• মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮  |   ২৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বন্যা-ঝড়ের তাণ্ডবে ব্রিটিশ কলাম্বিয়ায় জরুরি অবস্থা জারি

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৮ নভেম্বর ২০২১, ১৩:৩০
বন্যা-ঝড়ের তাণ্ডবে ব্রিটিশ কলাম্বিয়ায় জরুরি অবস্থা জারি
বন্যার পানিতে ভেসে যাচ্ছে বাড়ি (ছবি : বিবিসি নিউজ)

উত্তর আমেরিকার দেশ কানাডার পশ্চিমাঞ্চলীয় ব্রিটিশ কলাম্বিয়া প্রদেশে জরুরি অবস্থা জারি করেছে সরকার। ভয়াবহ বন্যা ও ঝড়ের তাণ্ডবে প্রদেশটির রেল ও সড়ক যোগাযোগ পুরোপুরি বন্ধ হয়ে গেছে। সংকটময় এমন পরিস্থিতিতে বুধবার (১৭ নভেম্বর) স্থানীয় সময় দুপুরে প্রাদেশিক প্রধান জরুরি অবস্থাটি জারি করেন।

বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) প্রতিবেদন প্রকাশের মাধ্যমে ব্রিটিশ মিডিয়া বিবিসি নিউজ এবং কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা তথ্যটি জানিয়েছে। এছাড়া বন্যাদুর্গত ও আটকে পড়া লোকজনকে উদ্ধারে বিমান বাহিনী পাঠানোর ঘোষণাও দিয়েছে দেশটির ফেডারেল সরকার।

বিবিসি নিউজ বলছে, গত রবিবার ব্রিটিশ কলাম্বিয়ায় রাতভর ঝড় ও বৃষ্টির পর থেকে সেখানে হাজার হাজার বাসিন্দা আটকে পড়ে আছেন। বিদ্যমান পরিস্থিতিতে আটকে পড়াদের সাহায্য করার জন্য কানাডার সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের মোতায়েন করা হয়েছে।

এছাড়া ওয়াশিংটন ডিসিতেও সফরের সময় কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তার প্রতিশ্রুতি প্রদান করেছেন। তিনি বলেন, পুনর্গঠন কর্মকাণ্ডে সামরিক বাহিনীর সদস্যরা সহায়তা করবে।

এ দিকে বুধবার সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ব্রিটিশ কলাম্বিয়ায় জরুরি অবস্থা জারির ঘোষণা দেন প্রাদেশিক প্রধান জন হরগান। স্থানীয় সময় দুপুর ১২টা থেকে ঘোষণাটি কার্যকরের নির্দেশ দিয়ে সেখানে তিনি জানান, জরুরি অবস্থার কারণে লোকজন বন্যা কবলিত এলাকা ও রাস্তায় যাওয়া থেকে বিরত থাকবে। একই সঙ্গে ক্ষতিগ্রস্তদের কাছে প্রয়োজনীয় সহায়তাও পৌঁছানো নিশ্চিত করতে হবে।

আরও পড়ুন : আততায়ীর গুলিতে মার্কিন র‍্যাপ তারকা ইয়াং ডলফ নিহত

জন হরগান দাবি করেন, গত সপ্তাহান্তের ঝড় ও বৃষ্টিতে কার্যত সবাই প্রভাবিত হয়েছেন বা এখনো হচ্ছেন। মানব সৃষ্ট জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে এ ধরনের ঘটনা ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে।

অপর দিকে বন্যা ও ভূমিধসের কারণে ব্রিটিশ কলাম্বিয়ায় এখন পর্যন্ত একজনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া আরও দুইজন নিখোঁজ রয়েছেন। ভূমিধসের ফলে সেখানকার বেশিরভাগ সড়ক কাদা ও পাথরের স্তূপ ছড়িয়ে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এমনকি অনেক জায়গায় ভেঙে পড়েছে যোগাযোগ সেতুও।

উল্লেখ্য, বুধবার আটকে পড়াদের কাছে হেলিকপ্টার ব্যবহারের মাধ্যমে পানি ও খাবার পৌঁছে দেওয়া হয়। এছাড়া দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত তুলামিন শহরে আটকা পড়েছেন প্রায় ৪০০ মানুষ।

আরও পড়ুন : উগান্ডায় জোড়া বিস্ফোরণের দায় নিল আইএস

গত মঙ্গলবার প্রতিবেদন প্রকাশের মাধ্যমে ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছিল, ভূমিধসের ফলে কাদা ও পাথরের স্তূপ ছড়িয়ে সড়কের সম্মুখ ও পেছনদিক বন্ধ হয়ে যাওয়ায় আগাসিজের একটি মহাসড়কে সোমবার রাত থেকে গাড়িতে অন্তত ২৭৫ জন মানুষ আটকা পড়েছেন। যদিও পরবর্তীকালে তাদেরকে সকলকে উদ্ধার করা হয়।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড