• বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮  |   ২৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ভুটান সীমান্তে এক বছরে ৪টি গ্রাম বানাল চীন

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৮ নভেম্বর ২০২১, ১৬:৪৩
ভুটান সীমান্তে এক বছরে ৪টি গ্রাম বানাল চীন
উপগ্রহ চিত্র (ছবি : স্যাটেলাইট)

দক্ষিণ এশিয়ার দেশ ভুটান লাগোয়া সীমান্তে নতুন ৪টি গ্রাম তৈরি করেছে এশিয়ার পরাশক্তি চীন। গত এক বছর যাবত গ্রামগুলো গড়ে তুলছে বেইজিং। বুধবার (১৭ নভেম্বর) প্রতিবেদন প্রকাশের মাধ্যমে তথ্যটি জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

মিডিয়াটি বলছে, গত এক বছর যাবত ভারত-ভুটান-চীন সীমান্ত লাগোয়া ডোকলামের কাছে ভুটানের ভূখণ্ড দখল করে নির্মাণকাজ পরিচালনা করছে বেইজিং। সীমান্ত সংলগ্ন ১০০ বর্গ কিলোমিটার এলাকায় গত এক বছরের মধ্যে মোট চারটি গ্রাম গড়ে তুলেছে শি জিনপিংয়ের দেশ। ওপেন সোর্স ইন্টেলিজেন্স @ডিট্রেসফা সম্প্রতি একটি উপগ্রহ চিত্র টুইট করে তথ্যটি সামনে এনেছে।

২০১৭ সালে এই ডোকলাম নিয়েই ভারত-চীনের সেনাবাহিনীর মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। ভুটান-চীনের বিতর্কিত ভূখণ্ডে বেইজিংয়ের এই জবরদখল নয়াদিল্লির পক্ষে উদ্বেগজনক বলেই মনে করছে দেশটির বিশ্লেষকরা। যদিও ৪টি নতুন গ্রাম তৈরির বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে ভারত এখনো কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি।

ভারতীয় মিডিয়াগুলো বলছে, ভুটানের সঙ্গে চীনের সীমান্ত নিয়ে বিতর্ক দীর্ঘ দিনের। সেই সমস্যা মেটাতে ভুটানের ওপর চীন ক্রমাগত চাপ তৈরি করছে। এবার সরাসরি ভুটানের ভূখণ্ডে গ্রাম তৈরি করায় চীন এবং ভারত সীমান্তে নতুন করে উত্তেজনার পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে।

এ দিকে উপগ্রহ চিত্রে চারটি গ্রাম ধরা পড়লেও বিশেষজ্ঞদের দাবি, ডোকলামে চারের অধিক গ্রাম তৈরি করেছে চীন। শুধু তাই নয়, ওই এলাকায় চীনের কেন্দ্রীয় সরকার বহুসংখ্যক সৈন্য মোতায়েনও করেছে।

আরও পড়ুন : নাইজারে গ্রামরক্ষী-সন্ত্রাসীদের সংঘাতে নিহত ২৫

ভুটানের যে এলাকায় চীন নির্মাণকাজ করছে বলে দাবি করা হচ্ছে, সেই এলাকাকে ‘চিকেনস নেক’ বলা হয়। এই এলাকার ভৌগোলিক অবস্থান, অর্থনৈতিক এবং আন্তর্জাতিক গুরুত্ব অনেক বেশি। ফলে উপগ্রহ চিত্রে যে দৃশ্য ধারণ করা হয়েছে তা নয়াদিল্লির উদ্বেগ অনেকটাই বাড়িয়ে দেবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এর আগে ২০২০ সালের নভেম্বরে প্রকাশিত একটি উপগ্রহ চিত্রে ডোকলাম এলাকায় চীনের একটি রাস্তা তৈরির তথ্য উঠে আসে। ৯ কিলোমিটার দীর্ঘ ওই রাস্তা ভারতের সিকিম সীমান্ত পর্যন্ত বিস্তৃত। চীনের এই কাজে সে সময় ফের বিতর্ক শুরু হয়।

এর কিছু দিন আগে চীনের এক গণমাধ্যমের কর্মকর্তা সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে জানিয়েছিলেন, ভুটান লাগোয়া চীন সীমান্তে নতুন গ্রাম তৈরি করে ফেলেছে শি জিনপিং নেতৃত্বাধীন সরকার। বিষয়টি নিয়ে সে সময় উদ্বেগও প্রকাশ করেছিল নয়াদিল্লি।

পরবর্তীকালে দেখা যায়, সীমান্তে নয়, ভুটানের প্রায় দুই কিলোমিটার ভেতরে ঢুকে পড়েছে চীন। মূলত সেখানেই তৈরি হয়েছে নতুন ওই গ্রাম। আর এবার হয়তো সেই গ্রামের ছবিই নতুন করে সামনে এলো।

উল্লেখ্য, ডোকলাম ভারতীয় সেনাবাহিনীর জন্য কৌশলগতভাবে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি জায়গা। ডোকলাম মালভূমি মূলত ভুটানের অংশ হলেও তা ভারতের সিকিম রাজ্যের ঠিক পাশেই অবস্থিত।

আরও পড়ুন : বন্যা-ঝড়ের তাণ্ডবে ব্রিটিশ কলাম্বিয়ায় জরুরি অবস্থা জারি

এমনিতেই ভুটানের নিরাপত্তায় ভারতীয় সেনাবাহিনী কাজ করে থাকে। ভুটানে নয়াদিল্লির বেশ কয়েকটি সামরিক ঘাঁটিও রয়েছে। ফলে ডোকলাম নিয়ে ভারত সব সময়ই সতর্ক অবস্থাতে আছে।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড