের জবাবে রুশ প্রেসিডেন্টের সরকারি বাসভবন ক্রেমলিন বলছে, বর্তমানে (উভয় দেশের সম্পর্ক) খুবই দুঃখজনক পর্যায়ে রয়েছে।

আরও পড়ুন : সাজা কমল সু চির

যদিও ওয়াশিংটন বরাবরই অভিযোগ করে আসছে, ন্যাটোর সদস্য রাষ্ট্র ইউক্রেনের সীমান্তে বিপুল সংখ্যক সেনা মোতায়েন করে রেখেছে রাশিয়া। দেশটির আশঙ্কা, ২০১৪ সালে রাশিয়া যেভাবে ক্রিমিয়া দখল করে নিয়েছিল এবারও ঠিক একইভাবে ইউক্রেনে হামলা করা হতে পারে এবং সার্বভৌমত্ব বিনষ্ট করতে পারে।

মার্কিন প্রশাসন বলছে, রাশিয়া এমন কিছু করলে পশ্চিমারা দেশটির ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে প্রস্তুত। যদিও যুক্তরাষ্ট্রের এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে ক্রেমলিন। মস্কোর দাবি, রুশ সৈন্যরা নিজস্ব ভূখণ্ডেই অবস্থান করছে এবং সেখানে তারা আত্মরক্ষামূলক কর্মকাণ্ডই পরিচালনা করছে।

যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা কর্মকর্তারা দাবি করেছেন রুশ সামরিক বাহিনী ২০২২ সালের শুরুর দিকে ইউক্রেনে সামরিক অভিযান পরিচালনা করতে পারে। গত শুক্রবার গোয়েন্দা প্রতিবেদনের বরাতে এমন সংবাদ প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্রের মিডিয়া ওয়াশিংটন পোস্ট ও মার্কিন বার্তা সংস্থা এপি।

ওয়াশিংটন পোস্টের হাতে আসা গোয়েন্দা প্রতিবেদন অনুযায়ী, চারটি স্থানে রাশিয়ার সৈন্য, ট্যাংক ও কামানের সমাবেশ ঘটানোর প্রমাণ পাওয়া গেছে। প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, বর্তমানে ইউক্রেন সীমান্তে ৯৪ হাজার সৈন্য রয়েছে, যা এক লাখ ৭৫ হাজারে উন্নীত হতে পারে। এছাড়া আগামী মাসেই হামলার আশঙ্কা করা জানিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ইউক্রেনও।

আরও পড়ুন : সব ধর্মের সম্মিলন চায় চীন : জিনপিং

এরপরই ইউক্রেন ইস্যুতে মঙ্গলবার প্রেসিডেন্ট বাইডেন ও প্রেসিডেন্ট পুতিন বৈঠকে বসবেন বলে ঠিক হয়। সেই বৈঠকে ঠিক কতটা ফল বয়ে আনবে বা ইউক্রেন ইস্যুতে উত্তেজনা কতটা প্রশমিত করতে পারবে সেটিই এখন দেখার বিষয়। তবে আর যাই হোক, কোনো সমঝোতা বা যেকোনো ধরনের আপসের সম্ভাবনা খুবই ক্ষীণ।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড