• বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮  |   ২৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সৌদির কাছে অস্ত্র বিক্রি ঠেকাতে তৎপর মার্কিন সিনেটররা

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৯ নভেম্বর ২০২১, ১৬:৪৫
সৌদির কাছে অস্ত্র বিক্রি ঠেকাতে তৎপর মার্কিন সিনেটররা
মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান (ছবি : আল-জাজিরা)

মধ্যপ্রাচ্যের মুসলিম অধ্যুষিত রাষ্ট্র সৌদি আরবের কাছে অস্ত্র বিক্রির সিদ্ধান্ত ঠেকাতে তৎপরতা শুরু করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটররা। চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর এই মাসের শুরুর দিকে মধ্যপ্রাচ্যের এই দেশটির কাছে প্রথমবারের মতো বড় অংকের অস্ত্র বিক্রির ঘোষণা দেয় প্রেসিডেন্ট বাইডেনের প্রশাসন।

শুক্রবার (১৯ নভেম্বর) প্রতিবেদন প্রকাশের মাধ্যমে তথ্যটি জানিয়েছে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স। ইয়েমেন যুদ্ধে সৌদি আরবের সংশ্লিষ্টতার কারণে দেশটির কাছে অস্ত্র বিক্রির সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে অবস্থান গ্রহণের ঘোষণা দেন তিনজন মার্কিন সিনেটর।

চলতি নভেম্বর মাসের শুরুর দিকে মুসলমানদের তীর্থস্থান খ্যাত রাষ্ট্র সৌদি আরবের কাছে প্রথমবারের মতো বড় অংকের অস্ত্র বিক্রির অনুমোদন দেয় যুক্তরাষ্ট্র। চুক্তির আওতায় রিয়াদকে ৬৫ কোটি মার্কিন ডলার মূল্যের আকাশ থেকে আকাশে নিক্ষোপযোগ্য ক্ষেপণাস্ত্র সরবরাহ করবে ওয়াশিংটন।

বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ প্রায় পাঁচ হাজার ৫৭৭ কোটি টাকা। এর মাধ্যমে মধ্যম পাল্লার এআইএম-১২০সি-৭/সি-৮ মডেলের আকাশ থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য ক্ষেপণাস্ত্রগুলো সৌদি আরবের হাতে যাওয়ার কথা।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে, সৌদি আরবের কাছে ৬৫ কোটি মার্কিন ডলার মূল্যের এই ক্ষেপণাস্ত্র বিক্রি আটকাতে একটি যৌথ অসম্মতি প্রস্তাব এনেছেন যুক্তরাষ্ট্রের রিপাবলিকান সিনেটর র‌্যান্ড পল এবং মাইক লি। এছাড়া ডেমোক্র্যাট দলীয় সিনেটর বার্নি স্যান্ডার্সও এর সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন।

মধ্যপ্রাচ্যে রিয়াদকে ওয়াশিংটনের গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার বলে সৌদি আরবকে অনেক মার্কিন আইনপ্রণেতা স্বীকৃতি দিলেও মূলত ইয়েমেন যুদ্ধে রিয়াদের জড়িত থাকার কারণে দেশটির কাছে অস্ত্র বিক্রির বিরোধিতা করছেন তারা। কারণ দীর্ঘ ছয় বছরের বেশি সময় যাবত চলা যুদ্ধের কারণে ইয়েমেনে বিশ্বের সবচেয়ে ভয়াবহ মানবিক সংকটের সৃষ্টি হয়েছে বলে ধারণা করা হয়।

আরও পড়ুন : ইসরায়েলের সঙ্গে প্রথমবারের মতো নৌ মহড়ায় বাহরাইন-আমিরাত

আর তাই যুদ্ধবিধ্বস্ত রাষ্ট্র ইয়েমেনে আক্রমণ ও দেশটিতে সৃষ্ট মানবিক সংকটের কারণে মার্কিন রাজনীতিক ব্যক্তিত্বরা রিয়াদের সমালোচনা করে আসছেন। এর আগে গত জানুয়ারিতে প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর সৌদি আরবের কাছে অস্ত্র বিক্রি স্থগিত করাসহ ইয়েমেন ইস্যুতে রিয়াদের ওপর থেকে সমর্থন প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছিলেন জো বাইডেন।

বেসামরিক মানুষের বিরুদ্ধে মার্কিন অস্ত্র ব্যবহার করা হবে না; এ নিশ্চয়তার দাবি করে যুক্তরাষ্ট্র এতদিন সৌদি আরবের কাছে সামরিক ক্রয়-বিক্রয় বন্ধ রেখেছিল। যদিও পরিস্থিতির কোনো পরিবর্তন বা উন্নতি না হলেও এর কয়েক মাসের মাথায় অর্থাৎ নভেম্বরের শুরুতে ফের দেশটির কাছে অস্ত্র বিক্রির অনুমোদন দেয় জো বাইডেনের নেতৃত্বাধীন মার্কিন প্রশাসন।

সে সময় অবশ্য সিরিজ বেশ কয়েকটি টুইটে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের ব্যুরো অব পলিটিকাল-মিলিটারি অ্যাফেয়ার্স দাবি করেছিল যে, এই ক্ষেপণাস্ত্রগুলো ভূমিতে হামলার ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হবে না।

মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতরের (পেন্টাগন) দাবি, সৌদি আরবের বর্তমান ও ভবিষ্যৎ হুমকি মোকাবিলায় মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এই অস্ত্র বিক্রির অনুমোদন দিয়েছে। প্রস্তাবিত এই অস্ত্র বিক্রি যুক্তরাষ্ট্রের বৈদেশিক নীতিমালার ও জাতীয় নিরাপত্তার জন্য গুরুত্বপূর্ণ। কারণ মধ্যপ্রাচ্যের রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক উন্নতির জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করা বন্ধু দেশ সৌদি আরবের নিরাপত্তার উন্নতিতে এটি সহায়তা করবে।

আরও পড়ুন : ১৫ বছরের ইতিহাসে আমাজনে সবচেয়ে বেশি গাছ উজাড়

এ দিকে অস্ত্র বিক্রির বিষয়ে বাইডেন প্রশাসনের এই অনুমোদনের পর কংগ্রেসে এর আলাদা করে অনুমোদন নেওয়ার প্রয়োজন নেই বলে আগেই জানিয়েছিল কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা। তবে আইনপ্রণেতারা চাইলে সিনেট ও হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভে একটি অসম্মতি বিল পাস করিয়ে সৌদির কাছে অস্ত্র বিক্রি ঠেকিয়ে দিতে পারেন।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড