• শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮  |   ২২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মহারাষ্ট্রে নারী-শিশুসহ ১৩ বাংলাদেশি আটক

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৫ নভেম্বর ২০২১, ১৫:৪১
মহারাষ্ট্রে নারী-শিশুসহ ১৩ বাংলাদেশি আটক
নাগপুর রেল স্টেশনে যাত্রীদের ভিড় (ছবি : দ্য হিন্দু)

দক্ষিণ এশিয়ার ঘনবসতিপূর্ণ দেশ ভারতের পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য মহারাষ্ট্রের নাগপুরে নারী-শিশুসহ ১৩ বাংলাদেশিকে আটক করেছে পুলিশ। গত মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) দিবাগত রাতে নাগপুরের রেল স্টেশনের একটি ট্রেন থেকে তাদেরকে আটক করা হয়। আটককৃতরা সকলেই বাংলাদেশের নাগরিক এবং তারা দেশটিতে পাচারের শিকার হয়েছিলেন।

আটককৃত ১৩ বাংলাদেশির মধ্যে নয়জন নারী, তিন শিশু এবং একজন অল্পবয়সী যুবক রয়েছেন। এ দিকে আন্তর্জাতিক একটি মানব পাচারকারী চক্রকে এরই মধ্যে চিহ্নিত করা গেছে বলে জানিয়েছে নাগপুর পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চ এবং মহারাষ্ট্র অ্যান্টি-টেররিজম স্কোয়াড। বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) প্রতিবেদন প্রকাশের মাধ্যমে তথ্যগুলো জানিয়েছে ভারতীয় মিডিয়া দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়া।

প্রতিবেদনে বলা হয়, আটককৃত বাংলাদেশিরা ভুয়া পরিচয়পত্র ব্যবহার করে ভারতে প্রবেশ করেছিলেন। এরপর তারা ট্রেনে চেপে পশ্চিমবঙ্গের রাজধানী কলকাতা থেকে সরাসরি মুম্বাই শহরে যাওয়ার পথে নাগপুর রেল স্টেশন থেকে আটক হন।

এ দিকে আটকের পর ওই বাংলাদেশিদের এখন জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। নাগপুর পুলিশের ডিসিপি (ক্রাইম) চিন্ময় পণ্ডিত বলছেন, আটককৃতদের মধ্যে দুই বা তিনজন নারী রয়েছেন, যাদেরকে ভারতে প্রবেশের পরপরই গৃহপরিচারিকার কাজে যুক্ত করার জন্য গুজরাটের সুরাটে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। আর বাকিদেরকে দিনমজুর হিসেবে কাজে যুক্ত করার পরিকল্পনা ছিল পাচারকারীদের।

ভারতীয় মিডিয়াগুলো বলছে, নারী ও শিশুসহ এক যুবককে ট্রেনে করে মুম্বাই হয়ে জোর করে গুজরাটে নেওয়া হচ্ছে বলে গোপন সংবাদটি প্রথমে পান নাগপুরের পুলিশ কমিশনার অমিতেশ কুমার। এরপর তিনি ভুক্তভোগীদের উদ্ধারের নির্দেশনা প্রদান করেন এবং মঙ্গলবার রাতে কৌশলে তাদেরকে নাগপুর স্টেশন থেকে উদ্ধার করে পুলিশ।

আরও পড়ুন : লিবিয়ায় প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হতে পারছেন না গাদ্দাফিপুত্র

টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদন অনুযায়ী- উদ্ধারকৃত ১৩ বাংলাদেশির বাড়িই যশোর জেলায় বলে প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে। তাদের মধ্যে এক নারীকে পাচারকারীরা পতিতাবৃত্তির জন্যও পাঠিয়েছিল বলে এরই মধ্যে জিজ্ঞাসাবাদে বেরিয়ে এসেছে।

উদ্ধারকৃত নারীদের মধ্যে দুজন বেশ অল্পবয়সী, তাদের একজন পেশায় প্রকৌশলী। তারা পতিতাবৃত্তির সঙ্গে জড়িত বলে অভিযোগ রয়েছে। এমনকি ভারতে প্রবেশের আগে ওই দুই নারীর একজন বাংলাদেশেও পতিতাবৃত্তির সঙ্গে জড়িত ছিল বলে পুলিশি তদন্তে প্রকাশিত হয়েছে।

এছাড়া আটককৃতদের কাছ থেকে বেশকিছু আধার কার্ডও উদ্ধার করেছে পুলিশ। কিন্তু সেগুলো নকল হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন : রাশিয়ায় পরমাণু হামলার মহড়া চালাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

প্রতিবেদন অনুযায়ী- গত দিন দুয়েক আগে অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রম করে বাংলাদেশ থেকে ভারতে প্রবেশ করেছিল ওই ১৩ বাংলাদেশি। এরপর তারা কলকাতার হাওড়ায় একটি হোটেলে দুদিন অবস্থান করেছিলেন। এ সময় পাচারকারীরা তাদের প্রত্যেকের কাছ থেকে ২০ হাজার ভারতীয় রুপি করে নেয়। পরবর্তীকালে তারাই ওই ১৩ জনকে মুম্বাইয়ের ট্রেনে উঠিয়ে দেয়।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড