• বুধবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২২, ১২ মাঘ ১৪২৮  |   ১৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

পেট্রোলের দাম কমল ভারতে

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৩:২৬
পেট্রোলের দাম কমল ভারতে
মোটরসাইকেলে জ্বালানি সরবরাহ করা হচ্ছে (ছবি : কলকাতা ২৪)

দক্ষিণ এশিয়ার ঘনবসতিপূর্ণ দেশ ভারতে পেট্রোলের দাম প্রতি লিটারে ৮ রুপি কমিয়েছে ক্ষমতাসীন মোদী সরকার। যা আজ বুধবার (১ ডিসেম্বর) রাত থেকেই কার্যকর হচ্ছে।

ভারতীয় বার্তা সংস্থা এএনআইয়ের প্রতিবেদনে জানানো হয়, বিজেপি সরকার জ্বালানি তেলের মধ্যে পেট্রোলের ওপর আরোপিত ভ্যাট ৩০% থেকে কমিয়ে ১৯.৪০% করেছে। যার ফলে পেট্রোলের দাম এখন থেকে লিটার প্রতি ৮ রুপি কমবে। যা বুধবার মধ্যরাত থেকে কার্যকর হবে।

এর আগে গেল ৪ নভেম্বর গোটা দেশে পেট্রোল ও ডিজেলের দাম লিটার প্রতি যথাক্রমে ৫ ও ১০ রুপি কমিয়েছিল বিজেপি সরকার।

বিশ্লেষকদের মতে, সম্প্রতি দেশের ১৩টি রাজ্যে বেশকিছু বিধানসভা কেন্দ্রে ও তিনটি লোকসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচন হয়েছে। তার ফলে দেখা গেছে, আসাম ও উত্তর পূর্বের রাজ্যগুলো ছাড়া বিজেপি কোথাও ভালো ফল করতে পারেনি। তিনটির মধ্যে তারা মাত্র একটি লোকসভা আসনে জিতেছে।

এর মধ্যে কংগ্রেস একটি ও শিবসেনা একটিতে জিতেছে। হিমাচলে তিনটি বিধানসভা আসনেই হেরেছে। কর্ণাটক ও মধ্যপ্রদেশে কংগ্রেস একটি করে আসনে জিতেছে। রাজস্থানে বিজেপি একটিও আসনে জিততে পারেনি। দলীয় সূত্র বলছে, এই ফলের কারণ দ্রব্যমূল্য নিয়ে সাধারণ মানুষের ক্ষোভ।

বিজেপি সূত্র বলছে, সম্প্রতি দলটির শীর্ষ নেতারা উত্তরপ্রদেশের বিভিন্ন জেলায় স্থানীয় দলীয় নেতৃত্ব ও প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের কাছ থেকে পরিস্থিতি জানতে চান। এরপর তারা যে রিপোর্ট দিয়েছেন তা হলো, এমনিতে পরিস্থিতি ভালো, কিন্তু গতবারের চেয়ে আসন দুই-একটা কমতে পারে। গতবার তিন শতাধিক আসনে জয়লাভ করেছিল ক্ষমতাসীন বিজেপি। এবার জেলা পর্যায়ে দুই-একটা করে আসন হ্রাস পাওয়া মানে প্রায় ১৫০-এর মতো আসন কমে যাওয়া। আর তাতেই দলটির শীর্ষ নেতৃত্বের কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে।

আরও পড়ুন : সমুদ্রে নিম্নচাপ, ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নেওয়ার শঙ্কা

সমীক্ষা করে দেখা গেছে, উত্তরপ্রদেশের মানুষ দুইটি বিষয়ে ভীষণই ক্ষুব্ধ। এক- পেট্রোল-ডিজেলের দাম মাত্রা ছাড়া জায়গায় পৌঁছেছে। দুই- সর্ষের তেলের দাম ২০০ ছাড়িয়ে লিটারে ২৫০ টাকার কাছাকাছি গিয়ে ঠেকেছে। সেই সঙ্গে অন্য জিনিসের দাম বাড়া এবং স্থানীয় কিছু সমস্যা আছে। তারপরই পেট্রোল-ডিজেলের দাম কমিয়ে এই দীপাবলির উপহার দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

শুধু দাম কমানোই নয়, সেই সঙ্গে লাগাতার বিষয়টি প্রচার শুরুর পরিকল্পনাও নিয়েছে বিজেপি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহসহ দলটির ছোট-বড় নেতারা এরই মধ্যে তেলের মূল্য হ্রাস ইস্যুতে টুইট করতে শুরু করেছেন। তাদের মতে, সরকারের এই সিদ্ধান্ত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সাধারণ জনগণের পাশে থাকার বড় একটি উদাহরণ। তার সংবেদনশীলতার পরিচয়। এই প্রচারটাই এবার দেশজুড়ে চালিয়ে যেতে হবে।

বিজেপি সূত্র জানাচ্ছে, সাধারণ মানুষ দীর্ঘদিন যাবত কোনো বিষয় মনে রাখে না। তাই ভোটের সময় তারা দাম কমানোর কথাটাই মনে রাখবে। দাম বাড়ার কথা নয়। এরপর সর্ষের তেলের দাম কমানো হবে। পেঁয়াজের দামে রাশ টানা হবে। আর সেই সব প্রচার তুঙ্গে উঠবে। দরকার হলে রান্নার গ্যাসের দামও সামান্য কমানো হতে পারে। এভাবেই মানুষের মনের ক্ষোভ দূর হবে।

আরও পড়ুন : হঠাৎ স্থগিত সু চির মামলার রায়

উল্লেখ্য, জ্বালানি তেলের দামের ঊর্ধ্বগতিতে বিপর্যস্ত জনগণকে স্বস্তি দিতে ভারত সরকার এমন ঘোষণা দিয়েছে বলে মত ক্ষমতাসীন রাজনীতিবিদদের।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড