• বুধবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২২, ১২ মাঘ ১৪২৮  |   ২০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারই আলোচনার প্রধান লক্ষ্য : ইরান

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৩:৫৫
নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারই আলোচনার প্রধান লক্ষ্য : ইরান
ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির আব্দুল্লাহিয়ান (ছবি : ইরনা)

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারই এবারের পরমাণু আলোচনার প্রধান লক্ষ্য বলে জানিয়েছে তেহরান। এমনকি চুক্তির বাইরে কোনো বিষয়ই মানা হবে না বলেও সাফ মন্তব্য করেছেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির আব্দুল্লাহিয়ান। ভিয়েনা আলোচনায় সংশ্লিষ্ট কোনো পক্ষ যদি এমন কোনো অনুরোধ জানায় যা পরমাণু সমঝোতায় নেই তাহলে ইরান তা মেনে নেবে না বলেও ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

ইরানি গণমাধ্যম পার্সটুডে জানিয়েছে, সোমবার (২৯ নভেম্বর) ভিয়েনায় ইরান ও পাঁচ জাতিগোষ্ঠী নতুন করে পরমাণু সমঝোতা পুনর্বহালের লক্ষ্যে বৈঠকটি শুরু করে। এবার ক্ষমতাধর পাঁচ জাতিগোষ্ঠীর পক্ষে অংশগ্রহণ করেছে- চীন, যুক্তরাজ্য, রাশিয়া, জার্মানি এবং ফ্রান্স।

বিশ্লেষকদের মতে, ২০১৮ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র গুরুত্বপূর্ণ ওই সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যাওয়ার কারণে তারা এখন আর কোনো পক্ষ নয়। সে কারণে ওয়াশিংটন সরাসরি ভিয়েনা আলোচনায় অংশগ্রহণ করতে পারছে না। যদিও মার্কিন কর্তৃপক্ষকে কিভাবে পরমাণু সমঝোতায় ফিরিয়ে আনা যায়; চলমান ভিয়েনা আলোচনায় সেটাই হবে অন্যতম প্রধান এজেন্ডা।

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির আব্দুল্লাহিয়ান তার এক নিবন্ধে দাবি করেন, এখন পর্যন্ত ছয় দফা আলোচনা হলেও যুক্তরাষ্ট্রে বাড়তি দাবি ও অবাস্তব অবস্থানের কারণে তা কখনোই সফল হতে পারেনি।

আরও পড়ুন : কঙ্গোতে বন্দুকধারীদের হামলায় নিহত ২২

পরমাণু সমঝোতা থেকে ওয়াশিংটনের বেরিয়ে যাওয়ার বিষয়টি উল্লেখ করে তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় যুক্তরাষ্ট্রের এই বেআইনি আচরণের ব্যাপারে একমত। তারা মনে করে, সামগ্রিকভাবে এটি আন্তর্জাতিক আইনের অবমাননা।

বর্তমান মার্কিন প্রশাসনের তীব্র সমালোচনা করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচারাভিযানের সময় জো বাইডেন সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ইরানবিরোধী নীতি অনুসরণ করবেন না বলে বারংবার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। যদিও এত কিছুর পর তিনি এখন পর্যন্ত পরমাণু সমঝোতায় ফিরে আসতে পারেননি।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে ইরানের সঙ্গে ও ছয় দেশের মধ্যে পরমাণু চুক্তি হয়। সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর যুক্তরাষ্ট্রকে পরমাণু চুক্তি থেকে একতরফাভাবে বেড় করে নেন। যদিও জো বাইডেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে ক্ষমতা গ্রহণের পর নতুন করে পরমাণু চুক্তিতে ফেরার ঘোষণা দিয়েছেন।

আরও পড়ুন : চীনে ফের করোনার ভয়াবহ প্রাদুর্ভাবের শঙ্কা

গত এপ্রিল থেকে ইরানসহ ছয় দেশের মধ্যে পরমাণু চুক্তি পুনরুজ্জীবিত করার লক্ষে আলোচনা চলছে। এরই ধারাবাহিকতায় ২৯ নভেম্বর তেহরানের নতুন প্রশাসনের অধীনে আলোচনা শুরু হয়েছে। ইরানের অবস্থানের প্রতি এশিয়ার পরাশক্তি চীন ও ক্ষমতাধর দেশ রাশিয়া সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে।

সূত্র : পার্সটুডে, প্রেস টিভি

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড